শীর্ষ খবর

ঢাকা-নোয়াখালী ধর্ষণবিরোধী লংমার্চ: নারায়ণগঞ্জে সমাবেশ ও মিছিল

ধর্ষণ ও নিপীড়নের বিরুদ্ধে দেশব্যাপী গণজাগরণ তৈরি ও নয় দফা দাবিতে ঢাকা থেকে নোয়াখালীমুখী ‘লংমার্চ’ নারায়ণগঞ্জ শহরে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করেছে।
ধর্ষণবিরোধী লংমার্চটি নারায়ণগঞ্জে পৌঁছে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে। ছবি: স্টার

ধর্ষণ ও নিপীড়নের বিরুদ্ধে দেশব্যাপী গণজাগরণ তৈরি ও নয় দফা দাবিতে ঢাকা থেকে নোয়াখালীমুখী ‘লংমার্চ’ নারায়ণগঞ্জ শহরে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করেছে।

আজ শুক্রবার বিকেলে শহরের চাষাঢ়ায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ওই সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

ছবি: স্টার

এর আগে তারা ‘ধর্ষণ ও বিচারহীনতার বিরুদ্ধে ঢাকা থেকে নোয়াখালী লংমার্চ’ ব্যানারে শহরে মিছিল করেন। মিছিলটি চাষাঢ়া থেকে বঙ্গবন্ধু সড়ক হয়ে দুই নং রেল গেইট এলাকা ঘুরে চাষাঢ়া শহীদ মিনারে এসে শেষ হয়।

সমাবেশে ছাত্র ইউনিয়ন কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক অনিক রায় বলেন, ‘আমরা এমন একটি দেশে বাস করছি। যে দেশে আন্দোলন যখন হয় তখন সরকার কোনো না কোনো মুলা সামনে নিয়ে আসে। যে দেশে ১০০টি ধর্ষণের ঘটনা ফাইল হলে বিচার হয় তিনটি। সেখানে আমাদের সরকার একটি মুলা ঝুলিয়ে দিল, ফাঁসির মুলা। ফাঁসির মুলা সামনে দিয়ে আমাদের আন্দোলন দমন করতে চায়।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের উপর পুলিশ দিয়ে আঘাত করা হচ্ছে। আমরা যারা আন্দোলন করছি তাদেরকে গালিগালাজ করা হয়েছে। নানাভাবে হুমকি দেওয়া হয়েছে। আমরা বলতে চাই, যদি এই লংমার্চে কোনো রকম আঘাত হানা হয় তাহলে দ্বিগুণ জোরে তা ফেরত দেওয়া হবে। ব্যর্থ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পদত্যাগের আগ পর্যন্ত আমাদের লড়াই চলবে। পুলিশ যদি লাঠি দিয়ে মারতে আসে, আমরা বাংলাদেশের পতাকা হাতে নিয়ে বুক উচিয়ে দাঁড়াবো।’

ছবি: স্টার

ছাত্র ইউনিয়ন নারায়ণগঞ্জ জেলার সভাপতি শুভ বণিকের সভাপতিত্বে সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন- বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশন কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি গোলাম মোস্তফা, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক নাসিরুদ্দিন প্রিন্স, যুব ইউনিয়ন কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক খান আসাদুজ্জামান মাসুম, উদীচী কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক জামসেদ আনোয়ার তপনসহ শতাধিক আন্দোলনকারী।

জানা যায়, লংমার্চটি শাহবাগ, গুলিস্তান হয়ে নারায়ণগঞ্জের চাষাঢ়ায় আসে। তারপর তারা সোনারগাঁও যায়। সেখান থেকে কুমিল্লার পথে রওনা দেয়। কুমিল্লা শহরে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করার পর লংমার্চ যাবে ফেনীতে। শনিবার ফেনী শহরে সমাবেশ শেষে দাগনভুঞা, নোয়াখালীর চৌমুহনী হয়ে যাবে বেগমগঞ্জের একলাশপুর। শনিবার বিকালে সেখান থেকে মাইজদী কোর্ট। সেখানে সমাবেশের মধ্যে দিয়ে শেষ হবে লংমার্চ।

Comments

The Daily Star  | English

Cyclone Remal likely to hit Bangladesh coast by Sunday evening

Maritime ports asked to maintain local cautionary signal no one

2h ago