অ্যাতলেতিকোকে হারের স্বাদ দিলো ছন্দে ফেরা রিয়াল

নজরকাড়া পারফরম্যান্সে রিয়াল মাদ্রিদ হারিয়ে দিয়েছে শহর প্রতিদ্বন্দ্বী অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদকে।
casemiro and ramos
ছবি: টুইটার

এক সপ্তাহ আগেও ভীষণ চাপে ছিল রিয়াল মাদ্রিদ। এমনকি গুঞ্জন উঠেছিল দলটির কোচ জিনেদিন জিদানের পদত্যাগের। সেসব বাজে সময় পেছনে ফেলে ছন্দে ফিরেছে লস ব্লাঙ্কোসরা। আরেকটি নজরকাড়া পারফরম্যান্সে তারা হারিয়ে দিয়েছে শহর প্রতিদ্বন্দ্বী অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদকে।

শনিবার রাতে স্প্যানিশ লা লিগায় আলফ্রেদো দি স্তেফানো স্টেডিয়ামে ২-০ গোলে জিতেছে রিয়াল। সব ধরনের প্রতিযোগিতা মিলিয়ে এটি তাদের টানা তৃতীয় জয়। নিজেদের মাঠে প্রথমার্ধে তারা এগিয়ে গিয়েছিল কাসেমিরোর লক্ষ্যভেদে। দ্বিতীয়ার্ধে ব্যবধান বাড়ে অ্যাতলেতিকো গোলরক্ষক ইয়ান ওবলাকের আত্মঘাতী গোলে।

মৌসুমের প্রথম মাদ্রিদ ডার্বিতে দাপট দেখায় স্পেনের সফলতম ক্লাব রিয়াল। বিপরীতে, লিগের পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে থাকা অ্যাতলেতিকোকে ভালো সুযোগের জন্য অপেক্ষা করতে হয় দ্বিতীয়ার্ধ পর্যন্ত। শেষ পর্যন্ত এবারের আসরে প্রথম হারের স্বাদ নেয় দিয়েগো সিমিওনের শিষ্যরা। আগের ১০ ম্যাচের আটটিতে জিতেছিল তারা। বাকি দুটি ম্যাচ হয়েছিল ড্র।

ম্যাচের শুরুতে আক্রমণাত্মক ফুটবলের পসরা মেলে ধরে স্বাগতিকরা। নবম মিনিটেই এগিয়ে যেতে পারত তারা। ডি-বক্সের ভেতর থেকে করিম বেনজেমার বাঁ পায়ের জোরালো শট ওবলাকের আঙুল ছুঁয়ে পোস্টে লাগে। পরের মিনিটে লুকাস ভাজকেজের দারুণ এক ক্রসে পা ছোঁয়াতে ব্যর্থ হন ফ্রান্সের এই তারকা স্ট্রাইকার।

রিয়ালের অপেক্ষা দীর্ঘ হয়নি। অ্যাতলেতিকোর রক্ষণে চাপ বজায় রেখে ১৫তম মিনিটে গোল আদায় করে নেয় তারা। টনি ক্রুসের কর্নারে লাফিয়ে উঠে হেড করেন ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার কাসেমিরো।

বিরতির আগে দুদলের কেউই আর লক্ষ্যে শট নিতে পারেনি। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুর দিকেই অবশ্য সমতায় ফেরার সুবর্ণ সুযোগ পেয়েছিল সফরকারীরা। ডান প্রান্ত থেকে মার্কোস ইয়রেন্তের ক্রস রিয়ালের রক্ষণভাগ বিপদমুক্ত করতে না পারলে দূরের পোস্টে বল পেয়ে যান অরক্ষিত থমাস লেমার। কিন্তু তার লক্ষ্যভ্রষ্ট শট বাইরের দিকের জালে লাগে।

৬৩তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ হয় রিয়ালের। এই গোলে ভাগ্যও তাদেরকে সঙ্গ দেয়। দানি কারভাহালের দূরপাল্লার শট রুখতে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন ওবলাক। বল তাকে ফাঁকি দিয়ে আঘাত করে পোস্টে। এরপর তা ফিরে আসার সময় ওবলাকের পিঠে লেগে জালে জড়ায়।

গোল শোধে বেপরোয়া হয়ে ওঠা অ্যাতলেতিকো ৮০তম মিনিটে হতাশ হয়। রেনান লোদির ক্রসে সাউল নিগেজের হেড দারুণ দক্ষতায় রুখে দেন রিয়াল গোলরক্ষক থিবো কোর্তোয়া। পরের মিনিটে লেমারের শট লক্ষ্যে থাকেনি।

মৌসুমের সপ্তম জয়ে লিগের পয়েন্ট তালিকার তৃতীয় স্থানে উঠেছে রিয়াল। স্পেনের সফলতম ক্লাবটির অর্জন ১২ ম্যাচে ২৩ পয়েন্ট। সমান ম্যাচে ২৫ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে আছে রিয়াল সোসিয়েদাদ। এক নম্বরে থাকা অ্যাতলেতিকোর পয়েন্ট ১১ ম্যাচে ২৬। নবম স্থানে থাকা বার্সেলোনা ১০ ম্যাচে পেয়েছে ১৪ পয়েন্ট।

Comments

The Daily Star  | English

Eid rush: People suffer as highways clog up

As thousands of Eid holidaymakers left Dhaka yesterday, many suffered on roads due traffic congestions on three major highways and at an exit point of the capital in the morning.

7h ago