সাইবার হামলার ‘মারাত্মক ঝুঁকিতে’ যুক্তরাষ্ট্র

যুক্তরাষ্ট্রে সরকারি, বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ও গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা সাইবার হামলার ‘মারাত্মক ঝুঁকিতে’ আছে বলে সর্তক করেছেন মার্কিন কর্মকর্তারা।
এফবিআইও সাইবার হামলার তদন্ত করছে। ছবি: সংগৃহীত

যুক্তরাষ্ট্রে সরকারি, বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ও গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা সাইবার হামলার ‘মারাত্মক ঝুঁকিতে’ আছে বলে সর্তক করেছেন মার্কিন কর্মকর্তারা।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানায়, সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে হ্যাকিংয়ের প্রমাণ পাওয়া গেছে। যুক্তরাষ্ট্রের অর্থ ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের মতো গুরুত্বপূর্ণ বিভাগও সাইবার হামলার শিকার হয়েছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার মার্কিন সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ইনফ্রাস্ট্রাকচার সিকিউরিটি এজেন্সি (সিআইএসএ) জানায়, এসব হামলা প্রতিহত করা ‘অত্যন্ত জটিল’ ও ‘চ্যালেঞ্জিং’ হবে।

এক বিবৃতিতে সিআইএসএ জানায়, ২০২০ সালের মার্চ থেকে সরকারি প্রতিষ্ঠান, জটিল অবকাঠামো ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোতে ‘অ্যাডভান্সড পার্সিসটেন্ট সাইবার হামলা’ চালানোর চেষ্টা করা হচ্ছে।

সিআইএসএ এসব সাইবার হামলার নেপথ্যে কারা জড়িত ও কোন কোন সংস্থা সাইবার হামলার শিকার হয়েছে তা জানায়নি। কোনো তথ্য চুরি বা ফাঁস হয়েছে কি না, তাও জানা যায়নি।

তবে, সাইবার হামলার সঙ্গে রাশিয়া জড়িত থাকতে পারে বলে সন্দেহ করা হচ্ছে। যদিও এ অভিযোগ অস্বীকার করেছে রাশিয়া।

এদিকে, সাইবার হামলা নিয়ে আশঙ্কা জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের সদ্য নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। তার প্রশাসন সাইবার-সুরক্ষাকে সবচেয়ে বেশি প্রাধান্য দেবে বলে জানান তিনি।

তিনি বলেন, ‘আমাদের সহযোগী ও অংশীদারদের সমন্বয়ে এই ধরনের আক্রমণে বাধা দিতে হবে।’

অন্যদিকে, এখনো পর্যন্ত সাইবার নিরাপত্তা নিয়ে নীরব রয়েছেন বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

Comments

The Daily Star  | English
Anna Bjerde

Bangladesh’s growth story an inspiration to many countries

Says World Bank MD Anna Bjerde; two new projects worth over $650 million for Rohingyas, host communities discussed

43m ago