আন্তর্জাতিক

ভাগ্য নির্ধারণে পেনসিলভেনিয়া, নেভাদা, জর্জিয়া, উত্তর ক্যারোলিনা ও আলাস্কা

যুক্তরাষ্ট্রের এবারের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের চূড়ান্ত ফলাফল নির্ধারণে আর কয়েকটি মাত্র রাজ্যে অল্প কিছু ভোট গণনা বাকি। সেগুলোতেও চলছে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই।
ছবি: রয়টার্স

যুক্তরাষ্ট্রের এবারের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের চূড়ান্ত ফলাফল নির্ধারণে আর কয়েকটি মাত্র রাজ্যে অল্প কিছু ভোট গণনা বাকি। সেগুলোতেও চলছে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই।

এএফপি জানায়, মিশিগান ও উইসকনসিন নিয়ে এ পর্যন্ত ২৬৪টি ইলেক্টোরাল ভোট পাওয়া ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেনের বিজয়ে একাধিক পথ খোলা থাকলেও, ২১৪টি ভোট পাওয়া বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে ভোট গণনা বাকি থাকা রাজ্যের প্রায় সবগুলোতেই জিততে হবে।

যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট পদে জয়ের জন্য প্রার্থীকে অন্তত ২৭০টি ইলেক্টোরাল ভোট পেতে হয়। ভোট গণনা বাকি থাকা পাঁচ রাজ্যে জনসংখ্যার অনুপাতে বিভক্ত ইলেক্টোরাল ভোটের দিক থেকে বেশি গুরুত্বপূর্ণ পেনসিলভেনিয়া। এ ছাড়া আছে নেভাদা, জর্জিয়া, উত্তর ক্যারোলিনা ও আলাস্কার মতো ছোট কিন্তু গুরুত্বপূর্ণ রাজ্য।

করোনাভাইরাসের কারণে এবারের নির্বাচনে পোস্টাল ব্যালট ভোট বেশি থাকায়, ভোট গণনায় কিছুটা বেশি সময় লেগে যাচ্ছে। তবে, দেরি হলেও পোস্টাল ভোট ডেমোক্র্যাটদের পক্ষে যাচ্ছে।

বাইডেন যদি অ্যারিজোনায় জয়যাত্রা ধরে রাখতে পারেন এবং নেভাদায় জয় পেয়ে রাজ্যের ছয়টি ইলেক্টোরাল ভোট পেয়ে যান, তবে তার ২৭০ এর কোটা পূরণ হবে। আর, তাতেই তিনি নিজেকে বিজয়ী দাবি করতে পারবেন।

কিন্তু, ট্রাম্পকে হিসাব কষতে হবে অনেক। যদি তিনি উত্তর ক্যারোলিনা ও জর্জিয়ায় জয়ের ধারা বজায় রাখতে পারেন কিন্তু, অ্যারিজোনায় হেরে যান, জয়ের জন্য অবশ্যই তাকে বাইডেনের নিজ রাজ্য পেনসিলভানিয়ার সঙ্গে নেভাদাতেও জিততে হবে।

তখন পেনসিলভানিয়ার সঙ্গে আলাস্কায় জয় পেয়ে এর তিনটি ইলেক্টোরাল ভোট পেলেও, তা যথেষ্ট হবে না। কিছু প্রত্যাশিত ফলাফল উল্টে গিয়ে তার বিজয়ের পথ বন্ধুর করে তুলেছে।

নেভাদা

বাইডেন নেভাদায় জয়ী হলে, আর কোনও হিসাব কাজ করবে না। ডেমোক্র্যাটরা নেভাদার ছয়টি ইলেক্টোরাল ভোট পাওয়ার আশা করছেন। লাস ভেগাসের এই রাজ্যে চলছে চরম প্রতিদ্বন্দ্বিতা। ৮৬ শতাংশ ভোট গণনা শেষে বাইডেন পেয়েছেন ৪৯ দশমিক ৩ শতাংশ ভোট। আর, ট্রাম্প পেয়েছেন ৪৮ দশমিক ৭ শতাংশ ভোট।

রাজ্যের কর্মকর্তারা বুধবার জানান যে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ফলাফলের জন্য অপেক্ষা করতে হবে।

পেনসিলভেনিয়া

এবারের নির্বাচনে ফল ঘোষণার ক্ষেত্রে এই রাজ্য সবচেয়ে বেশি সময় নিতে পারে বলে ধরা হচ্ছে। এর ২০টি ইলেক্টোরাল ভোট নির্বাচনের ফলাফলকে উল্টে দিতে পারে যেকোনো মুহূর্তে।

শিল্প কারখানা অধ্যুষিত পেনসিলভেনিয়ায় ৮৯ শতাংশ ভোট গণনা সম্পন্ন হয়েছে। এর মধ্যে ৫০ দশমিক ৭ শতাংশ ভোট পেয়ে এগিয়ে আছেন ট্রাম্প। আর, বাইডেন পেয়েছেন ৪৮ দশমিক এক শতাংশ ভোট। তবে, ভোট গণনা যতই এগোচ্ছে, দুই প্রার্থীর ব্যবধান ততই কমছে এখানে।

গণনার অপেক্ষায় থাকা ব্যালটগুলো বাইডেনের পক্ষেই যাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। রাজ্য কর্তৃপক্ষ শুক্রবারের মধ্যে গণনা শেষ করবে বলে আশা করছে।

তবে, বুধবার ট্রাম্প সমর্থকরা এখানে ভোট গণনা বন্ধের মামলার কথা জানান। নির্বাচন কর্মকর্তারা রিপাবলিকান 'পর্যবেক্ষকদের' ভোট কাউন্টারের ২৫ ফুটের কাছাকাছি যেতে নিষেধ করেছেন বলে তাদের অভিযোগ।

উত্তর ক্যারোলিনা

এ রাজ্যে বাইডেন শক্ত অবস্থানের পরিচয় দিলেও, উত্তর ক্যারোলিনার ১৫টি ইলেক্টোরাল ভোট জয়ের সম্ভাবনা ট্রাম্পের বেশি। এখানে ভোট গণনা প্রায় শেষ দিকে।

৯৫ শতাংশ ভোট গণনা শেষে ট্রাম্পের ঝুলিতে এর ৫০ দশমিক ১ শতাংশ ও বাইডেনের পক্ষে গিয়েছে ৪৮ দশমিক ৬ শতাংশ ভোট।

নির্বাচনের দিন বা তার আগে পাঠানো পোস্টাল ব্যালট নভেম্বরের ১২ তারিখ পর্যন্ত গণনার সুযোগ আছে এ রাজ্যে।

জর্জিয়া

বাইডেন দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় এ রাজ্যে অপ্রত্যাশিতভাবে ভালো ভোট পেয়েছেন। ঐতিহ্যগতভাবে রিপাবলিকান এই দুর্গে ট্রাম্প এখনও এগিয়ে থাকলেও, ব্যবধান এখানে খুবই সামান্য। এ রাজ্যে ইলেক্টোরাল ভোট ১৬টি।

এখানে ৯৫ শতাংশ ভোট গণনা হয়েছে। বাইডেন ৪৯ দশমিক ১ শতাংশ আর ট্রাম্পের ঝুলিতে গেছে ৪৯ দশমিক ৭ শতাংশ ভোট। মার্কিন মিডিয়া এখানে এই ব্যবধানকে বেশ গুরুত্ব দিয়ে দেখছে।

বৃহস্পতিবার প্রথম প্রহরে এ রাজ্যের চূড়ান্ত ফলাফল পাওয়া যাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

আলাস্কা

মাত্র তিনটি ইলেক্টোরাল ভোটের রাজ্য আলাস্কার মাত্র ৫০ শতাংশ ভোট গণনা হয়েছে। এর ৬২ দশমিক ১ শতাংশ ভোট পেয়েছেন ট্রাম্প, আর বাইডেন পেয়েছেন ৩৩ দশমিক ৫৮ শতাংশ।

Comments

The Daily Star  | English

Bangladesh in T20 WC Super 8s as bowlers crush Nepal

Bangladesh made the record of defending the lowest-ever total in a T20 World Cup game in their 21-run win over Nepal in a Group D game at the Arnos Vale Ground in Kingstown today to secure their spot in the Super Eight.

5h ago