বিলবাওকে হারিয়ে টানা চতুর্থ জয় রিয়ালের

মৌসুমের শুরুটা খুব একটা ভালো যায়নি রিয়াল মাদ্রিদের। লা লিগায় ধুঁকেছে। ধুঁকেছে চ্যাম্পিয়ন্স লিগেও। ঘুরে দাঁড়িয়ে সে আসরে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েই নকআউট পর্বে নাম লিখিয়েছে। লিগেও ধরে রেখেছে সে ধারাবাহিকতা। এবার আথলেতিক বিলবাওকে হারিয়ে যৌথভাবে শীর্ষে উঠেছে লস ব্লাঙ্কোসরা।
ছবি: রয়টার্স

মৌসুমের শুরুটা খুব একটা ভালো যায়নি রিয়াল মাদ্রিদের। লা লিগায় ধুঁকেছে। ধুঁকেছে চ্যাম্পিয়ন্স লিগেও। ঘুরে দাঁড়িয়ে সে আসরে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েই নকআউট পর্বে নাম লিখিয়েছে। লিগেও ধরে রেখেছে সে ধারাবাহিকতা। এবার আথলেতিক বিলবাওকে হারিয়ে যৌথভাবে শীর্ষে উঠেছে লস ব্লাঙ্কোসরা।

মঙ্গলবার রাতে আলফ্রেদো দি স্তেফানো স্টেডিয়ামে বিলবাওকে ৩-১ গোলে হারিয়েছে রিয়াল। স্বাগতিকদের হয়ে জোড়া গোল করেছেন করিম বেনজেমা। অপর গোলটি করেন টনি ক্রস। বিলবাওর পক্ষে একমাত্র গোলটি দিয়েছেন আন্দের কাপা।

তবে এদিন ম্যাচের শুরুটা বেশ ভালো করেছিল বিলবাও। প্রথম চার মিনিটে দুটি ভালো আক্রমণে রিয়াল শিবিরে ভীতি ছড়িয়েছিল দলটি। ১৩তম মিনিটে তো এগিয়ে যেতে পারতো দলটি। কিন্তু ইনাকি উইলিয়ামসের শট লক্ষ্যভ্রষ্ট হলে হতাশ হতে হয় তাদের।

কিন্তু ১৪তম মিনিটে রাউল গার্সিয়া লাল কার্ড দেখলে পাশা বদলে যায়। টনি ক্রুসকে পেছন থেকে ফাউল করে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে বহিষ্কার হন দলের অন্যতম সেরা এ খেলোয়াড়। ফলে উল্টো চাপে পরে দলটি। যদিও লড়াকু মানসিকতার দলটি পিছিয়ে পরে সমতায়ও ফিরেছিল। তবে শেষ রক্ষা করতে পারেনি।

১০ জনের দলের বিরুদ্ধে একের পর এক আক্রমণ করা রিয়াল প্রথম গোল পায় প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে। ডি-বক্স থেকে ভিনিসিয়ুস জুনিয়রের কাটব্যাক থেকে দূরপাল্লার জোরালো এক শটে লক্ষ্যভেদ করেন টনি ক্রুস। আসরে এটা তার প্রথম গোল।

তবে দ্বিতীয়ার্ধের সপ্তম মিনিটেই সমতায় ফেরে বিলবাও। পাল্টা আক্রমণ থেকে আন্দের কাপার শট রিয়াল গোলরক্ষক থিবো কর্তুয়া ঠেকালেও বিপদমুক্ত করতে পারেননি, ফিরতি বলে পাওয়া কাপার শট অবশ্য ঠেকাতে পারেননি কর্তুয়া। তবে পরের মিনিটেই ফের এগিয়ে গিয়েছিল রিয়াল। তবে ভিনিসিয়ুস অফসাইডে থাকায় বাতিল হয় সে গোল।

৭৪তম মিনিটে অবশ্য হতাশ হতে হয়নি রিয়ালের। দলকে এগিয়ে দেন বেনজেমা। ছোট কর্নারের পর দানি কারভাহালের ক্রসে লাফিয়ে দারুণ এক হেডে বল জালে জড়ান এ ফরাসি তারকা।

এরপর সমতায় ফিরতে রিয়াল শিবিরে বেশ চাপ সৃষ্টি করে দলটি। কিন্তু লাভ হয়নি। উল্টো অলআউট খেলতে গিয়ে আরও একটি গোল হজম করে তারা। ম্যাচের যোগ করা সময়ে লুকা মদ্রিচের বাড়ানো বল থেকে গোল করে দলের জয় নিশ্চিত করেন বেনজেমা।

এ জয়ে ১৩ ম্যাচে ২৬ পয়েন্ট হলো রিয়ালের। ফলে শীর্ষে থাকা সোসিয়েদাদ ও আতলেতিকো মাদ্রিদকে স্পর্শ করল দলটি। যদিও গোল ব্যবধানে পিছিয়ে আছে দলটি। আর ১৪ পয়েন্ট নিয়ে ১৩ নম্বরে আছে বিলবাও।

Comments

The Daily Star  | English

Attack on Rafah would be 'nail in coffin' of Gaza aid: UN chief

A full-scale Israeli military operation in Rafah would deliver a death blow to aid programmes in Gaza, where humanitarian assistance remains "completely insufficient", the UN chief warned today

2h ago