চট্টগ্রামে ডিবি পরিচয়ে ছিনতাই, এসআইসহ ২ পুলিশ সদস্য গ্রেপ্তার

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) কর্মকর্তা হিসেবে পরিচয় দিয়ে গাড়িচালকের কাছ থেকে দুই লাখ ৮০ হাজার টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনায় করা মামলায় সীতাকুণ্ড মডেল থানার দুই পুলিশ সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে।
CTG Map
স্টার অনলাইন গ্রাফিক্স

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) কর্মকর্তা হিসেবে পরিচয় দিয়ে গাড়িচালকের কাছ থেকে দুই লাখ ৮০ হাজার টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনায় করা মামলায় সীতাকুণ্ড মডেল থানার দুই পুলিশ সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

বিষয়টি দ্য ডেইলি স্টারকে নিশ্চিত করেছেন চট্টগ্রামের পুলিশ সুপার (এসপি) এসএম রাশিদুল হক। তিনি জানান, গ্রেপ্তার দুই পুলিশ সদস্য হলেন— এসআই সাইফুল আলম ও কনস্টেবল সাইফুল ইসলাম। তাদেরকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে। এ ঘটনার তদন্তে সীতাকুণ্ড সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের নেতৃত্বে দুই সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

‘তদন্ত কমিটিকে সাত কার্যদিবসের মধ্যে তাদের প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে’, বলেন এসপি। তবে, ছিনতাই হওয়া দুই লাখ ৮০ হাজার টাকা এখনো উদ্ধার করা যায়নি।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত ২০ ডিসেম্বর ছিনতাইয়ের ঘটনাটি ঘটে। পরবর্তীতে গতকাল ভুক্তভোগী চালক মো. আবু জাফর দুই পুলিশ সদস্য ও পুলিশের তিন সোর্সসহ মোট পাঁচ জনের বিরুদ্ধে সীতাকুণ্ড থানায় মামলা করার পর বিষয়টি আলোচনায় আসে।

স্থানীয় সূত্র বলছে, পিকআপ ভ্যান কিনতে গত ২০ ডিসেম্বর সকালে টাকা নিয়ে গাজীপুর থেকে সীতাকুণ্ডে যান চালক আবু জাফর (৪৫)। তবে, অতিরিক্ত দাম চাওয়ায় তিনি পিকআপ ভ্যানটি কেনেননি। পরবর্তীতে ওইদিন সন্ধ্যায় তিনি সীতাকুণ্ডে শ্যামলি বাসের কাউন্টারে বসে বাসের জন্য অপেক্ষা করছিলেন। সেসময় পুলিশের তিন সোর্স বাস কাউন্টারে গিয়ে জাফরকে ‘ইয়াবা চোরাকারবারি’ বলে অভিহিত করে হুমকি দিতে থাকেন। একপর্যায়ে পুলিশের ওই তিন সোর্স বিষয়টি এসআই সাইফুল ও কনস্টেবল সাইফুলকে জানালে তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে নিজেদেরকে ডিবি পুলিশ হিসেবে পরিচয় দেয়। এরপর ওই চালকের বিরুদ্ধে পায়ুপথে ইয়াবা পাচারের অভিযোগ তুলে তাকে নিয়ে যান পুলিশের ওই দুই সদস্য।

পরবর্তীতে ওই পুলিশ সদস্যরা এক্স-রে করেও কিছু না পেয়ে একপর্যায়ে চালক জাফরের কাছে থাকা দুই লাখ ৮০ হাজার টাকা নিয়ে ঘটনাটি কাউকে না বলার জন্য হুমকি দিয়ে তাকে ঢাকাগামী একটি বাসে তুলে দেয়।

সীতাকুণ্ড সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আশরাফুল করিম দ্য ডেইলি স্টারকে জানান, এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকা বাকি তিন জনকেও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

Comments

The Daily Star  | English
IMF loan conditions

3rd Loan Tranche: IMF team to focus on four key areas

During its visit to Dhaka, the International Monetary Fund’s review mission will focus on Bangladesh’s foreign exchange reserves, inflation rate, banking sector, and revenue reforms.

12h ago