বার্সার মাঠে এসে দুর্দান্ত ম্যাচ জিতল রিয়াল

ন্যু ক্যাম্পে এসে মৌসুমের প্রথম এল ক্লাসিকোতে তাই জিনেদিন জিদানের শিষ্যরা তুলে নিল অসাধারণ এক জয়।
Real Madrid
ছবি: রয়টার্স

রোমাঞ্চে ভরপুর প্রথমার্ধে শুরুতেই এগিয়ে গিয়েছিল রিয়াল মাদ্রিদ। গোলের রেশ থাকতেই সমতায় ফিরে আসে বার্সেলোনা। পরে আক্রমণ-প্রতি আক্রমণে জমে ওঠে ম্যাচ। দুদলই পায় অনেক সুযোগ, হাতছাড়াও হয় সেসব। বিরতির পর আক্রমণে প্রভাব বিস্তার করেছিল বার্সা। কিন্তু ধারার বিপরীতে এগিয়ে যায় রিয়াল। শেষ দিকে আরও ক্ষিপ্র হয়ে তারা আদায় করে নেয় আরেক গোল। শনিবার ন্যু ক্যাম্পে এসে লা লিগার প্রথম এল ক্লাসিকোতে তাই জিনেদিন জিদানের শিষ্যরা তুলে নেয় অসাধারণ এক জয়।

স্কোর লাইন

রিয়াল মাদ্রিদ ৩-১ বার্সেলোনা

গোলদাতা

রিয়াল- [ফেদেরিকো ভালভার্দে (৫), সার্জিও রামোস (৬৩, পেনাল্টি), লুকা মদ্রিচ (৯০)]

বার্সা- [আনসু ফাতি (৮)]

যেভাবে এলো গোল

করিম বেনজেমার দারুণ পাস পেয়ে পঞ্চম মিনিটেই গোল করেন ভালভার্দে। তিন মিনিট পরই গোল শোধ করে দেয় বার্সেলোনা। জর্দি আলবার মাইনাস থেকে ফাঁকায় বল পেয়ে জালে জড়িয়ে দেন ১৭ বছরের ফাতি।

বিরতির পর আক্রমণের ধার ছিল বার্সেলোনারই বেশি। নিশ্চিত দুটো গোলের সুযোগও হারায় তারা। কিন্তু স্রোতের বিপরীতে গোল পেয়ে যায় রিয়াল। ৬১তম মিনিটে বক্সের ভেতর রামোসের জার্সি টেনে ধরেন ক্লেমোঁ লংলে। ভিএআরের সহায়তায় পেনাল্টি পেয়ে নিঁখুত শটে দলকে এগিয়ে নেন রিয়াল অধিনায়কই।

৯০তম মিনিটে আসে তৃতীয় গোল। ভিনিসিয়ুস জুনিয়রের বল ঠেকাতে গিয়ে বেরিয়ে এসেছিলেন বার্সা গোলরক্ষক নেতো। তা হাতে জমাতে না পারলে বল যায় মদ্রিচের পায়ে। বিরতির পর ভালভার্দের বদলি নামা এই মিডফিল্ডার চমৎকার ফিনিশিংয়ে দলের জয় নিশ্চিত করে দেন।

যেসব সুযোগ হাতছাড়া

১৯তম মিনিটে লিওনেল মেসির শট সোজা যায় রিয়াল গোলরক্ষক থিবো কোর্তোয়ার হাতে। ২২তম মিনিটে টনি ক্রুসের কর্নার থেকে দুবার সুযোগ তৈরি হলেও কাজে লাগাতে পারেনি সফরকারীরা। পাল্টা আক্রমণে গোলের সুযোগ এসেছিল বার্সার সামনে। মেসি একজনকে কাটিয়ে গোলরক্ষককে একা পেয়েছিলেন। কিন্তু কোর্তোয়া হতাশ করেন তাকে।

আক্রমণ সামলে মুহূর্তেই প্রতি আক্রমণে যায় রিয়ালও। গোলরক্ষককে ওয়ান টু ওয়ান পরিস্থিতিতে পেয়েও বেনজেমা তার হাতেই জমা করেন বল।

৩৫তম মিনিটে মার্কো আসেনসিও অসাধারণ দৌড়ে এনেছিলেন সুযোগ। বক্সের মধ্যে বল পেয়ে কাসেমিরো বার্সার রক্ষণ দেয়াল আলগা করতে পারেননি।

রোমাঞ্চকর প্রথমার্ধের পর দারুণ গোলের সুযোগ পেয়েছিল বার্সেলোনা। ৫১তম মিনিটে রামোসকে পরাস্ত করেও ফাতি পাননি গোল। তার মাটিতে থাকা শট যায় বার ঘেঁষে। 

দুই মিনিট পর আরেকটি বড় সুযোগ হাতছাড়া হয় বার্সার। এবার ফাতির মাপা ক্রস মাথায় পেয়েছিলেন ফিলিপ কৌতিনহো। কিন্তু তার হেডও অল্পের জন্য লক্ষ্যে থাকেনি।

৭০তম মিনিটে মেসি এনে দিয়েছিলেন আরেক সুযোগ। তার কাছ থেকে বল পেয়ে আলবা ক্রস পাঠান বক্সে। জটলার মধ্যে তা থেকে গোল আসেনি। বার্সেলোনার হ্যান্ডবলের আবেদনও নাকচ হয়ে যায়।

৭৬তম মিনিটে মেসির সেট-পিস বক্স থেকে ফিরিয়ে বিপদ এড়ান রাফায়েল ভারানে। ৮৯তম মিনিটে ভালো সুযোগ পেয়েও শট বাইরে মারেন স্বাগতিকদের উসমান দেম্বেলে। 

অবিশ্বাস্য সেভ

৮৫তম মিনিটে ক্রুসের শট নিশ্চিত গোলের হাত থেকে বিস্ময়করভাবে বাঁচিয়ে দেন নেতো। ফিরতি শটও আটকে যায় তার বাধায়। পরের মিনিটে রামোসের নেওয়া শটও যাচ্ছিল গোলের দিকেই। পা দিয়ে তাও আটকান ব্রাজিলিয়ান এই গোলরক্ষক।

পয়েন্ট টেবিলের অবস্থা

৬ ম্যাচে ৪ জয়ে ১৩ পয়েন্টে নিয়ে টেবিলের শীর্ষে উঠে গেছে লা লিগার বর্তমান চ্যাম্পিয়ন রিয়াল। ৫ ম্যাচে মাত্র ৭ পয়েন্ট নিয়ে ১০ নম্বরে আছে বার্সেলোনা।

Comments

The Daily Star  | English

Sajek accident: Death toll rises to 9

The death toll in the truck accident in Rangamati's Sajek increased to nine tonight

1h ago