'এখনও একসঙ্গে আছেন' রোনালদো ও রামোস

ঘটনার সূত্রপাত লুকা মদ্রিচের ব্যালন ডি'অর নিয়ে। ২০১৮ সালে সেবার এ পুরষ্কারের অন্যতম দাবিদার ছিলেন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোও। মদ্রিচকে শুভেচ্ছা জানালেও নির্বাচন প্রক্রিয়ার দুর্নীতি করা হয়েছে বলেই মন্তব্য করেছিলেন এ পর্তুগিজ। বিষয়টি ভালো লাগেনি রিয়াল অধিনায়ক সের্জিও রামোসের। রোনালদোকে পরে এ নিয়ে খোঁচা মেরেছিলেন তিনি। তখন থেকে মুখ দেখাদেখি তো বটেই কথা বলাই বন্ধ ছিল দুই তারকার।
ছবি: টুইটার

ঘটনার সূত্রপাত লুকা মদ্রিচের ব্যালন ডি'অর নিয়ে। ২০১৮ সালে সেবার এ পুরষ্কারের অন্যতম দাবিদার ছিলেন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোও। মদ্রিচকে শুভেচ্ছা জানালেও নির্বাচন প্রক্রিয়ার দুর্নীতি করা হয়েছে বলেই মন্তব্য করেছিলেন এ পর্তুগিজ। বিষয়টি ভালো লাগেনি রিয়াল অধিনায়ক সের্জিও রামোসের। রোনালদোকে পরে এ নিয়ে খোঁচা মেরেছিলেন তিনি। তখন থেকে মুখ দেখাদেখি তো বটেই কথা বলাই বন্ধ ছিল দুই তারকার।

ঘটনাচক্রে দুই বছর পর জাতীয় দলের হয়ে খেলায় ফের মুখোমুখি সাবেক দুই সতীর্থ। একসময় দুইজন ভালো বন্ধুও ছিলেন। এবার দুই তারকা কী করেন তা জানার অপেক্ষায় ছিলেন ভক্ত-সমর্থকরা। তবে প্রত্যাশার চেয়েও বেশি পেয়েছেন তারা। দুই তারকা ফের কথা তো বলেছেনই। এমনকি একসঙ্গে ছবি তুলে সামাজিক মাধ্যমে আপলোডও করেছেন।

শুধু তাই নয়, লম্বা সময় পর দেখা করার দিনে বন্ধু রোনালদোর সঙ্গে জার্সিও বদল করেন রামোস। রোনালদোর কাছ থেকে জার্সি নেওয়ার সময় সে ছবি তোলেন তারা। সঙ্গে ছিলেন আরেক সাবেক সতীর্থ পেপেও। রিয়ালের জার্সিতে ১০ বছর খেলার পর ২০১৭ সালে বেসিকতাসের যোগ দেন তিনি। আর সে ছবিই রামোস আপলোড করেন সামাজিক মাধ্যমে।

ছবিতে দেখা যায় রোনালদোর জার্সিটি ধরেছেন রামোস। আর তিন তারকা একে অপরের কাঁধে হাত রেখেছেন। আর সে ছবির ক্যাপশনে রামোস লিখেছেন, 'আমরা এখনও একসঙ্গে আছি... এবং আরও অনেক কিছু আসছে। ক্রিস্তিয়ানো ও পেপে, তোমাদের দেখে খুব ভালো লাগলো।'

উল্লেখ্য, বুধবার রাতে পর্তুগালের রাজধানী লিসবনের এস্তাদিও জোসে আলভালাদেতে গোলশূন্য ড্র হয়েছে স্পেন ও পর্তুগালের ম্যাচটি। 

Comments

The Daily Star  | English
Flight operations disrupted at Dhaka airport

Cyclone Remal: Biman suspends all Cox's Bazar-bound flights today

National carrier Biman Bangladesh Airlines announced the suspension of its flights to Cox's Bazar for today due to Cyclonic storm Remal

23m ago