ইব্রাকে ‘চ্যালেঞ্জ’ করার সাহস দেখিয়ে ‘ভুল’ করেছে করোনা!

এসি মিলান তারকা ইব্রা যেন পাত্তা দিচ্ছেন না এই বৈশ্বিক মহামারিকে!
zlatan ibrahimovic
ছবি: রয়টার্স

চাঁচাছোলা আর চোখ কপালে তুলে দেওয়া মন্তব্যের জন্য ব্যাপক পরিচিতি আছে জ্লাতান ইব্রাহিমোভিচের। নিজের মনোভাব প্রকাশে সুইডেনের এই অভিজ্ঞ স্ট্রাইকার বরাবরই দ্বিধাহীন। জীবনের কঠিন বিষয়গুলোকেও আর দশটা সাধারণ মানুষের চেয়ে ভিন্নভাবে দেখতে তার জুড়ি নেই। সে প্রমাণ মিলল আরও একবার। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবরটিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে ‘নিজস্ব ঢঙ’- এ জানিয়েছেন ইব্রা।

যুক্তরাষ্ট্রের জনস হপকিনস বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বশেষ তথ্য অনুসারে, গোটা বিশ্বে কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত হয়েছেন তিন কোটি ১৯ লাখ ৬৯ হাজার ৯৪০ জন এবং মারা গেছেন ৯ লাখ ৭৮ হাজার ৫৯ জন। অনেক দেশে নতুন করে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। কিন্তু আত্মবিশ্বাসে টইটুম্বুর এসি মিলান তারকা ইব্রা যেন পাত্তা দিচ্ছেন না এই বৈশ্বিক মহামারিকে!

৩৮ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড টুইট করেছেন, ‘গতকাল আমার কোভিড নেগেটিভ এসেছিল আর আজ পজিটিভ এসেছে। উপসর্গের লেশমাত্র নেই। কোভিডের কত্ত সাহস আমাকে চ্যালেঞ্জ করে। বিশাল ভুল।’

বৃহস্পতিবার রাতে উয়েফা ইউরোপা লিগের বাছাইপর্বের ম্যাচে নরওয়ের চ্যাম্পিয়ন বোডো গ্লিমেটের বিপক্ষে খেলতে নামবে ইতালিয়ান ক্লাবটি। তার আগে দ্বিতীয় দফা পরীক্ষায় কোভিড-১৯ পজিটিভ হয়েছেন ইব্রাহিমোভিচ। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি অবহিত করার পাশাপাশি তাৎক্ষণিকভাবে তাকে কোয়ারেন্টিনে পাঠিয়েছে মিলান। তিনি ছাড়া দলটির অন্যান্য খেলোয়াড় ও স্টাফদের পরীক্ষার ফল নেগেটিভ এসেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের মেজর সকার লিগ সকার (এমএলএস) থেকে গত মৌসুমের মাঝামাঝি সময়ে মিলানে যোগ দেওয়ার পর থেকে অসাধারণ ছন্দে আছেন ইব্রা। তার উপস্থিতিতে দলটিও আমূল বদলে গেছে। মৌসুমের শেষ ১২ ম্যাচে অপরাজিত ছিল তারা। নয়টিতে জয় পেয়ে ও তিনটিতে ড্র করে তারা জায়গা করে নেয় ইউরোপা লিগেও। আর মিলানের ঘুরে দাঁড়ানোয় মূল ভূমিকা রাখেন ১০ গোল করা ইব্রাহিমোভিচ।

নতুন মৌসুমেও ছেদ পড়েনি ছন্দে। ইব্রার জোড়া গোলেই সিরি আতে নিজেদের প্রথম ম্যাচে বোলোনিয়াকে ২-০ গোলে হারিয়ে শুভ সূচনা করেছে মিলান। হতে পারত হ্যাটট্রিকও। ওই ম্যাচ শেষে নিজের পারফরম্যান্স মূল্যায়ন করতে গিয়ে চমৎকার উপমা ব্যবহার করেছিলেন ইব্রা।

‘দ্য কিউরিয়াস কেস অব বেঞ্জামিন বাটন’- এর গল্পটা কম-বেশি সবাই জানেন। হলিউডের চলচ্চিত্রটির প্রধান চরিত্রে অভিনয় করা ব্র্যাড পিটের ক্ষেত্রে ঘড়ির কাঁটা উল্টো দিকে ঘুরতে থাকে। দিনে দিনে বয়স কমতে থাকে তার। নিজেকে বেঞ্জামিন বাটন দাবি করে ইব্রা বলেছিলেন, ‘আমি বেঞ্জামিন বাটনের মতো। বুড়ো হয়ে জন্মেছিলাম, মরব তরুণ হয়ে।’

Comments

The Daily Star  | English
Bangladesh Reference Institute for Chemical Measurements (BRiCM) developed a dengue rapid antigen kit

Diagnose dengue with ease at home

People who suspect that they have dengue may soon breathe a little easier as they will not have to take on the hassle of a hospital visit to confirm or dispel the fear.

10h ago