শীর্ষ খবর

জম্মু-কাশ্মীরে হামলায় ভারতীয় ২ সেনা নিহত

জম্মু-কাশ্মীরের রাজধানী শ্রীনগরের কাছে এক সন্ত্রাসী হামলায় ভারতীয় দুই সেনা নিহত হয়েছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার পুলিশ জানায়, শ্রীনগরের এইচএমটি এলাকায় সেনাবাহিনীর টহলরত দলের ওপর হামলা চালিয়েছে সন্ত্রাসীরা।
Jommu_Kashmir_27Nov20.jpg
ছবি: সংগৃহীত

জম্মু-কাশ্মীরের রাজধানী শ্রীনগরের কাছে এক সন্ত্রাসী হামলায় ভারতীয় দুই সেনা নিহত হয়েছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার পুলিশ জানায়, শ্রীনগরের এইচএমটি এলাকায় সেনাবাহিনীর টহলরত দলের ওপর হামলা চালিয়েছে সন্ত্রাসীরা।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, হাসপাতালে নেওয়ার পর সন্ত্রাসী হামলায় আহত দুই সেনার মৃত্যু হয়েছে।

এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, ‘তিন সন্ত্রাসী আমাদের জওয়ানদের ওপর গুলি চালায়। দুজন সেনা গুরুতর আহত হয়ে মারা যান। জৈশ-ই-মুহাম্মাদ সন্ত্রাসী গোষ্ঠী এখানে খুব সক্রিয়। সন্ত্রাসীরা গাড়িতে করে পালিয়ে যায়। তাদের মধ্যে দুজন সম্ভবত পাকিস্তানি এবং একজন স্থানীয়।’

সন্ত্রাসীদের দলটিকে খুঁজে বের করতে তল্লাশি অভিযান শুরু করেছে ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনী।

এর আগে, নাগরোটার কাছে জম্মু-শ্রীনগর মহাসড়কে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে এক সংঘর্ষে চার জৈশ-ই-মুহাম্মাদ সন্ত্রাসী নিহত হন। সে সময় বন্দুকযুদ্ধে দুই পুলিশ সদস্য আহত হয়েছিলেন।

পুলিশের ধারণা, সন্ত্রাসীরা ওই অঞ্চলে ‘বড় ধরনের হামলার পরিকল্পনা করছে’ এবং তারা কাশ্মীর উপত্যকার দিকে এগুচ্ছে।

তল্লাশি অভিযান নিয়ে নিরাপত্তা বাহিনীর প্রশংসা করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এক টুইটে তিনি বলেন, ‘আমাদের নিরাপত্তা বাহিনী আবারও দুর্দান্ত সাহসিকতা ও পেশাদারিত্ব দেখিয়েছে। সতর্ক থাকার জন্য তাদের ধন্যবাদ। তারা জম্মু ও কাশ্মীরে তৃণমূল পর্যায়ে গণতান্ত্রিক চর্চাকে দাবিয়ে রাখার একটি ঘৃণ্য চক্রান্তকে পরাস্ত করেছে।’

আগামী ২৮ নভেম্বর থেকে ১৯ ডিসেম্বরের মধ্যে আট দফায় জম্মু ও কাশ্মীরের জেলা উন্নয়ন কাউন্সিল (ডিডিসি) নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ২২ ডিসেম্বর ভোট গণনা করা হবে।

গত বছরের আগস্টে মোদি সরকার ভারতশাসিত কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা প্রত্যাহার করার পর এই প্রথমবারের মতো ওই অঞ্চলে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

মোদি সরকারের দাবি, নির্বাচন বানচাল করতেই সন্ত্রাসীরা এসব হামলা চালাচ্ছে।

Comments

The Daily Star  | English

‘Ekush’ taught us not to bow down: PM

Prime Minister and Awami League (AL) President Sheikh Hasina today said that Bangladesh is moving forward with the ideals taught by the great Language Movement of 1952

44m ago