চ্যাম্পিয়ন্স লিগে মেসির বিপক্ষে গোল নেই রোনালদোর

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে রোনালদোর দলের বিপক্ষে তিনটি গোল করেছেন মেসি।
ফাইল ছবি

লড়াইটা যখন উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের, তখন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো রাজা। তার নামের পাশে সর্বোচ্চ ১৩২ গোল। ১১৮ গোল নিয়ে খুব বেশি পিছিয়ে নেই সময়ের আরেক সেরা তারকা লিওনেল মেসিও। কিন্তু মজার ব্যাপার হলো, এই প্রতিযোগিতায় মুখোমুখি লড়াইয়ে কখনোই মেসির বিপক্ষে গোল করতে পারেননি রোনালদো!

এখন পর্যন্ত পাঁচবার ইউরোপের সর্বোচ্চ ক্লাব আসরে পরস্পরকে মোকাবিলা করেছেন সময়ের অন্যতম দুই সেরা খেলোয়াড়। আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড মেসি সবগুলো ম্যাচই খেলেছেন বার্সেলোনার হয়ে, পর্তুগিজ তারকা রোনালদো খেলেছেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও রিয়াল মাদ্রিদের জার্সিতে। মেসির দুটি জয়ের বিপরীতে রোনালদোর জয় একটি। বাকি দুটি ম্যাচ হয়েছে ড্র।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে রোনালদোর দলের বিপক্ষে তিনটি গোল করেছেন মেসি। প্রথমবার তিনি জালের ঠিকানা খুঁজে নিয়েছিলেন ২০০৮-০৯ মৌসুমের ফাইনালে, প্রতিপক্ষ ছিল ইউনাইটেড। এরপর ২০১০-১১ মৌসুমের সেমি-ফাইনালের প্রথম লেগে সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে রিয়ালের বিপক্ষে তিনি করেছিলেন জোড়া গোল।

মেসির দলের বিপক্ষে এই প্রতিযোগিতায় এখনও লক্ষ্যভেদ করা হয়নি রোনালদোর। অর্থাৎ বার্সেলোনার বিপক্ষে ৪৫০ মিনিট খেলেও জালের দেখা পাননি তিনি। ২০০৮ সালের এপ্রিলে ন্যু ক্যাম্পে পেনাল্টিও মিস করেছিলেন।

ঠিকানা বদলে রোনালদো থিতু হয়েছেন ইতালিয়ান সিরি আর শিরোপাধারী জুভেন্টাসে। চলতি মৌসুমের শুরুতে ক্লাব ছাড়তে চাওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করলেও নানা নাটকীয়তার পর মেসি থেকে গেছেন স্প্যানিশ পরাশক্তি বার্সেলোনায়। মঙ্গলবার রাতে ইউরোপের ঐতিহ্যবাহী এই ক্লাব দুটি গ্রুপ সেরা হওয়ার লড়াইয়ে ন্যু ক্যাম্পে নামবে। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ২০২০-২১ মৌসুমের ‘জি’ গ্রুপের ফিরতি লেগের হাইভোল্টেজ ম্যাচটি মাঠে গড়াবে বাংলাদেশ সময় রাত দুইটায়।

ফলে সব ধরনের প্রতিযোগিতা মিলিয়ে আড়াই বছর পর মুখোমুখি হতে দেখা যাবে মেসি ও রোনালদোকে। সবশেষ ২০১৮ সালের মে মাসে লা লিগায় একে অপরের বিপরীতে ছিলেন তারা। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের মঞ্চে মেসি-রোনালদোর শেষবার দেখা হয়েছিল আরও অনেক আগে, ২০১১ সালের মে মাসে।

গত অক্টোবরে অবশ্য অবসান হতে পারত মেসি-রোনালদোর দ্বৈরথ দেখতে চাওয়া ফুটবল অনুরাগীদের অপেক্ষার। কিন্তু করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় বার্সা-জুভের মধ্যকার প্রথম লেগে খেলা হয়নি রোনালদোর। ওই ম্যাচে জুভেন্টাসের মাঠ আলিয়াঞ্জ স্টেডিয়ামে ২-০ গোলে জিতেছিল বার্সা। দ্বিতীয়ার্ধের যোগ করা সময়ে স্পট কিক থেকে লক্ষ্যভেদ করেছিলেন মেসি।

Comments

The Daily Star  | English

Death came draped in smoke

Around 11:30pm, there were murmurs of one death. By then, the fire had been burning for over an hour.

7h ago