খেলা

শ্রীলঙ্কাকে বিধ্বস্ত করল দক্ষিণ আফ্রিকা

মঙ্গলবার সেঞ্চুরিয়নে সিরিজের প্রথম টেস্ট স্বাগতিকরা জেতে ইনিংস ও ৪৫ রানে। এই জয়ে দুই ম্যাচের সিরিজেও ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল প্রোটিয়ারা।

ফাফ দু প্লেসির ১৯৯ রানের ইনিংসে লঙ্কানদের উপর বিশাল রানের বোঝা চাপিয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। সেই বোঝার ভারেই কাত হয়ে গেছে দিমুথ করুনারত্নের দল। দ্বিতীয় ইনিংসে দুশোর আগে গুটিয়ে তারা হেরেছে ইনিংস ব্যবধানে।

সেঞ্চুরিয়নে সিরিজের প্রথম টেস্ট স্বাগতিকরা জেতে ইনিংস ও ৪৫ রানে। এই জয়ে দুই ম্যাচের সিরিজেও ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল প্রোটিয়ারা।

প্রথম ইনিংসে ২২৫ রানের বড় ব্যবধানে পিছিয়ে থাকার পর আগের দিন নেমেই ২ উইকেট হারিয়েছিল লঙ্কানরা। দিন শেষ করেছিল ২ উইকেটে ৬৫ রান নিয়ে। কিন্তু কুইন্টেন ডি ককের দল মঙ্গলবার তাদের থামিয়ে দেয় মাত্র ১৮০ রানে। 

চতুর্থ দিনে নেমে যথেষ্ট নিবেদন দেখাতে লঙ্কান মিডল অর্ডার। প্রথম ইনিংসে রান পাওয়া দীনেশ চান্দিমাল এবার ফেরেন থিতু হয়ে। ভিয়ান মুল্ডারের বলে ২৫ রান করে বোল্ড হন তিনি। এরপর নিরোশান ডিকভেলা, দাসুন শানাকারা তড়িঘড়ি আউট হলে দ্রুত ম্যাচ শেষ হওয়ার আভাস পাওয়া যায়।

একশোর আগেই ৪ উইকেট হারিয়ে ফেলে সফরকারীরা। ফিফটি করে কিছুটা প্রতিরোধ গড়েছিলেন কুশল পেরেরা। তিনিও ফেরেন ৬৪ রান করে। শেষ দিকে ওয়েইন্দু হাসারাঙ্গা ছাড়া আর কেউ দাঁড়াতেই পারেননি। হাসারাঙ্গার ৫৯ রান কেবল কমিয়েছে ব্যবধান।

দক্ষিণ আফ্রিকার চার পেসার প্রত্যেকেই নিয়েছেন ২ উইকেট করে।

তিন ফিফটিতে প্রথম ইনিংসে ভালোই করেছিল শ্রীলঙ্কা। তাদের ৩৯৬ রান পরে মামুলি করে দেন দু প্লেসি। তার আক্ষেপমাখা ১৯৯ রানের ম্যারাথন ইনিংসে চেপে স্বাগতিকরা করে ফেলে ৬২১ রান। তাতেই ম্যাচের গতিপথ ঠিক হয়ে যায়। আর ব্যাট করতেই নামতে হয়নি দক্ষিণ আফ্রিকার। 

Comments

The Daily Star  | English