‘জাতির পিতার কোনো রকম অপমান বা অসম্মান হতে দেব না’

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য ভাঙচুর ও অবমাননার প্রতিবাদে রাজধানী ঢাকাসহ দেশজুড়ে প্রতিবাদ সমাবেশ করেছেন সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।
ছবি: সংগৃহীত

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য ভাঙচুর ও অবমাননার প্রতিবাদে রাজধানী ঢাকাসহ দেশজুড়ে প্রতিবাদ সমাবেশ করেছেন সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।

ঢাকায় আজ শনিবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ‘গভর্নমেন্ট অফিসিয়াল ফোরাম’-এর ব্যানারে এই প্রতিবাদ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশন কর্মসূচিটি সমন্বয় করে।

এতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস বলেন, ‘আমরা আমাদের জীবদ্দশায় জাতির পিতার প্রতি কোনো রকম অপমান বা অসম্মান হতে দেব না। এটাই আমাদের আজকের অঙ্গীকার।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা জনগণের সেবক। জাতির পিতা আমাদের সংবিধানের অংশ। সংবিধান রক্ষা করাই আমাদের দায়িত্ব।’

বাংলাদেশ অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ও এলজিআরডি মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব হেলাল উদ্দিন আহমেদ এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন।

তিনি বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সাংবিধানিকভাবে জাতির পিতা হিসেবে স্বীকৃত। বঙ্গবন্ধু ও স্বাধীনতার সম্পর্ক নিবিড়।’

‘বঙ্গবন্ধুর ওপর কোনো ধরণের আক্রমণ ও অপমান সহ্য করা হবে না,’ যোগ করেন তিনি।

এ কর্মসূচিতে বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক ড. বেনজীর আহমেদ সংবিধান ও রাষ্ট্রের ওপর আক্রমণ কঠোর হাতে মোকাবিলা করা হবে বলে ঘোষণা দেন।

এ কর্মসূচিতে কয়েক হাজার সরকারি কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন এবং সব ক্যাডারের প্রতিনিধিরা বক্তব্য রাখেন।

গত ৫ ডিসেম্বর কুষ্টিয়ায় বঙ্গবন্ধুর নির্মাণাধীন ভাস্কর্য ভাঙচুরের প্রতিবাদে আজ রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশের সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরা একযোগে এসব প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করেন।

Comments

The Daily Star  | English

Traffic jam, delay in train schedule mar Eid journey

With people starting to leave the capital ahead of the Eid-ul-Azha, many endured sufferings today due to a snarl-up on a major highway and delayed departure of at least 10 trains

51m ago