ডেডিকেটেড লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং রিসার্চ সেন্টার গড়ে তোলার নির্দেশ

হালকা প্রকৌশল শিল্পখাতের উন্নয়নে একটি ডেডিকেটেড লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং রিসার্চ সেন্টার গড়ে তোলার নির্দেশনা দিয়েছেন শিল্প সচিব কে এম আলী আজম। তিনি বলেন, শিল্প মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন বাংলাদেশ শিল্প কারিগরি সহায়তা কেন্দ্র (বিটাক) এ গবেষণা কেন্দ্র গড়ে তুলবে। এতে মেধাবী জনবল নিয়োগের পাশাপাশি উন্নত প্রযুক্তি সন্নিবেশ ঘটাতে হবে।

হালকা প্রকৌশল শিল্পখাতের উন্নয়নে একটি ডেডিকেটেড লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং রিসার্চ সেন্টার গড়ে তোলার নির্দেশনা দিয়েছেন শিল্প সচিব কে এম আলী আজম। তিনি বলেন, শিল্প মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন বাংলাদেশ শিল্প কারিগরি সহায়তা কেন্দ্র (বিটাক) এ গবেষণা কেন্দ্র গড়ে তুলবে। এতে মেধাবী জনবল নিয়োগের পাশাপাশি উন্নত প্রযুক্তি সন্নিবেশ ঘটাতে হবে।

লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং বিকাশে শিল্প মন্ত্রণালয় চিহ্নিত সুপারিশের বাস্তবায়ন অগ্রগতি পর্যালোচনা সংক্রান্ত এক আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় সভাপতিত্বকালে শিল্প সচিব এ নির্দেশনা দেন। শিল্প মন্ত্রণালয়ে অনুষ্ঠিত এই সভায় মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. হেলাল উদ্দিন এনডিসি হালকা প্রকৌশল শিল্পখাত বিকাশে প্রণীত সুপারিশের বাস্তবায়ন অগ্রগতি তুলে ধরেন।

এ সময় এসএমই ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. সফিকুল ইসলাম, বিসিক চেয়ারম্যান মো. মোশতাক হাসান এনডিসি, বিটাক মহাপরিচালক আনোয়ার হোসেন চৌধুরী, শিল্প মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব বেগম পরাগ ও মোহা. সেলিম উদ্দিন, বাংলাদেশ লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং শিল্প মালিক সমিতির সভাপতি মো. আব্দুর রাজ্জাক, শিল্প, বাণিজ্য, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ, জাতীয় রাজস্ব বোর্ড, বাংলাদেশ ব্যাংক, এফবিসিসিআইসহ কমিটি সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় জানানো হয়, সম্ভাবনাময় এলাকা চিহ্নিত করে বিসিক ইতোমধ্যে ডেডিকেটেড লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং শিল্প পার্ক স্থাপনের কাজ শুরু করেছে। পাশাপাশি সংস্থাটির বাস্তবায়নাধীন অন্য শিল্প পার্কেও হালকা প্রকৌশল শিল্প উদ্যোক্তাদের জন্য জায়গা বরাদ্দ দেওয়া হবে। কেমিক্যাল শিল্পের জন্য নির্মাণাধীন মুন্সিগঞ্জ বিসিক শিল্প নগরী এবং নরসিংদীর নতুন বিসিক শিল্প নগরীতে লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং শিল্প উদ্যোক্তাদের জন্য ১০০ একর করে জমি বরাদ্দ দেওয়া হবে। এছাড়া, নরসিংদীতে বর্তমানে নির্মাণাধীন বিসিক শিল্প নগরীতে আরও ১০ একর জমি হালকা প্রকৌশল উদ্যোক্তাদের বরাদ্দ দেওয়া হবে বলে সভায় জানানো হয়।    

সভাপতির বক্তব্যে শিল্প সচিব বলেন, হালকা প্রকৌশল এ মুহূর্তে বাংলাদেশের সবচেয়ে সম্ভাবনাময় শিল্পখাত। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চলতি বছর হালকা প্রকৌশল শিল্পকে ‘প্রোডাক্ট অব দ্যা ইয়ার’ ঘোষণা করায় এ শিল্পের গুরুত্ব অনেক বেড়েছে। শিল্পোন্নত বাংলাদেশের লক্ষ্য অর্জনে এ শিল্পখাতের পরিকল্পিত উন্নয়ন ঘটাতে হবে। এ লক্ষ্যে ডেডিকেটেড শিল্প পার্ক ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলার পাশাপাশি উন্নত প্রশিক্ষণ সুবিধা বাড়াতে হবে।

তিনি দেশিয় হালকা প্রকৌশল পণ্যের বিপণন জোরদারে  অভ্যন্তরীণ বাজারের পাশাপাশি আন্তর্জাতিক বাজার লিংকেজ শক্তিশালী করার পরামর্শ দেন।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশে লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং পণ্যের বর্তমান বাজার প্রায় ৩০ হাজার কোটি টাকা। এর মধ্যে ৯ হাজার কোটি টাকার পণ্য দেশে উৎপাদিত হয়। বাকি পণ্য বিদেশ থেকে আমদানি করতে হয়। বিশ্ববাজারে হালকা প্রকৌশল পণ্যের চাহিদা ৭ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলার। এর মধ্যে বাংলাদেশ ৩৪৯ মিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যের পণ্য রপ্তানি করছে।

Comments

The Daily Star  | English
Spend money on poverty alleviation than on arms

Spend money on poverty alleviation than on arms

PM urges global leaders at an event to mark the International Day of United Nations Peacekeepers 2024

2h ago