‘তারা ভরা রাতে’ সুর করেই কাঁদতে শুরু করেন আইয়ুব বাচ্চু

রক লিজেন্ড আইয়ুব বাচ্চুর দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী আজ। ২০১৮ সালের ১৮ অক্টোবর পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করেন তিনি।
আইয়ুব বাচ্চু। ছবি: সংগৃহীত

রক লিজেন্ড আইয়ুব বাচ্চুর দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী আজ। ২০১৮ সালের ১৮ অক্টোবর পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করেন তিনি।

‘সে তারা ভরা রাতে

আমি পারিনি বোঝাত

তোমাকে আমার মনের ব্যথা!

তুমি তো বলেছো শুধু

তোমার সুখের কথা।’

মৃত্যুর দুবছর পরে জানা গেলো তার বিখ্যাত সৃষ্টি ‘সে তারা ভরা রাতে’ গানের জন্ম কথা। এই গানটির গীতিকবি সালাউদ্দিন সজল  দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘অনেকেই জানেন না এই গানের অজানা ইতিহাস। গানটি ১৯৮৭ সালের এক রাতে পুরোটা সুর হয়ে যায়, সে রাতে আমিসহ আরও কয়েকজন বাচ্চু ভাইয়ের বাসায় ছিলাম। গানটির সুর হওয়ার পর পুরো গান গিটার বাজিয়ে গাইছিলেন আর নিজেই কাঁদছিলেন। তার সঙ্গে আমারাও কাঁদছিলাম। কিন্তু, কেন কাঁদছিলাম সে কারণ আমি, বাচ্চু ভাই কেউ কখনো শেয়ার করিনি। তা এখনো অব্যক্ত আছে। ‘আজো হলো না বলা সে না বলা কথ’ গানটি প্রথমে আলম আরা মিনুর কণ্ঠে প্রকাশ পায়। পরে বাচ্চু ভাই গেয়েছিলেন। আমাকে বলা বাচ্চু ভাইয়ের শেষ কথা ছিলো, ‘তুই কষ্টগুলো লিখে লিখে জমা,আমি কষ্ট সুরে সুরে সাজাচ্ছি।’

এ ছাড়া, আইয়ুব বাচ্চুর একজন ভক্ত শামসুল হক রিপন তার ফেসবুক পোস্টে গানটি নিয়ে লিখেছেন, ‘একবার এক কনসার্টে আইয়ুব বাচ্চুর ‘সে তারা ভরা রাতে’ গানটি শুনছি। গান শুনতে শুনতে এক ছেলে কী যে কান্না শুরু করলো, তখন তাকে বললাম, আপনার কি হয়েছে ছেলেটি বলল, তার প্রেমিকা ছেড়ে চলে গেছে, তাই গান শুনে তার আরও কষ্ট পাচ্ছে। আসলে আইয়ুব বাচ্চু গান দিয়ে সবার মনে বসবাস করছেন।’

Comments

The Daily Star  | English

Freedom declines, prosperity rises in Bangladesh

Bangladesh’s ranking of 141 out of 164 on the Freedom Index places it within the "mostly unfree" category

2h ago