দুটি গোলই মানসম্পন্ন: সালাহউদ্দিন

তবে আরও গোল করতে না পারায় কিছুটা অতৃপ্তিও রয়েছে বাফুফে প্রধানের।
kazi salahuddin
ছবি: ফিরোজ আহমেদ

আন্তর্জাতিক ফুটবলে ফেরার উপলক্ষ নেপালকে হারিয়ে রাঙিয়েছে বাংলাদেশ। বাড়তি আনন্দ দিয়েছে ফরোয়ার্ডদের নজরকাড়া দুটি গোল। নাবীব নেওয়াজ জীবন ও মাহবুবুর রহমান সুফিলের গোলে তৃপ্ত বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) সভাপতি কাজী সালাহউদ্দিন। তবে আরও গোল করতে না পারায় কিছুটা অতৃপ্তিও রয়েছে তার।

শুক্রবার দর্শকে ভরপুর বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে প্রথম প্রীতি ম্যাচে নেপালকে ২-০ গোলে হারায় বাংলাদেশ। দশম মিনিটে আবাহনী লিমিটেডের স্ট্রাইকার জীবনের দারুণ ভলিতে এগিয়ে যায় স্বাগতিকরা। বিরতির পর ৮০তম মিনিটে একক নৈপুণ্যে লক্ষ্যভেদ করে দলের জয় নিশ্চিত করেন বসুন্ধরা কিংসের বদলি ফরোয়ার্ড সুফিল।

nabib newaj jibon
ছবি: ফিরোজ আহমেদ

গোল করতে না পারার সমস্যা বাংলাদেশ জাতীয় দলের ফরোয়ার্ডদের পুরনো। তবে নেপালের বিপক্ষে জয়ের রেশ থাকতে থাকতে শনিবার সালাহউদ্দিন জানান খেলোয়াড়দের  ফিনিশিং নিয়ে তার মুগ্ধতার কথা, ‘এটার জন্যই তো কাজ করছেন কোচরা। খেলোয়াড়দেরই গোল করতে হবে। কোচও পারবে না, আমিও পারব না। কালকে (শুক্রবার) তারা আত্মবিশ্বাসী ছিল। দুটি গোলই খুব সুন্দর হয়েছে। দুটি গোলই খুব মানসম্পন্ন। এদের যোগ্যতা আছে গোল করার। তবে যে কারণেই হোক, এরা তা করতে পারে না।’

ম্যাচের নবম মিনিটেই এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ পেয়েছিল জেমি ডের দল। কিন্তু বিশ্বনাথ ঘোষের থ্রো ইনে হেড করতে ব্যর্থ হন তপু বর্মণ। তাছাড়া, প্রথমার্ধে মোহাম্মদ ইব্রাহিম ও মানিক মোল্লা তৈরি করেছিলেন সম্ভাবনা। এসব নিয়ে কিছুটা আক্ষেপ ঝরেছে বাফুফে প্রধানের কণ্ঠে, ‘ভালো খেলা ছিল। দুই দলই ভালো খেলেছে। বাংলাদেশ প্রথমার্ধে খুবই ভালো খেলেছে। প্রথমার্ধে আরও দুই-একটা গোল হওয়ার দরকার ছিল। হেডটা তপু বর্মনের! কেন মিস হলো সেটা তপু নিজেও বলতে পারবে না! এটাই ফুটবল।’ 

Mahbubur Rahman Sufil
ঘিরে থাকা বাধার সব দেয়াল টপকে বল জালে জড়াচ্ছেন সুফিল। ছবি: ফিরোজ আহমেদ

প্রস্তুতির ঘাটতি ছিল, ছিল ফিটনেস নিয়ে সংশয়। সাম্প্রতিক পরিসংখ্যানও ছিল না পক্ষে। এক ম্যাচের পারফরম্যান্সেই সেসব উবে যায়নি। সালাহউদ্দিনের ভাবনাও একই। তবে জয়কে প্রত্যাশিত বলছেন তিনি, ‘করোনাভাইরাসের পরে খেলোয়াড়রা সামলে নিয়েছে অনেকটা। আরেকটু সময় লাগবে। কিন্তু এটাই আমরা আশা করছিলাম।’

গণমাধ্যমকে কৃতিত্ব দেওয়ার পাশাপাশি ফুটবলের দ্রুত উন্নয়নে সরকারের কাছ থেকে আরও সহায়তা কামনা করেছেন চতুর্থ মেয়াদে বাফুফের সভাপতি পদে আসীন সালাহউদ্দিন, ‘ওদের আত্মবিশ্বাস বেড়ে গেছে। গত এক মাস থেকে গণমাধ্যমের ভূমিকা ইতিবাচক ছিল। সঙ্গে যদি সরকারের সমর্থন আসে, তাহলে বাংলাদেশের সেরা মানের ফুটবল খেলুড়ে দেশে পরিণত হওয়া সময়ের ব্যাপার মাত্র।’

Comments

The Daily Star  | English

Speedy Trial Act set to become permanent law

Bill placed in parliament amid criticism from opposition

53m ago