শিশুরা নাকে তিন সপ্তাহ পর্যন্ত করোনাভাইরাস বহন করতে পারে: গবেষণা

শিশুরা নাকে তিন সপ্তাহ পর্যন্ত করোনাভাইরাস বহন করতে পারে বলে দক্ষিণ কোরিয়ার এক গবেষণায় উঠে এসেছে।
CORONAVIRUS-INDIA-EDUCATION.jpg
করোনা মহামারির কারণে স্কুল বন্ধ থাকায় সামাজিক দূরত্ব ও সুরক্ষা নিয়ম মেনে খোলা আকাশের নীচে ক্লাস করছে ভারতের কাশ্মীরের ইন্টারনেট সুবিধাবঞ্চিত শিশুরা। ছবি: রয়টার্স

শিশুরা নাকে তিন সপ্তাহ পর্যন্ত করোনাভাইরাস বহন করতে পারে বলে দক্ষিণ কোরিয়ার এক গবেষণায় উঠে এসেছে।

এর আগের গবেষণাগুলোয় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত শিশুদের হালকা উপসর্গ বা উপসর্গহীন থাকার তথ্য পাওয়া গিয়েছিল।

বিবিসি জানায়, নতুন গবেষণায় প্রাপ্ত তথ্য অন্যদের মধ্যে শিশুদের ভাইরাস ছড়িয়ে দেওয়ার সম্ভাবনাকে আলোকপাত করেছে এবং শিশুরা স্কুলে ফিরে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে সামাজিক দূরত্ব ও সুরক্ষা নিশ্চিতের ওপর জোর দেওয়া হয়েছে।

শিশুরা করোনায় আক্রান্ত হয় কি না, তাদের ওপর ভাইরাসের প্রভাব কেমন এবং তারা অন্যদের মধ্যে ভাইরাস ছড়ায় কি না, এসব প্রশ্নের ব্যাখ্যা দিয়েছেন রয়্যাল কলেজ অব পেডিয়াট্রিক্স অ্যান্ড চাইল্ড হেলথ’র প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক রাসেল ভিনার।

তিনি বলেন, আমরা নিশ্চিত হয়েছি যে শিশুরা করোনায় আক্রান্ত হয়। তবে অ্যান্টিবডি রক্ত পরীক্ষায় দেখা যায়, প্রাপ্তবয়স্কদের তুলনায় তাদের (বিশেষ করে ১২ বছরের কম বয়সী শিশু) আক্রান্তের হার কম।

বিজ্ঞানীরা আরও নিশ্চিত হয়েছেন, আক্রান্ত হলেও বয়স্কদের তুলনায় শিশুদের অসুস্থ হয়ে পড়ার হার কম। অনেকের মধ্যে কোনো উপসর্গই দেখা যায় না।

গতকাল শুক্রবার প্রকাশিত ব্রিটেনের এক গবেষণা প্রতিবেদনে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

অধ্যাপক রাসেল ভিনার আরও বলেন, শেষ প্রশ্নটির উত্তর রয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ার গবেষণায়। ৯১ জন শিশুকে নিয়ে তারা গবেষণাটি করেছেন। হালকা উপসর্গ থাকা বা উপসর্গহীন শিশুদের নাকে তিন সপ্তাহ অতিবাহিত হওয়ার পরেও করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে।

এর মানে হলো, যেহেতু শিশুদের নাকের মধ্যে শনাক্তকরণযোগ্য ভাইরাস রয়েছে, সেহেতু তারা অন্যদের মধ্যে সেটি সহজেই ছড়িয়ে দিতে সক্ষম।

Comments

The Daily Star  | English

One dead as Singapore Airlines flight hit by turbulence

 A Singapore Airlines SIAL.SI flight from London made an emergency landing in Bangkok on Tuesday due to severe turbulence, officials said, with one passenger on board dead and local media reporting multiple injuries.

1h ago