শঙ্কামুক্ত নন ট্রাম্প: চিকিৎসক

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জানিয়েছেন, তিনি এখন অনেকটাই ভালো আছেন। হোয়াইট হাউসের চিকিৎসক দলও জানিয়েছেন, ট্রাম্পের শারীরিক অবস্থা উন্নতির দিকেই। তবে, হোয়াইট হাউসের চিফ অব স্টাফ মার্ক মেডোস জানিয়েছেন, আগামী ৪৮ ঘণ্টা ট্রাম্পের জন্য খুব সংকটপূর্ণ।
হাসপাতাল থেকে টুইটে ভিডিও দিয়েছেন ট্রাম্প।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জানিয়েছেন, তিনি এখন অনেকটাই ভালো আছেন। হোয়াইট হাউসের চিকিৎসক দলও জানিয়েছেন, ট্রাম্পের শারীরিক অবস্থা উন্নতির দিকেই। তবে, হোয়াইট হাউসের চিফ অব স্টাফ মার্ক মেডোস জানিয়েছেন, আগামী ৪৮ ঘণ্টা ট্রাম্পের জন্য খুব সংকটপূর্ণ।

হাসপাতাল থেকেই শনিবার টুইটারে দেওয়া ভিডিওতে নিজের শারীরিক অবস্থা জানিয়েছেন ট্রাম্প। তিনি বলেন, ‘আমি যখন এখানে এসেছিলাম, তখন ভালো বোধ করছিলাম না। কিন্তু, এখন অনেকটাই ভালো বোধ করছি।’

ভিডিওতে ট্রাম্প আরও বলেন, ‘করোনাভাইরাস কিংবা আপনারা এটাকে যাই ডাকুন না কেন, আমরা এটাকে পরাজিত করতে যাচ্ছি।’ 

সিএনএন’র প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, হোয়াইট হাউসের চিকিৎসক দল প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের শারীরিক আপডেট জানিয়েছে। সর্বশেষ দেওয়া আপডেটে ট্রাম্পের ব্যক্তিগত চিকিৎসক নেভি কমান্ডার ডা. শন কনলি জানিয়েছেন, ট্রাম্পের শারীরিক অবস্থা ভালোর দিকে। করোনা শনাক্ত হওয়ার পর থেকে তার অবস্থা উন্নতির দিকেই।

হোয়াইট হাউস থেকে দেওয়া ওই মেমোতে কনলি আরও জানান, শনিবার ট্রাম্প রেমডেসিভিরের দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন। তিনি এখন জ্বরমুক্ত আছেন। তাকে অতিরিক্ত অক্সিজেন দেওয়া হচ্ছে। তবে, তিনি এখনো শঙ্কামুক্ত নন। চিকিৎসা দল তার ‍সুস্থতার বিষয়ে সতর্কতার সঙ্গে আশাবাদী।

রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ট্রাম্প ও হোয়াইট হাউসের চিকিৎসকরা ট্রাম্পে শারীরিক অবস্থা ইতিবাচক বললেও ভিন্ন কথা বলেছিলেন চিফ অব স্টাফ মার্ক মেডোস। গতকাল তিনি বলেন, ‘গত ২৪ ঘণ্টা প্রেসিডেন্টের লক্ষণ খুব উদ্বেগজনক ছিল। প্রেসিডেন্টের চিকিৎসার ওপর নির্ভর করে আগামী ৪৮ ঘণ্টা তার জন্য খুব সংকটপূর্ণ। আমরা এখনো তার সম্পূর্ণ সুস্থতার বিষয়ে পরিষ্কার না।’

প্রথমে নাম প্রকাশ না করার শর্তে এ কথা বললেও পরে অবশ্য ভিন্ন কথা বলেছেন মেডোস। পরে তিনি রয়টার্সকে জানিয়েছেন, ট্রাম্পের শারীরিক অবস্থা খুব উন্নতির দিকে।

মেডোস তার দেওয়া প্রথমের বক্তব্যের সঙ্গে দ্বিতীয় বক্তব্যের মিল না থাকার বিষয়টি পরিস্কার করেননি। তবে, নাম প্রকাশ না করার শর্তে ট্রাম্পের এক উপদেষ্টা রয়টার্সকে বলেন, মেডোসের প্রথম বক্তব্যের বিষয়টি জেনে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প খুশি হননি।

হালকা জ্বর নিয়ে শুক্রবার বিকেলে ট্রাম্পকে মেরিল্যান্ডে ওয়াল্টার রিড সামরিক হাসপাতালে নেওয়া হয়। হোয়াইট হাউসের লন থেকে পায়ে হেঁটেই প্রেসিডেন্সিয়াল হেলিকপ্টার মেরিন ওয়ানে ওঠেন তিনি।

হেলিকপ্টারে ওঠার আগে সাংবাদিকদের উদ্দেশে হাত নাড়েন ট্রাম্প। থাম্বস আপ প্রতীকও প্রদর্শন করেন। তবে, সে সময় তিনি কোনো কথা বলেননি।

হাসপাতাল থেকে করা প্রথম টুইটে তিনি বলেছিলেন,  ‘আমি মনে করি, আমি ভালো আছি। সবাইকে ধন্যবাদ। ভালোবাসা।’

তাকে হাসপাতালে নেওয়া বিষয়ে বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, করোনাভাইরাস শনাক্ত হওয়ার ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। হালকা জ্বর নিয়ে তিনি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

শুক্রবার টুইট করে ট্রাম্প নিজেই তার ও ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্পের করোনা পজিটিভি আসার তথ্য জানান। যদিও প্রথমে হোয়াইট হাউস থেকে জানানো হয়েছিল যে, করোনা থেকে সুস্থ হওয়ার এই সময়টাতে ট্রাম্প ও মেলানিয়া হোয়াইট হাউসে তাদের ঘরে থাকবেন বলেই পরিকল্পনা করেছেন। তবে, পরবর্তীতে ট্রাম্পকে হাসপাতালে নেওয়া হয়।

আরও পড়ুন:

জ্বর নিয়ে হাসপাতালে ট্রাম্প, জানালেন ‘ভালো আছি’

ট্রাম্পের করোনাবচন!

ট্রাম্প ও মেলানিয়ার করোনা পজিটিভ

ট্রাম্প ও মেলানিয়া কোয়ারেন্টিনে

অবশেষে ট্রাম্পের মুখে মাস্ক

মহামারি নিয়ে ট্রাম্পের যত কাণ্ড

‘চীনের ল্যাব থেকেই ছড়িয়েছে করোনা’, আত্মবিশ্বাসী ট্রাম্প

Comments

The Daily Star  | English

Met office issues second three-day heat alert

Bangladesh Meteorological Department (BMD) today issued a 3-day heat alert as the ongoing heatwave is expected to continue for the next 72 hours

1h ago