নোয়াখালীতে রোহিঙ্গা যুবক আটক, পুলিশ বলছে দলছুট

নোয়াখালীর হাতিয়ায় এক রোহিঙ্গা যুবককে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছেন স্থানীয় এলকাবাসী। মঙ্গলবার সকালে জনতা বাজার ঘাট এলাকা থেকে ওই যুবককে আটক করা হয়।
স্টার অনলাইন গ্রাফিক্স

নোয়াখালীর হাতিয়ায় এক রোহিঙ্গা যুবককে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছেন স্থানীয় এলকাবাসী। মঙ্গলবার সকালে জনতা বাজার ঘাট এলাকা থেকে ওই যুবককে আটক করা হয়।

আটক রোহিঙ্গা যুবক মো. নুরুল আমিন উখিয়ার কুতুপালং ক্যাম্পের আশরাফ আলীর ছেলে। তবে মঙ্গলবার সকালে রোহিঙ্গা যুবক আটক হলে ও দিনভর পুলিশ বিষয়টি গোপন রাখে। সন্ধ্যায় গণমাধ্যমের কাছে পুলিশ ঘটনার কথা স্বীকার করে।

স্থানীয় জনতা বাজার ঘাট এলাকার লোকজন জানান, ওই রোহিঙ্গা যুবক জনতা বাজার এলাকায় সন্দেহজনকভাবে ঘোরাফেরা করছিল। কথা বলে স্থানীয় লোকজনের সন্দেহ হলে তারা হাতিয়া থানার অধীন মোর্শেদ বাজার তদন্ত কেন্দ্রে খবর দেয়। পরে পুলিশ তাকে রোহিঙ্গা হিসেবে শনাক্ত করে আটক করে।

মোর্শেদ বাজার তদন্ত কেন্দ্রের আইসি পুলিশ পরিদর্শক মো. আবুল হাসান মিয়া জানান, আটক যুবকের মা-বাবা-ভাই-বোন কুতুপালং ক্যাম্পে বসবাস করত। সম্প্রতি তাদের হাতিয়ার ভাসানচরে স্থানান্তর করা হয়। কিন্তু এই যুবক কুতুপালং ক্যাম্পে না থাকায় পরিবারের সঙ্গে আসতে পারেনি। সড়ক পথে সে কক্সবাজার থেকে ফেনী হয়ে হাতিয়ার চানন্দী ইউনিয়ন এলাকায় পৌঁছায়। ধারণা করা হচ্ছে সে তার পরিবারের খোঁজে এখানে এসেছে। তাকে ভাসানচরে পাঠানোর প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।

নোয়াখালী পুলিশ সুপার মো. আলমগীর হোসেন বলেন, দলছুট রোহিঙ্গা ওই যুবককে পুলিশ হেফাজতে রাখা হয়েছে। যথাযথ নিয়ম অনুসরন করে তাকে বুধবার সকালে ভাসানচরে তার পরিবারের কাছে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

Comments

The Daily Star  | English

Medium of education should be mother language: PM

Prime Minister Sheikh Hasina today said that the medium for education in educational institutions should be everyone's mother tongue.

4h ago