এমসি কলেজে ধর্ষণ: রিমান্ড শেষে আদালতে আরও ২ আসামি

সিলেটের মুরারিচাঁদ (এমসি) কলেজ ছাত্রাবাসে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনার আরও দুই আসামির পাঁচদিনের রিমান্ড শেষে আদালতে হাজির করা হয়েছে। আসামিরা হলেন— তারেকুল ইসলাম তারেক ও মাহফুজুর রহমান মাছুম।
রিমান্ড শেষে আসািমিকে আদালতে নেওয়া হচ্ছে। ছবি: স্টার

সিলেটের মুরারিচাঁদ (এমসি) কলেজ ছাত্রাবাসে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনার আরও দুই আসামির পাঁচদিনের রিমান্ড শেষে আদালতে হাজির করা হয়েছে। আসামিরা হলেন— তারেকুল ইসলাম তারেক ও মাহফুজুর রহমান মাছুম।

আজ রোববার দুপুরে তাদের সিলেট আদালত প্রাঙ্গণে নিয়ে আসেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও শাহপরাণ থানার পরিদর্শক ইন্দ্রনীল ভট্টাচার্য। পরে তাদেরকে সিলেট অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম জিয়াদুর রহমানের আদালতে হাজির করা হয় বলে দ্য ডেইলি স্টারকে নিশ্চিত করেন সিলেট মহানগর পুলিশের সহকারি কমিশনার (প্রসিকিউশন) অমূল্য ভূষণ চৌধুরী।

এর আগে, গতকাল এ মামলার তিন আসামি শাহ মাহবুবুর রহমান রনি, রাজন মিয়া ও মো. আইনুদ্দিন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

মামলার অপর তিন আসামি— প্রধান আসামি সাইফুর রহমান, অর্জুন লস্কর ও রবিউল ইসলামও শুক্রবার আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

গত ২৫ সেপ্টেম্বর রাত ৮টার দিকে এমসি কলেজের ফটকের সামনে বেড়াতে যাওয়া এক তরুণী ও তার স্বামীকে জোরপূর্বক কলেজের ছাত্রাবাসে নিয়ে স্বামীকে আটকে রেখে স্ত্রীকে ধর্ষণ করেন একদল তরুণ। এ ঘটনায় সেদিন রাতেই ভুক্তভোগীর স্বামী বাদী হয়ে সিলেটের শাহ পরান থানায় ছয় জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত তিন জনকে সহযোগী হিসেবে উল্লেখ করে একটি মামলা দায়ের করেন।

Comments