অনুভূতি প্রকাশের ভাষা খুঁজে পাচ্ছেন না কোহলি

এমন হতশ্রী পারফরম্যান্সের পর অনুভূতি প্রকাশের ভাষা খুঁজে পাওয়া দুষ্কর। ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলির ক্ষেত্রেও ঘটেছে তেমনটা।
kohli australia
ছবি: টুইটার

টানা দুদিন চালকের আসনে থেকেও হাতছাড়া হয়েছে ম্যাচ। তাও আবার বিব্রতকরভাবে। অস্ট্রেলিয়ার কাছে ৩৬ রানে অলআউট হওয়ার দিনে কোনো ব্যাটসম্যানই স্পর্শ করতে পারেননি দুই অঙ্ক। এমন হতশ্রী পারফরম্যান্সের পর অনুভূতি প্রকাশের ভাষা খুঁজে পাওয়া দুষ্কর। ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলির ক্ষেত্রেও ঘটেছে তেমনটা।

দুদলের চার ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথমটি শেষ হয়েছে মাত্র আড়াই দিনে। শনিবার অ্যাডিলেডে প্রথম সেশনে জস হ্যাজেলউড ও প্যাট কামিন্সের বিধ্বংসী বোলিংয়ে তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ে ভারতের দ্বিতীয় ইনিংস। ২১.২ ওভারে তারা গুটিয়ে যায় কেবল ৩৬ রানে! যা তাদের টেস্ট ইতিহাসের সর্বনিম্ন স্কোর।

ফলে প্রথম ইনিংসে ৫৩ রানে পিছিয়ে থেকেও পেসারদের নৈপুণ্যে মাত্র ৯০ রানের লক্ষ্য পায় অস্ট্রেলিয়া। তা অনায়াসে তাড়া করে টিম পেইনের দল ৮ উইকেটে জিতে সিরিজে এগিয়ে গেছে ১-০ ব্যবধানে।

ম্যাচ পরবর্তী আনুষ্ঠানিকতায় অস্বস্তিকর হারের প্রসঙ্গে কোহলি বলেছেন, ‘এই অনুভূতি ভাষায় প্রকাশ করা খুব কঠিন। প্রায় ৬০ রানের লিড ছিল আমাদের এবং হঠাৎ করে আমরা ধসে পড়লাম। আপনি যখন দুদিন কঠোর পরিশ্রম করে নিজেকে একটি শক্ত অবস্থানে নিয়ে আসেন এবং তারপর একটি ঘন্টা আপনাকে এমন পরিস্থিতিতে ফেলে দিলো যেখান থেকে জেতা আক্ষরিকভাবে অসম্ভব!’

দলের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে নিবেদনের ঘাটতি দেখতে পেয়েছেন তিনি, ‘আমার মনে হয়, আমাদের আজ (শনিবার) আরও কিছুটা নিবেদন দেখানো উচিত ছিল। তারা প্রথম ইনিংসেও প্রায় একইরকম জায়গায় বোলিং করেছিল। তবে সেবার আমাদের সম্ভবত রান করার মানসিকতা ছিল। সত্যি কথা বলতে, বেশ কিছু ভালো ডেলিভারি ছিল। কিন্তু বল আচমকা কঠিন কিছু করছিল না।’

ভারতের পঞ্চাশের নিচে গুঁড়িয়ে যাওয়ায় অস্ট্রেলিয়ার পেসারদেরও কৃতিত্ব দিয়েছেন সময়ের অন্যতম সেরা এই ব্যাটসম্যান, ‘আমি মনে করি, মানসিকতার কারণে এমনটা হয়েছে। এটি খুবই স্পষ্ট। দেখে মনে হচ্ছিল যে, রান আসা খুব কঠিন এবং বোলাররা তাতে আত্মবিশ্বাস পেয়ে গিয়েছিল। আমি মনে করি, আমাদের দৃঢ় সংকল্পের ঘাটতি এবং বোলারদের বারবার সঠিক জায়গা খুঁজে নেওয়ার যোগফলে এটা ঘটেছে।’

আগামী ২৬ ডিসেম্বর মেলবোর্নে শুরু হবে বক্সিং ডে টেস্ট। তবে স্বাগতিক অজিদের বিপক্ষে ঘুরে দাঁড়ানোর লড়াইয়ে থাকছেন না কোহলি। সন্তানসম্ভবা স্ত্রীর পাশে থাকতে তিনি ফিরছেন ভারতে। তার অনুপস্থিতিতে সিরিজের বাকি তিন ম্যাচে সফরকারীদের নেতৃত্ব দেবেন আজিঙ্কা রাহানে।

তবে অস্ট্রেলিয়া ছাড়ার আগে আগামী টেস্টের জন্য ভারতীয় দলকে শুভকামনা জানিয়েছেন কোহলি, ‘অবশ্যই, দলের কাছে আমরা সবাই প্রতিশ্রুতিবদ্ধ থাকতে চাই। ফলটি (আমাদের পক্ষে এলে) খুব ভালো হত। তবে আমি দারুণ আত্মবিশ্বাসী যে, ছেলেরা সামনের দিনগুলোতে এই ম্যাচের ফল নিয়ে পর্যালোচনা করবে এবং বক্সিং ডেতে আরও শক্তিশালী হয়ে ফিরে আসবে।’

Comments

The Daily Star  | English

Loan default now part of business model

Defaulting on loans is progressively becoming part of the business model to stay competitive, said Rehman Sobhan, chairman of the Centre for Policy Dialogue.

6h ago