৩ মাসের শিশু অপহরণ ও হত্যা, ৩ জনের যাবজ্জীবন

আবদুল্লাহ নামের তিন মাস বয়সী শিশুকে অপহরণ ও হত্যার অপরাধে তিন জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও প্রত্যেককে ৪৫ হাজার টাকা করে জরিমানার আদেশ দিয়েছেন আদালত। জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছরের কারাদণ্ডের আদেশ দেন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক জেলা ও দায়রা জজ নুরে আলম।
দণ্ড প্রাপ্ত তিন আসামি। ছবি: সংগৃহীত

আবদুল্লাহ নামের তিন মাস বয়সী শিশুকে অপহরণ ও হত্যার অপরাধে তিন জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও প্রত্যেককে ৪৫ হাজার টাকা করে জরিমানার আদেশ দিয়েছেন আদালত। জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছরের কারাদণ্ডের আদেশ দেন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক জেলা ও দায়রা জজ নুরে আলম।

আজ রোববার দুপুরে আসামিদের উপস্থিতিতে এ রায় প্রদান করেন তিনি।

দণ্ড প্রাপ্তরা হলেন- মোরেলগঞ্জ উপজেলার নিশানবাড়িয়া এলাকার মোয়াজ্জেম হোসেন হাওলাদারের ছেলে মো. হৃদয় ওরফে রাহাত হাওলাদার (২১), জসিম হাওলাদারের ছেলে মো. মহিউদ্দিন হাওলাদার (২২) এবং মো. আব্দুর রশিদ হাওলাদারের ছেলে মো. ফয়জুল ইসলাম (২৯)।

মামলার নথি থেকে জানা যায়, তিন মাস বয়সী আবদুল্লাকে জেলার মোরেলগঞ্জ উপজেলার বিশারীঘাটা এলাকা থেকে ২০১৯ সালের ১১ মার্চ ভোরে চুরি করা হয়। সেদিনই শিশুটির বাবা মো. সিরাজুল ইসলাম বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামাদের আসামি করে মোরেলগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করেন।

পরবর্তীতে, আব্দুল্লাহর বাবার চুরি হয়ে যাওয়া মোবাইল ফোন থেকে কল করে ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবী করা হয়। কিন্তু মুক্তিপণ দেওয়ার পরেও সন্তানকে ফেরত পাননি তিনি। ১৩ মার্চ মো. হৃদয় ওরফে রাহাত হাওলাদারকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

তার স্বীকারোক্তি মোতাবেক ১৭ মার্চ মোরেলগঞ্জের বিশারীঘাটা এলাকার রাস্তার পাশের একটি টয়লেট থেকে শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

হৃদয়ের দেওয়া স্বীকারোক্তি অনুযায়ী পুলিশ আরও দুজনকে গ্রেপ্তার করে।

২০২০ সালের ৯ মার্চ আদালত তদন্তকারী কর্মকর্তার রিপোর্টের ভিত্তিতে চার্জ গঠন করে।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী রনজিৎ কুমার মণ্ডল বলেন, ‘আদালত নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ এর ৭ ধারা মোতাবেক আসামিদের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন এবং ৩০২/৩৪ ধারা মোতাবেক যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন।’

মামলার রায়ে নিহত শিশু আব্দুল্লাহর বাবা মো. সিরাজুল ইসলাম সোহাগ সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। রায় শোনার পর তিনি আইনজীবী, বিচারক ও পুলিশ অফিসারসহ সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

Comments

The Daily Star  | English
Corruption in Bangladesh civil service

The nine lives of a corrupt public servant

Let's delve into the hypothetical lifelines in a public servant’s career that help them indulge in corruption.

6h ago