কোহলির সঙ্গে অস্ট্রেলিয়ানদের সম্পর্কটা বড় অদ্ভুত, জানালেন পেইন

বিশ্বের অন্যতম সেরা এই ব্যাটসম্যানকে নিয়ে তাদের ভাবনার জগতে আছে বিপরীতধর্মী অম্লমধুর অবস্থান। এমনটাই জানালেন অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট অধিনায়ক টিম পেইন
Tim Paine and Virat Kohli
ফাইল ছবি (সংগ্রহ)

যেকোনো প্রতিপক্ষের বিপক্ষেই ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি থাকেন আলোচনার কেন্দ্রে। ব্যাটিংয়ে রান করা, প্রতিপক্ষকে তাতিয়ে দেওয়ার মতো শরীরী ভাষায় খেলায় ভিন্ন আমেজ নিয়ে আসেন তিনি। কোহলির সঙ্গে অস্ট্রেলিয়ানদের লড়াইটাও জমে বেশ। তবে বিশ্বের অন্যতম সেরা এই ব্যাটসম্যানকে নিয়ে তাদের ভাবনার জগতে আছে বিপরীতধর্মী অম্লমধুর অবস্থান। এমনটাই জানালেন অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট অধিনায়ক টিম পেইন।

তিন সংস্করণের সিরিজ খেলতে এরমধ্যে অস্ট্রেলিয়া পৌঁছে গেছে ভারত দল। ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি শেষ করে তারা খেলবে টেস্ট সিরিজ। তবে এবার কোহলিকে পুরো সিরিজে পাওয়া যাবে না। ওয়ানডে, টি-টোয়েন্টির পর প্রথম টেস্ট পর্যন্ত থাকবেন তিনি। বাকি তিন টেস্ট থেকে পিতৃত্বকালীন ছুটি নিয়েছেন।

টেস্ট সিরিজের বড় অংশে না থেকেও আলোচনা তাকে নিয়েই। এবিসি স্পোর্টসকে পেইন জানালেন ভারতের বিপক্ষে খেলা পড়লেই কোহলিকে বিস্তর প্রশ্নের মধ্যে পড়তে হয় তাকে,   ‘বিরাট কোহলিকে নিয়ে আমাকে অনেক প্রশ্ন করা হয়। আমি বলি, আমার কাছে  সে অন্য একজন খেলোয়াড়ের মতই আমার । টসের সময় আমি তাকে পাই এবং বিপক্ষে খেলতে দেখি। এরকমই বিষয়টা।’

তবে কোহলি তাদের কাছে অন্য আট-দশজন খেলোয়াড় যে না পরের কথাতেই বুঝিয়ে দেন অসি টেস্ট কাপ্তান, ‘বিরাটকে নিয়ে আমাদের মজার একটা ব্যাপার আছে। আমরা তাকে ঘৃণা করতে ভালোবাসি কিন্তু ক্রিকেট ভক্ত হিসেবে তার ব্যাটিং দেখতেও ভালোবাসি। আমরা তার ব্যাটিং দেখতে ভালোবাসি কিন্তু তাকে বেশি রান করতে দিতে পছন্দ করি না।’

ঐতিহ্যগত ভাবেই ক্রিকেটে স্লেজিংয়ে ওস্তাদ অস্ট্রেলিয়ানরা। তবে অস্ট্রেলিয়ায় গিয়ে অস্ট্রেলিয়ানদেরই স্লেজিং ফিরিয়ে দেন কোহলি। সর্বশেষ সিরিজেও এমন পরিস্থিতির কথা মনে করলেন পেইন,  ‘অস্ট্রেলিয়া এবং ভারতের মধ্যে উত্তপ্ত প্রতিযোগিতা আছে। সে অবশ্যই লড়াইয়ে ঝাঁজ আনা ব্যক্তি। কয়েকবার উত্তপ্ত বাক্যবিনিময়ও হয়েছে। এটা এজন্য না যে সেও অধিনায়ক, আমিও অধিনায়ক। যে কারো সঙ্গে হতে পারত (ওইরকম পরিস্থিতিতে)।’

‘এই ধরণের খেলোয়াড়ের বিপক্ষে খেলতে একটা স্নায়ুচাপ থাকে। একইরকম হয় যখন ইংল্যান্ডের বিপক্ষে খেলি জো রুট আর বেন স্টোকসের বেলায়। দুনিয়ার সেরা খেলোয়াড় ক্রিজে আসলে উত্তাপটা আলাদা হয়ে যায়।’

অস্ট্রেলিয়ার মাঠে  বরাবরই চওড়া কোহলির ব্যাট। ২০১২ সালে অ্যাডিলেডে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে নিজের প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরি পেয়েছিলেন তিনি। ২০১৪ সালে আবার ওদেশে গিয়ে দল সিরিজ হারলে চার সেঞ্চুরিতে ৬৯২ রান করেছিলেন এই ডানহাতি। সর্বশেষ সফরে তো ছিলেন অধিনায়ক। ২৮২ রান করেছেন, দলকে নেতৃত্ব দিয়ে ঐতিহাসিক সিরিজও জিতিয়েছেন তিনি। এবার তাই বোর্ডার-গাভাস্কার ট্রফি পুনরুদ্ধারে নামবে পেইনের দল , ‘এটা অনেক বড় সিরিজ। গতবার তারা আমাদের হারিয়েছিল, যদিও দল ভিন্ন ছিল। যেটা বললাম দুই দেশের মধ্যে প্রতিদ্বন্দ্বিতা তৈরি হয়েছে। আমার মনে হয় আপনি যেকোনো সময়েই সেরাদের বিপক্ষে নিজেকে বাজিয়ে দেখতে চাইবেন।’

 

Comments

The Daily Star  | English

Consumers brace for price shocks

Consumers are bracing for multiple price shocks ahead of Ramadan that usually marks a period of high household spending.

11h ago