ইরানের কাছে চুক্তি সীমার ১০ গুণ বেশি ইউরেনিয়াম: আইএইএ

আন্তর্জাতিক চুক্তির শর্ত ভঙ্গ করে ইউরেনিয়ামের মজুদ বাড়িয়ে যাচ্ছে ইরান। ২০১৫ সালের পারমানবিক চুক্তি অনুযায়ী তাদের কাছে যে পরিমাণ ইউরেনিয়াম থাকার কথা, বর্তমানে তার চেয়ে ১০ গুণ বেশি মজুত রয়েছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘের পারমাণবিক কর্মসূচি পর্যবেক্ষক প্রতিষ্ঠান।

আন্তর্জাতিক চুক্তির শর্ত ভঙ্গ করে ইউরেনিয়ামের মজুদ বাড়িয়ে যাচ্ছে ইরান। ২০১৫ সালের পারমানবিক চুক্তি অনুযায়ী তাদের কাছে যে পরিমাণ ইউরেনিয়াম থাকার কথা, বর্তমানে তার চেয়ে ১০ গুণ বেশি মজুত রয়েছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘের পারমাণবিক কর্মসূচি পর্যবেক্ষক প্রতিষ্ঠান।

আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি সংস্থার (আইএইএ) বরাত দিয়ে আলজাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত ২৫ আগস্ট পর্যন্ত ইরানের কম সমৃদ্ধ ইউরেনিয়ামের মজুত দুই হাজার ১০৫ দশমিক চার কেজি।

২০১৫ সালে যুক্তরাষ্ট্র, ইরান, ফ্রান্স, চীন, জার্মানি, যুক্তরাজ্য ও রাশিয়া ‘জয়েন্ট কম্প্রিহেনসিভ প্লান অব অ্যাকশন’ নামে একটি পারমানবিক চুক্তিতে সই করে। চুক্তি অনুযায়ী ইরান মাত্র ২০২ দশমিক আট কেজি ইউরেনিয়ামের মজুদ রাখতে পারবে।

আইএইএ আরও জানিয়েছে, ইরানের তিন দশমিক ৬৭ শতাংশ সমৃদ্ধ ইউরেনিয়াম মজুতের অনুমোদন থাকলেও তারা চার থেকে পাঁচ শতাংশ সমৃদ্ধ ইউরেনিয়ামের মজুদ করছে।

২০১৮ সালে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এই চুক্তি থেকে বেড়িয়ে গেলে, মার্কিন নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে প্রতিশোধ সরূপ ইরান ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধ করা শুরু করে।

যদিও ইরানের দাবি, তারা সম্পূর্ণ শান্তিপূর্ণ উদ্দেশ্যে তাদের পারমাণবিক কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।

সম্প্রতি ইরানের দুটি সন্দেহভাজন পারমাণবিক স্থাপনায় আইএইএ-এর পরিদর্শকদের প্রবেশাধিকার দেবে বলে জানিয়েছে। যার মধ্যে একটি স্থাপনা থেকে পরীক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে এবং অপরটি থেকে নমুনা সংগ্রহের তারিখ চূড়ান্ত হয়েছে।

উল্লেখ্য, কম সমৃদ্ধ ইউরেনিয়াম, যার ঘনত্ব তিন থেকে পাঁচ শতাংশ, তা কেবল বিদ্যুৎ উৎপাদন প্ল্যান্টের জ্বালানি হিসেবে ব্যবহার করা হয়। অস্ত্র তৈরির জন্য ইউরেনিয়ামের ঘনত্ব ৯০ শতাংশ বা তার চেয়েও বেশি হতে হয়।

Comments

The Daily Star  | English

Youth killed falling into canal in Ctg

A young man was killed falling into a canal in the Asadganj area of port city this afternoon

52m ago