এখন আমি গোল করার দিকে কম মনোযোগী: মেসি

নিজের ভূমিকা অনেকটাই বদলে ফেলেছেন রেকর্ড ছয় বারের ব্যালন ডি'অর জয়ী এ তারকা।
messi
ছবি: রয়টার্স

বার্সেলোনার হয়ে চলতি মৌসুমে এখন পর্যন্ত তিনটি ম্যাচ খেলেছেন, আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের হয়ে দুটি। কিন্তু পর্যন্ত মাত্র দুটি গোল করতে সমর্থ হয়েছেন। সে দুটিও এসেছে আবার স্পটকিক থেকে। গোল করার ক্ষেত্রে আগের মতো মরিয়া হয়ে খেলতে দেখা যায়নি তাকে। অথচ মাঠে তার পারফরম্যান্স ছিল অনন্য। আর তার কারণও জানিয়েছেন এ আর্জেন্টাইন তারকা। নিজের ভূমিকা অনেকটাই বদলে ফেলেছেন রেকর্ড ছয় বারের ব্যালন ডি'অর জয়ী এ তারকা।

মূলত গত মৌসুম থেকেই নিজেকে বদলে ফেলেছেন মেসি। গোল করার চেয়ে গোল তৈরি করে দেওয়ার মনোযোগী তিনি। গত মৌসুমে বার্সার হয়ে ২১টি গোলে সহায়তা করে জাভির রেকর্ড ছুঁয়েছেন। এবারও সেই আদলেই খেলছেন তিনি। সম্প্রতি আর্জেন্টাইন ম্যাগাজিন লা গাজেত্তা পদেরোজাকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে মেসি বলেছেন, 'এখন আমি গোল করার ক্ষেত্রে কম মনোযোগী। আমি আমার দলের জন্য সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করি।'

বর্তমানে ব্যক্তিগত লক্ষ্যের চেয়ে এখন দলীয় লক্ষ্য পূরণের জন্য চেষ্টা করেন বলে জানান মেসি। বার্সেলোনার ইতিহাসের সর্বোচ্চ গোলদাতা ৭৩৪ ম্যাচে এখন পর্যন্ত গোল করেছেন ৬৩৫টি। ১৬ বছরের বার্সেলোনা ক্যারিয়ারের গোল তৈরি করে দেওয়ায় ভূমিকা রেখেছেন ২৫৬ বার।

এদিকে অতিমারি করোনাভাইরাসের এ সময়ে নিজেকে সাধারণ মানুষদের সহযোগিতায় ব্যস্ত রেখেছেন মেসি। নিজের পক্ষ থেকে অনেকবারই সাহায্য সহযোগিতা করেছেন। এছাড়া অন্য যারা এগিয়ে এসেছেন তাদের অবদানেও দারুণ গর্বিত এ তারকা, 'আর্জেন্টিনায় এখন ডাইনিং রুম এবং পিকনিক অঞ্চলে লোকেরা যেভাবে জড়িত হচ্ছে এবং সহযোগিতা করছে তা দেখে আমাদের প্রচুর গর্ব হয়, বিশেষত আমরা যখন কঠিন সময় কাটিয়ে যাচ্ছি।'

সংকট কাটিয়ে না ওঠা পর্যন্ত সবাইকে একত্রিত হয়ে সবসময় সব ধরণের সহযোগিতা অব্যাহত রাখার আহ্বান জানান মেসি, 'এই মহামারিতে আমাদের অবশ্যই পানি, খাদ্য এবং বিদ্যুতের মতো সমস্ত মৌলিক প্রয়োজনীয়তা বজায় রাখতে হবে... বৈষম্য আমাদের সমাজের বৃহত্তম একটি সমস্যা এবং এটি সমাধানের জন্য আমাদের সকলকে একত্রিত হয়ে কাজ করা উচিত।'

গত মৌসুমে বার্সেলোনার হয়ে কোনো শিরোপা জিততে পারেননি মেসি। তবে এবার সাধারণ মানুষদের জন্য শিরোপা জিততে মরিয়া তিনি, 'এই বছর যে শিরোপাগুলো তুলে ধরতে পারব সেগুলো সেই সমস্ত লোকদের জন্য যারা নানাভাবে সাহায্য করার জন্য এগিয়ে এসেছে।'

Comments

The Daily Star  | English

Govt primary schools asked to suspend daily assemblies

The government has directed to suspend daily assemblies at all its primary schools across the country until further notice

33m ago