এবার দুই অর্ধেই ভালো খেলার প্রত্যয় জামালের

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের লম্বা সময় ফুটবল স্থগিত থাকার পর নেপালের বিপক্ষে ফেরার ম্যাচটা দারুণ ছিল বাংলাদেশের। ম্যাচের দুই অর্ধে দুটি গোল করে জয় তুলে নেয় লাল-সবুজের দল। কিন্তু প্রথমার্ধের তুলনায় দ্বিতীয়ার্ধে খেলা ছিল অনেকটাই অগোছালো। তাই দ্বিতীয় ম্যাচে এবার দুই অর্ধেই ভালো ফুটবল উপহার দিতে চান জামাল ভুঁইয়ারা।
jamal bhuiyan
ছবি: সংগ্রহ

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে লম্বা সময় ফুটবল স্থগিত থাকার পর নেপালের বিপক্ষে ফেরার ম্যাচটা দারুণ ছিল বাংলাদেশের। ম্যাচের দুই অর্ধে দুটি গোল করে জয় তুলে নেয় লাল-সবুজের দল। কিন্তু প্রথমার্ধের তুলনায় দ্বিতীয়ার্ধে খেলা ছিল অনেকটাই অগোছালো। তাই দ্বিতীয় ম্যাচে এবার দুই অর্ধেই ভালো ফুটবল উপহার দিতে চান জামাল ভুঁইয়ারা।

প্রথম ম্যাচে নাবীব নেওয়াজ জীবনের গোলে ম্যাচের ১০ মিনিটেই এগিয়ে গিয়েছিল বাংলাদেশ। এরপর বিরতির আগে গোল দেওয়ার আরও বেশ কিছু সুযোগ পেয়েছিল স্বাগতিকরা। কিন্তু তা কাজে লাগাতে পারেননি তারা। দ্বিতীয়ার্ধে উল্টো গোল শোধ করতে বাংলাদেশের শিবিরে বেশ চাপ সৃষ্টি করে নেপাল। যদিও ৮০তম মিনিটে আরও একটি গোল পায় স্বাগতিকরা। কিন্তু ঘরের মাঠে দ্বিতীয়ার্ধে মাঝ মাঠের নিয়ন্ত্রণ হারানো ভালো লাগেনি জামালের। দুই অর্ধেই ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ চান তিনি।

সোমবার অনলাইন সংবাদ সম্মেলন বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক জামাল বলেন, 'আগের ম্যাচে প্রথমার্ধ ভালো ছিল। দ্বিতীয়ার্ধে আমি ১০/১৫ মিনিট খেলছি। প্রথমার্ধ দারুণ ছিল, দ্বিতীয়ার্ধে কষ্ট করতে হয়েছে। শুধু প্রথমার্ধে ভালো খেললে চলবে না, দুই অর্ধেই ভালো খেলতে হবে। আগামীকাল (মঙ্গলবার) সেটাই আমাদের লক্ষ্য। তবে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে দল কেমন খেলেছে। সে হিসেবে প্রথম ম্যাচের পারফরম্যান্সে আমি খুশি।'

জামালের মতো প্রায় একই কথা বললেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের সহকারী কোচ স্টুয়ার্ট ওয়াটকিস, 'আগের ম্যাচে আমরা প্রথমার্ধেই ৩/৪ গোলে এগিয়ে যেতে পারতাম। সেটা হলে দ্বিতীয়ার্ধ আরও সহজ হয়ে যেত। আগের ম্যাচে মন্দের চেয়ে আমাদের ভালো দিকগুলোই বেশি ছিল। আমি নিশ্চিত, এবার নেপাল আরও শক্তিশালী হয়ে মাঠে নামবে। তবে আমরা সেরা ফল পাওয়ার চেষ্টা করব।'

এদিকে দ্বিতীয় ম্যাচে ডাগআউটে দলের কোচ জেমি ডেকে পাচ্ছে না বাংলাদেশ। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় আইসোলেশনে আছেন তিনি। সোমবার দ্বিতীয় দফা পরীক্ষাতেও পজিটিভ এসেছেন তিনি। তাই নেপালের বিপক্ষে আগামীকাল ডাগআউটে থাকছেন সহকারী কোচ ওয়াটকিস।

তবে কোচ মাঠে না থাকলেও বড় কোনো সমস্যা হবে না বলে মনে করেন অধিনায়ক জামাল, 'জেমি থাকুক আর না থাকুক, আমাদের মনোযোগ একই থাকবে। জেমি বা স্টুয়ার্ট ওয়াটকিস যে-ই থাকুন, খেলার নির্দেশনা ও ট্যাকটিক্যাল ব্যাপারগুলো একই। জেমি না থাকলেও বড় সমস্যা হবে না।'

Comments

The Daily Star  | English

Invest in Bangladesh, PM tells Indian businesspersons

Prime Minister Sheikh Hasina today invited Indian businesspersons to invest in Bangladesh, stating that she prioritises neighbouring countries

1h ago