করোনার নতুন স্ট্রেইন কালচারে ভারতের ঈর্ষণীয় সাফল্য

বিশ্বে প্রথম দেশ হিসেবে করোনাভাইরাসের নতুন স্ট্রেইন সফলভাবে কালচার করার ঘোষণা দিয়েছে ভারত।
ভারতে করোনা পরীক্ষার নমুনা সংগ্রহ করছেন একজন স্বাস্থ্যকর্মী। ছবি: রয়টার্স

বিশ্বে প্রথম দেশ হিসেবে করোনাভাইরাসের নতুন স্ট্রেইন সফলভাবে কালচার করার ঘোষণা দিয়েছে ভারত।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানায়, যুক্তরাজ্যে প্রথম শনাক্ত হওয়া করোনাভাইরাসের নতুন স্ট্রেইন সফলভাবে আইসোলেশন ও কালচার করেছে ইন্ডিয়ান মেডিকেল রিসার্চ কাউন্সিল (আইসিএমআর)।

শনিবার এক টুইটে সংস্থাটি দাবি করে যে, যুক্তরাজ্যে শনাক্ত সার্স-কোভ-২ এর নতুন ধরণটি এখন পর্যন্ত আর কোনো দেশ কালচার করেনি, ভারতই বিশ্বে প্রথম।

কালচার হলো জীববিজ্ঞানের একটি প্রক্রিয়া যার মাধ্যমে কোষগুলো সাধারণত প্রাকৃতিক পরিবেশের বাইরে গিয়ে নিয়ন্ত্রিত পরিস্থিতিতে জন্মে।

আইসিএমআর জানিয়েছে, ‘যুক্তরাজ্যফেরতদের থেকে ক্লিনিকাল নমুনা সংগ্রহ করে ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ ভাইরোলজি (এনআইভি) ভাইরাসটি কালচার করতে সফল হয়েছে।’

গবেষণা সংস্থাটি জানায়, আইসিএমআর-এনআইভি-র বিজ্ঞানীরা ভাইরাসের যুক্তরাজ্যের ধরনটির কালচার প্রক্রিয়ায় ভেরো সেল লাইন ব্যবহার করেছিলেন।

ভাইরাসটির নতুন স্ট্রেইন সফলভাবে কালচার করা হলে এর সংক্রমণ ও গতিবিধি বুঝতে তা গবেষকদের সাহায্য করবে।

যুক্তরাজ্য সম্প্রতি জানায়, সে দেশে শনাক্ত ভাইরাসটির নতুন স্ট্রেইন আগেরটির তুলনায় ৭০ শতাংশ পর্যন্ত বেশি সংক্রামক।

যুক্তরাজ্যে প্রথম করোনাভাইরাসের নতুন স্ট্রেইন শনাক্তের পর এখন পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্র, ডেনমার্ক, নেদারল্যান্ডস, অস্ট্রেলিয়া, ইতালি, সুইডেন, ফ্রান্স, স্পেন, সুইজারল্যান্ড, জার্মানি, কানাডা, জাপান, লেবানন, সিঙ্গাপুর ও ভারতসহ কিছু দেশ নতুন স্ট্রেইন শনাক্ত হওয়ার কথা জানিয়েছে।

শুক্রবার ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানায়, ভারতে সার্স-কোভ-২-এর নতুন স্ট্রেইনে এখন পর্যন্ত মোট ২৯ জন পজেটিভ শনাক্ত হয়েছেন।

Comments