প্রায় দেড়শো বছরের টেস্ট ইতিহাসে এমনটা হলো মাত্র দ্বিতীয়বার!

টেস্টে ৩৬ বা তার চেয়ে কম রানে অলআউট হওয়ার ঘটনা আছে আরও ৬টি। তবে টেস্ট ক্রিকেটে নিজেদের ইতিহাসের সবচেয়ে কম রানে অলআউট হওয়ার দিনে ভারতের সঙ্গী হয়েছে আরেকটি বিব্রতকর রেকর্ড।
Virat Kohli
ছবি: রয়টার্স

টেস্টে ৩৬ বা তার চেয়ে কম রানে অলআউট হওয়ার ঘটনা আছে আরও ৬টি। তবে টেস্ট ক্রিকেটে নিজেদের ইতিহাসের সবচেয়ে কম রানে অলআউট হওয়ার দিনে ভারতের সঙ্গী হয়েছে আরেকটি বিব্রতকর রেকর্ড। যা আছে আর কেবল একটি দলের।

শনিবার অ্যাডিলেডে প্যাট কামিন্স আর জস হ্যাজেলউডের তোপে দ্বিতীয় ইনিংসে বিধ্বস্ত হয়ে যায় ভারত। প্রথম ইনিংসে ৫৩ রানে এগিয়ে থাকলেও ঘণ্টা দেড়েকের মধ্যে পুরো মোড় ঘুরে যায় ম্যাচের। ৩৬ রানে গুটিয়ে যাওয়ার চরম বিব্রতকর দিনে ভারতের কোনো ব্যাটসম্যানই যেতে পারেননি দুই অঙ্কে। সর্বোচ্চ ৯ রান আসে ওপেনার মায়াঙ্ক আগারওয়ালের ব্যাট থেকে।

৯৬ বছর আগে আরও একবার এমন দেখা গিয়েছিল। সেবার ইংল্যান্ডের বার্মিংহামে স্বাগতিকদের বিপক্ষে মাত্র ৩০ রানে অলআউট হয়ে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা। তাদেরও কোনো ব্যাটসম্যান যেতে পারেননি দুই অঙ্কে। তবে অতিরিক্ত থেকে এসেছিল ১১ রান। সেদিক থেকে আবার আলাদা ভারতের এই বিপর্যয়। অতিরিক্ত কোনো রানই দেয়নি অস্ট্রেলিয়া!

প্রায় দেড়শো বছরের টেস্ট ইতিহাসে সবচেয়ে কম রানে গুটিয়ে যাওয়ার অস্বস্তিকর রেকর্ড নিউজিল্যান্ডের। সেই ১৯৫৫ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ২৬ রানে অলআউট হয়ে গিয়েছিল তারা। পরের চারটি রেকর্ড দক্ষিণ আফ্রিকার। ১৮৯৬ ও ১৯২৪ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষেই দুবার ৩০ রানে গুটিয়ে গিয়েছিল তারা। ১৮৯৯ সালেও একই প্রতিপক্ষের বিপক্ষে প্রোটিয়ারা অলআউট হয়েছিল ৩৫ রানে। ১৯৩২ সালে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ৩৬ রানে গুঁড়িয়ে দিয়েছিল অস্ট্রেলিয়া। ১৯০২ সালে অজিরাই আবার ইংল্যান্ডের কাছে অলআউট হয় ৩৬ রানে।

এর আগে টেস্টে ভারতের সর্বনিম্ন ছিল ৪২ রান। ৪৬ বছর আগে লর্ডসে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে অমন পরিস্থিতিতে পড়েছিল অজিত ওয়াড়েকারের দল।

Comments