মিথ্যা ঘোষণায় আনা ৩ কনটেইনার প্রসাধনী চট্টগ্রাম বন্দরে জব্দ

চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে মিথ্যা ঘোষণায় আনা তিন কনটেইনার ভর্তি বিভিন্ন ব্র্যান্ডের প্রসাধনী পণ্য জব্দ করেছে চট্টগ্রাম কাস্টমস হাউজ। বৃহস্পতিবার দুপুরে কাস্টমসের অডিট ইনভেস্টিগেশন এন্ড রিসার্চ (এআইআর) শাখার কর্মকর্তারা এ চালানটি আটক করে।

চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে মিথ্যা ঘোষণায় আনা তিন কনটেইনার ভর্তি বিভিন্ন ব্র্যান্ডের প্রসাধনী পণ্য জব্দ করেছে চট্টগ্রাম কাস্টমস হাউজ। বৃহস্পতিবার দুপুরে কাস্টমসের অডিট ইনভেস্টিগেশন এন্ড রিসার্চ (এআইআর) শাখার কর্মকর্তারা এ চালানটি আটক করে।

বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে চারটা পর্যন্ত কনটেইনার তিনটি শতভাগ কায়িক পরীক্ষা শেষ না হওয়ায় রাজস্ব ফাঁকির পরিমাণ নিশ্চিত হওয়া যায়নি বলে জানান কাস্টমস কর্মকর্তারা।

কাস্টমস সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছরের শুরুতে সিঙ্গাপুর থেকে ৩০ টন কৃষিযন্ত্র আমদানির ঘোষণা দিয়েছিলেন ঢাকার চকবাজারের আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান সালেহা ট্রেডিং। গত ১৯ জানুয়ারি চালানটি চট্টগ্রাম বন্দরে পৌঁছালে গোপন তথ্যের ভিত্তিতে চালানটি নজরদারিতে রাখে এআইআর শাখার কর্মকর্তারা। বিষয়টি টের পেয়ে চালানটি খালাসের আর কোনো উদ্যোগ নেয়নি আমদানিকারক।

একাধিকবার আমদানিকারকে অবহিত করা হলেও সাড়া না পেয়ে বৃহস্পতিবার চালানটি শতভাগ খালাসের উদ্যোগ নেয় কাস্টমস কর্তৃপক্ষ।

সহকারী কমিশনার রেজাউল করিম দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, কৃষিযন্ত্র আমদানি ক্ষেত্রে এক শতাংশ শুল্ক হলেও চালানটি পাওয়া প্রসাধনীর শুল্ক হচ্ছে ৮৯ শতাংশ থেকে ১৩১ শতাংশ পর্যন্ত। মিথ্যা ঘোষণার মাধ্যমে রাজস্ব ফাঁকি দিতেই এ চালানটি আমদানি করা হয়েছিল। কাস্টমসের তৎপরতার কারণে বন্দর থেকে চালানটি খালাসের উদ্যোগ নেয়নি আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান।

তিনি বলেন, শুল্ক ফাঁকি নির্ণয়ের পর আমদানিকারকের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Comments

The Daily Star  | English

Govt bars Matiur from Sonali Bank’s board meeting

The disclosure comes a couple of hours after the finance ministry transferred Matiur to the Internal Resources Division from tthe NBR

10m ago