অ্যারিজোনায় বাইডেনের জয় ‘নিশ্চিত’, সুযোগ নেই ট্রাম্পের

এপি, ফক্স নিউজ ও আরও কিছু গণমাধ্যমে অ্যারিজোনায় ডেমোক্র্যাটিক প্রার্থী বাইডেনের বিজয়ী হওয়ার পূর্বাভাস দেওয়ার কয়েকদিন পর, রাজ্যটিতে তার বিজয়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে নির্বাচন বিশ্লেষক ওয়েবসাইট ‘ডিসিশন ডেস্ক এইচকিউ’।
যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। ছবি: এপি

এপি, ফক্স নিউজ ও আরও কিছু গণমাধ্যমে অ্যারিজোনায় ডেমোক্র্যাটিক প্রার্থী বাইডেনের বিজয়ী হওয়ার পূর্বাভাস দেওয়ার কয়েকদিন পর, রাজ্যটিতে তার বিজয়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে নির্বাচন বিশ্লেষক ওয়েবসাইট ‘ডিসিশন ডেস্ক এইচকিউ’।

গত শনিবার পেনসিলভেনিয়ার গুরুত্বপূর্ণ রাজ্যে বিজয়ী ঘোষণার পর, প্রেসিডেন্ট হওয়ার জন্য বাইডেনের অ্যারিজোনার ১১টি ইলেকটরাল ভোট জয়ের প্রয়োজন ছিল না। তবুও, অ্যারিজোনার ফল নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করা হয়েছিল বলে ব্রিটিশ দৈনিক দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট জানিয়েছে।

নির্বাচনের রাতেই অ্যারিজোনার ফলাফলের পূর্বাভাস দেওয়ার বিষয়ে বিশ্লেষকরা 'তাড়াহুড়া' না করতে প্রস্তাব দিয়েছিলেন।

অ্যারিজোনায় বিজয় ডেমোক্র্যাটদের কাছে ঐতিহাসিক ঘটনা। সর্বশেষ ১৯৯৬ সালে বিল ক্লিনটন পুনঃনির্বাচনে এই রাজ্যে জিতেছিলেন। তার আগে অ্যারিজোনায় সর্বশেষ ডেমোক্র্যাট হিসেবে হ্যারি ট্রুম্যান জিতেছিলেন ১৯৪৮ সালে।

নির্বাচনের ফল বিশ্লেষক ওয়েবসাইট 'ডিসিশন ডেস্ক এইচকিউ' বুধবার রাতে বাইডেনকে জয়ী দেখায়। যদিও সেখানে ২৪ হাজার ভোট এখনও গণনার অপেক্ষায় আছে বলে জানানো হয়। এই রাজ্যে দুই প্রার্থীর ব্যবধান অনেক কম ছিল।

বিশ্লেষকরা বলছেন, তারা এখন বিশ্বাস করছেন যে রাজ্যটিতে ডোনাল্ড ট্রাম্পের ফিরে আসার আর কোনও সম্ভাবনা নেই। সেখানে তিনি প্রায় ১১ হাজার ভোটে পিছিয়ে আছেন।

চূড়ান্ত ব্যালট এখনও গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠতে পারে। তবে, রাজ্য আইনে ভোট ব্যবধান শূন্য দশমিক এক (০.১) শতাংশ হলে ভোট পুনর্গণনার কথা বলা আছে। বর্তমানে বাইডেন সেখানে শূন্য দশমিক তিন (০.৩) শতাংশ ভোট ব্যবধানে এগিয়ে আছেন।

এবারের নির্বাচন অ্যারিজোনার জন্যও ঐতিহাসিক। কারণ, রাজ্যে এবার ৩০ লাখেরও বেশি ভোটার ভোট দিয়েছেন। এ জেড ক্যাপিটল টাইমসের তথ্য অনুযায়ী, রাজ্যটিতে ভোটগ্রহণের হার ৮০ শতাংশ হওয়ার কথা। এর আগে, ১৯৮০ সালের নির্বাচনেই কেবল অ্যারিজোনায় ৮০ শতাংশ ভোট পড়েছিল।

Comments

The Daily Star  | English

Broadband internet restored in selected areas

Broadband internet connections were restored on a limited scale yesterday after 5 days of complete countrywide blackout amid the violence over quota protest

2h ago