খেলা

ফিলিপসের ঝড়ো সেঞ্চুরিতে চাপা ওয়েস্ট ইন্ডিজ

মার্টিন গাপটিল, টিম সেইফার্টের দারুণ শুরুটা টেনে নিলেন ডেভন কনওয়ে। তবে তার সঙ্গে জুটি বেধে মূল কাজটা করলেন গ্ল্যান ফিলিপস। এই তরুণের তাণ্ডবে প্রায় আড়শোর কাছে চলে গেল নিউজিল্যান্ড। বিস্ফোরক ব্যাটিং লাইনআপ নিয়েও ওই রানের নিচে চাপা পড়েছে ক্যারিবিয়ানরা।
Glenn Phillips
ছবি: ব্ল্যাকক্যাপস টুইটার

মার্টিন গাপটিল, টিম সেইফার্টের দারুণ শুরুটা টেনে নিলেন ডেভন কনওয়ে। তবে তার সঙ্গে জুটি বেধে মূল কাজটা করলেন গ্ল্যান ফিলিপস। এই তরুণের তাণ্ডবে প্রায় আড়শোর কাছে চলে গেল নিউজিল্যান্ড। বিস্ফোরক ব্যাটিং লাইনআপ নিয়েও ওই রানের নিচে চাপা পড়েছে ক্যারিবিয়ানরা।

মাউন্ট মাংগানুইয়ে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতেও জিতে সিরিজ নিশ্চিত করেছে স্বাগতিকরা। ফিলিপসের ৫১ বলে ১০৮ রানের ইনিংসে ২৩৮ রান করেছিল কিউইরা। ওয়েস্ট ইন্ডিজ থেমেছে  ১৬৬ রানে। টিম সাউদিদের জয় তাই ৭২ রানের বড় ব্যবধানে।

টস জিতে নিউজিল্যান্ডকেই ব্যাট করতে দিয়েছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সেই সিদ্ধান্তটা তাদের হয়েছে বুমেরাং।

পাওয়ার প্লে কাজে লাগিয়ে দুও ওপেনার আনেন ভাল শুরু। ওশান টমাসের বলে ১৩ বলে ১৮ রানে সেইফার্টের বিদায়ে ভাঙ্গে ৪৯ রানের জুটি। ২৩ বলে ৩৪ করা গাপটিলও ফেরেন খানিক পর।

এরপরও জমে উঠে কনওয়ে-ফিলিপস জুটি। একদম শেষ ওভারে গিয়ে বিচ্ছিন্ন হওয়ার আগে  ৮১ বলে আসে ১৮৪ রানের জুটি। ৩৭ বলে চারটি করে চার-ছক্কায় ৬৫ করে অপরাজিত থাকেন কনওয়ে।

বেশিরভাগ স্ট্রাইক নিয়ে ৫১ বলে ১০ চার, ৮ ছক্কায় ১০৮ করে ফেলেন ফিলিপস। ইনিংস শেষের এক বল আগে কাইনর পোলার্ডের শিকার হন তিনি।

বিশাল লক্ষ্য তাড়ায় ক্যারিবিয়ান বিধ্বংসী ব্যাটসম্যানদের কেউই পাননি তা। আন্দ্রে ফ্লেচার, শেমরন হেটমায়ার, অধিনায়ক পোলার্ডরা থিতু হলেও আগ বাড়তে পারেননি। শেষ দিকে কেমো পাল কমিয়েছেন ব্যবধান।

পেসার কেইল জেমিনসন ৪ ওভার বল করে মাত্র ১৫ রান দিয়েই নেন ২ উইকেট। সোমবার একই ভেন্যুতে শেষ টি-টোয়েন্টি খেলবে দুদল। এরপর শুরু হবে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ।

Comments

The Daily Star  | English
Israel bombing of Rafah

Column by Mahfuz Anam: Another veto prolongs genocide in Gaza

The goal of the genocide in Gaza is to take over what's left of Palestinian land.

9h ago