মেসি ম্যানসিটিতে যোগ না দেওয়ায় ‘কিছু যায় আসে না’ ডি ব্রুইনের

মেসি ম্যানসিটিতে যোগ দিলে, নিঃসন্দেহে শক্তির বিচারে আরও অনেক এগিয়ে যেত শক্তিশালী ইংলিশ ক্লাবটি। কিন্তু কী ঘটতে পারত তা ভেবে কালক্ষেপণ করতে চান না সময়ের অন্যতম সেরা মিডফিল্ডার ডি ব্রুইন।
kevin de bruyne
ছবি: রয়টার্স

ম্যানচেস্টার সিটির মিডফিল্ডার কেভিন ডি ব্রুইনের দৃষ্টিতে লিওনেল মেসি সর্বকালের সেরা ফুটবলার। তবে জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে মেসি বার্সেলোনাতে থেকে যাওয়াতে কোনো আক্ষেপ নেই এই বেলজিয়ান তারকার।

৩৩ বছর বয়সী মেসি কিছুদিন আগে ক্লাব ছাড়তে চাওয়ার পর ম্যানসিটিকে তার সম্ভাব্য নতুন ঠিকানার দৌড়ে সবচেয়ে এগিয়ে রাখা হচ্ছিল। ধারণা করা হচ্ছিল, সাবেক গুরু পেপ গার্দিওলার সঙ্গে আবারও জুটি বাঁধতে যাচ্ছেন এই আর্জেন্টাইন মহাতারকা। কিন্তু রিলিজ ক্লজের গ্যাঁড়াকলে পড়ে ইচ্ছা থাকলেও শেষ পর্যন্ত তার আর ন্যু ক্যাম্প ছাড়া হয়নি।

মেসি ম্যানসিটিতে যোগ দিলে, নিঃসন্দেহে শক্তির বিচারে আরও অনেক এগিয়ে যেত শক্তিশালী ইংলিশ ক্লাবটি। কিন্তু কী ঘটতে পারত তা ভেবে কালক্ষেপণ করতে চান না সময়ের অন্যতম সেরা মিডফিল্ডার ডি ব্রুইন। ব্রিটিশ গণমাধ্যম দ্য ডেইলি মেইলকে তিনি বলেছেন, ‘আমার কোনো কিছু যায় আসে না। সত্যিই আমি মাথা ঘামাই না। যদি তিনি (সিটিতে) আসতেন, তাহলে আমাদের অনেক সুবিধা হতো। কারণ আমার মতে, তিনি সর্বকালের সেরা খেলোয়াড়।’

‘তবে কোন খেলোয়াড় আসতে পারত এবং কী ঘটতে পারত, সেসব নিয়ে আমি কখনোই ভাবি না।’

দলবদলের মৌসুমে নানা ধরনের গুঞ্জন চললেও সবসময় পছন্দের ফুটবলারকে দলে ভেড়াতে পারে না ক্লাবগুলো। এই চিরন্তন বাস্তবতা মেনে নিয়ে বর্তমানে সিটিজেনদের যে স্কোয়াড আছে, তার উপর আস্থা রাখছেন  ডি ব্রুইন, ‘আপনার দলে যেসব খেলোয়াড় থাকে, তাদের সঙ্গে আপনি খেলেন এবং এই বিবেচনায় আমি মনে করি, আমাদের একটি দুর্দান্ত দল আছে। কোনো নির্দিষ্ট একজন খেলোয়াড় এলে কী হতো তা অনুমান করা আমার মতে বোকামি হবে। ফুটবলে সবসময় এরকম ঘটে থাকে। অনেকের আসার সম্ভাবনা থাকে এবং শেষ পর্যন্ত তারা আসে না।’

মেসিকে স্পেন থেকে ইংল্যান্ডে নিয়ে যেতে বিপুল পরিমাণ অর্থ ব্যয় করতে হতো সিটি ফুটবল গ্রুপের মালিকানাধীন ম্যানসিটিকে। ট্রান্সফার ফি বাবদ এবং মেসির বার্ষিক বেতন-ভাতার জন্য। তবে সম্প্রতি ইংল্যান্ডের পেশাদার ফুটবলারদের অ্যাসোসিয়েশনের (পিএফএ) ২০১৯-২০ মৌসুমের বর্ষসেরা ফুটবলারের পুরস্কার জেতা ডি ব্রুইনের মতে, বিনিয়োগ করা অর্থ ন্যূনতম সময়ে ফেরত পেত সিটি।

২৯ বছর বয়সী তারকা যোগ করেছেন, ‘আপনি যদি নিজের দলে মেসিকে পান, তবে আপনি সবসময় সফলতা পাবেন। আমি এই খেলার এবং বিশেষত ক্লাবের দৃষ্টিকোণ থেকে বিষয়টিকে এভাবেই দেখছি।’

‘আর বাণিজ্যের দিক থেকে, (মেসি এলে) যে পরিমাণ স্পন্সর ও অর্থ আকর্ষণ করা যেত তার পরিমাণ হতো বিশাল। এমনকি, যদি আপনি তাকে প্রচুর পরিমাণ অর্থও দেন, তাহলে কোনো না কোনো উপায়ে আপনি আবার সব ফেরত পাবেন।’

Comments

The Daily Star  | English

Shipping cost keeps upward trend as Red Sea Crisis lingers

Shafiur Rahman, regional operations manager of G-Star in Bangladesh, needs to send 6,146 pieces of denim trousers weighing 4,404 kilogrammes from a Gazipur-based garment factory to Amsterdam of the Netherlands.

1h ago