কৃষ্ণাঙ্গদের ভোটকেন্দ্রে আনতে মরিয়া বাইডেন-কমলা

করোনা মহামারিতে যুক্তরাষ্ট্রে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকায় রয়েছে কৃষ্ণাঙ্গ জনগোষ্ঠী। এমন পরিস্থিতিতে তাদেরকে স্বশরীরে ভোটকেন্দ্রে আনার জন্যে আগ্রাণ চেষ্টা করছেন ডেমোক্রেট প্রার্থী জো বাইডেন ও তার রানিংমেট কমলা হ্যারিস।
Joe Biden
ফিলাডেলফিয়ায় ‘সোলস টু দ্য পোলস’ অনুষ্ঠানে প্রেসিডেন্ট প্রার্থী জো বাইডেন। ছবি: এপি

করোনা মহামারিতে যুক্তরাষ্ট্রে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকায় রয়েছে কৃষ্ণাঙ্গ জনগোষ্ঠী। এমন পরিস্থিতিতে তাদেরকে স্বশরীরে ভোটকেন্দ্রে আনার জন্যে আগ্রাণ চেষ্টা করছেন ডেমোক্রেট প্রার্থী জো বাইডেন ও তার রানিংমেট কমলা হ্যারিস।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলোর প্রতিবেদনে বলা হয়, ৩ নভেম্বর যুক্তরাষ্ট্রে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে কৃষ্ণাঙ্গদের ব্যাপক সংখ্যায় ভোটকেন্দ্রে আনতে পারলে তা বাইডেনের জয়ের সম্ভাবনাকে উজ্জ্বল করবে বলে মনে করা হচ্ছে।

গতকাল রোববার ফিলাডেলফিয়ায় প্রচারণার কাজে দীর্ঘ সময় কাটান বাইডেন। সেখানে ‘সোলস টু দ্য পোলস’ অনুষ্ঠানে যোগ দেন তিনি। এই অনুষ্ঠানের মাধ্যমে আমেরিকাজুড়ে ছড়িয়ে থাকা গির্জাভক্ত কৃষ্ণাঙ্গদের ভোটকেন্দ্রে যেতে উৎসাহিত করা হচ্ছে।

অনুষ্ঠানে বাইডেন বলেন, ‘প্রতিদিনই আমরা দেখছি যে করোনার চিকিৎসা নিয়েও বর্ণবৈষম্যের শিকার হতে হচ্ছে অনেককে।’ তিনি আরও বলেন, ‘করোনা মোকাবিলায় ট্রাম্প যা করেছে তা “নিতান্তই অপরাধ”। এই মহামারিতে কৃষ্ণাঙ্গদের গণহারে জীবন দিতে হয়েছে।’

একইভাবে গতকাল বাইডেনের রানিংমেট সিনেটর কমলা হ্যারিস প্রচারণা চালান দীর্ঘদিন থেকে প্রতিদ্বন্দ্বী রিপাবলিকানদের ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত জর্জিয়া রাজ্যে।

ডেমোক্রেটরা বিশ্বাস করেন যদি কৃষ্ণাঙ্গদের ব্যাপক সংখ্যায় ভোটকেন্দ্রে আনা যায় তাহলে সেখানকার ভোটচিত্র পাল্টে যেতে পারে।

কমলা তার বক্তব্যে মানবাধিকার আন্দোলনের কিংবদন্তি নেতা জন লুইয়ের কথা স্মরণ করে বিভিন্ন বর্ণের ভোটারদের উৎসাহ দিয়ে বলেন, ‘আসুন আমরা আমাদের পূর্বপূরুষদের শ্রদ্ধা জানাই’।

আরও পড়ুন:

‘এগিয়ে থাকার আভাস পেলেই নিজেকে জয়ী ঘোষণার পরিকল্পনা ট্রাম্পের’

‘নারীদের ভোটেই নির্ধারিত হয় কে যাবেন হোয়াইট হাউসে’

Comments

The Daily Star  | English

5.5 magnitude earthquake jolts Dhaka, Ctg, Sylhet

A magnitude 5.5 earthquake jolted Dhaka, Sylhet, Chattogram and some other parts of the country this evening.

32m ago