ট্রেনের ধাক্কায় ‍দুমড়ে-মুচড়ে গেল যাত্রীবাহী বাস, নিহত ১০

জয়পুরহাটে ট্রেনের ধাক্কায় বাসের ১০ যাত্রী নিহত হয়েছেন। দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন অন্তত আরও ছয় জন। আজ শনিবার সকাল পৌনে ৭টার দিকে জয়পুরহাট সদরের পুরানাপৈল রেলক্রসিংয়ে এই দুর্ঘটনা ঘটে।
Jaipurhat_Train_Accident_19.jpg
ছবি: প্রথম আলোর সৌজন্যে

জয়পুরহাটে ট্রেনের ধাক্কায় বাসের ১০ যাত্রী নিহত হয়েছেন। দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন অন্তত আরও ছয় জন। আজ শনিবার সকাল পৌনে ৭টার দিকে জয়পুরহাট সদরের পুরানাপৈল রেলক্রসিংয়ে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

জয়পুরহাটের জেলা প্রশাসক শরিফুল ইসলাম দ্য ডেইলি স্টারকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘এখন পর্যন্ত ১০ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। আহত ছয় জনকে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। দুর্ঘটনার কারণ তদন্ত করে দেখা হবে।’

জয়পুরহাট ফায়ার স্টেশনের ওয়্যারহাউস ইনস্পেকটর সিরাজুল ইসলাম দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘বাঁধন পরিবহনের একটি বাস জয়পুরহাট থেকে পাঁচবিবি যাচ্ছিল। পার্বতীপুর থেকে ছেড়ে আসা উত্তরা এক্সপ্রেস ট্রেন রাজশাহীতে যাচ্ছিল। বাসটি পুরানাপৈল রেলক্রসিংয়ে উঠলে ট্রেন ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই ১০ জন নিহত হন। কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছেন। এখনো তাদের পরিচয় জানা যায়নি। দুর্ঘটনায় বাসটি মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এখনো বাসটি রেললাইনের ওপরে আছে। বাসটি সরিয়ে নিতে ক্রেন দরকার। পাবনা ও দিনাজপুর থেকে দুটি ক্রেন ঘটনাস্থলে আনা হচ্ছে। ক্রেন দুটি পৌঁছাতে আরও দেড় ঘণ্টা সময় লাগতে পারে। দুর্ঘটনার পর থেকে রেল যোগাযোগ বন্ধ আছে। অরক্ষিত রেলক্রসিং, পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা না থাকা এবং কর্মচারীদের দায়িত্বহীনতার কারণে এ ধরনের দুর্ঘটনা ঘটছে।’

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম আলমগীর জাহান বলেন, ‘প্রাথমিক তদন্তে আমরা জানতে পেরেছি, ক্রসিংয়ে স্থায়ী গেটকিপার ছিলেন না। অস্থায়ীভিত্তিতে যাকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছিল, তিনি গতকাল অনুপস্থিত ছিলেন।’

Comments

The Daily Star  | English

Death came draped in smoke

Around 11:30, there were murmurs of one death. By then, the fire, which had begun at 9:50, had been burning for over an hour.

39m ago