এমসি কলেজে ধর্ষণ: আদালতে আরও ২ আসামির স্বীকারোক্তি

সিলেটের মুরারিচাঁদ (এমসি) কলেজ ছাত্রাবাসে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনার আরও দুই আসামি দায় স্বীকার করে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।
পাঁচ দিনের রিমান্ড শেষে দুই আসামিকে সিলেট আদালতে নিয়ে আসেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা। ছবি: সংগৃহীত

সিলেটের মুরারিচাঁদ (এমসি) কলেজ ছাত্রাবাসে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনার আরও দুই আসামি দায় স্বীকার করে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

আসামিরা হলেন—তারেকুল ইসলাম তারেক এবং মাহফুজুর রহমান মাছুম। 

আজ রোববার দুপুরে তাদের পাঁচদিনের রিমান্ড শেষে তাদের সিলেট আদালত প্রাঙ্গণে নিয়ে আসেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও শাহপরান থানার পরিদর্শক ইন্দ্রনীল ভট্টাচার্য।

এই দুইজনের স্বীকারোক্তিতে এ মামলায় গ্রেপ্তার হওয়া আট আসামির সবারই স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি গ্রহণ শেষ হয়েছে।

পরে তাদের সিলেট অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম জিয়াদুর রহমানের আদালতে হাজির করা হলে তারা স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেন বলে গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেন সিলেট মহানগর পুলিশের সহকারী কমিশনার (প্রসিকিউশন) অমূল্য ভূষণ চৌধুরী।

এর আগে গতকাল শনিবার এ মামলার তিন আসামি শাহ মাহবুবুর রহমান রনি, রাজন মিয়া ও মো. আইনুদ্দিন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

মামলার অপর তিন আসামি সাইফুর রহমান, অর্জুন লস্কর এবং রবিউল ইসলামও শুক্রবার আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

গত ২৫ সেপ্টেম্বর রাত ৮টার দিকে কলেজের ফটকের সামনে বেড়াতে যাওয়া এক তরুণী ও তার স্বামীকে জোরপূর্বক কলেজের ছাত্রাবাসে নিয়ে স্বামীকে আটকে রেখে স্ত্রীকে ধর্ষণ করেন একদল তরুণ।

এ ঘটনায় সেদিন রাতেই ভুক্তভোগীর স্বামী বাদী হয়ে সিলেটের শাহ পরান থানায় ছয় জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত তিন জনকে সহযোগী হিসেবে উল্লেখ করে একটি মামলা দায়ের করেন।

আরও পড়ুন:

এমসি কলেজে ধর্ষণ: রিমান্ড শেষে আদালতে আরও ২ আসামি

Comments

The Daily Star  | English
biman flyers

Biman does a 180 to buy Airbus planes

In January this year, Biman found that it would be making massive losses if it bought two Airbus A350 planes.

4h ago