সিনেট নির্বাচন, জর্জিয়ায় ট্রাম্প-বাইডেনের সমাবেশ

যুক্তরাষ্ট্রে সিনেট নির্বাচনের আগে কংগ্রেসে ক্ষমতার ভারসাম্য নির্ধারণের জন্য জনসমর্থন আদায়ে জর্জিয়ায় সমাবেশ করেছেন জো বাইডেন ও ডোনাল্ড ট্রাম্প।
ছবি: ফাইল ফটো

যুক্তরাষ্ট্রে সিনেট নির্বাচনের আগে কংগ্রেসে ক্ষমতার ভারসাম্য নির্ধারণের জন্য জনসমর্থন আদায়ে জর্জিয়ায় সমাবেশ করেছেন জো বাইডেন ও ডোনাল্ড ট্রাম্প।

গতকাল সোমবার জর্জিয়ায় এই দুই নেতা সমাবেশ করেছেন উল্লেখ করে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, জর্জিয়ায় সিনেট নির্বাচনে ডেমোক্রেটিক দল থেকে রাফেল ওয়ার্নক ও জোন অসফের বিরুদ্ধে লড়বেন রিপাবলিকান সিনেটর কেলি লোফলার ও ডেভিড পেরডু।

কংগ্রেসের উভয় কক্ষেরই নিয়ন্ত্রণ পেতে দুই ডেমোক্রেটেরই জয় চান ২০ জানুয়ারি প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নিতে যাওয়া বাইডেন।

ট্রাম্পের ইচ্ছা, সিনেটে সংখ্যা গরিষ্ঠ রিপাবলিকান দলের প্রার্থীরা জয়ী হয়ে যেন বাইডেনের কর্মসূচিগুলো আটকাতে পারেন।

গত ১৪ ডিসেম্বরের চূড়ান্ত গণনায় বাইডেন ৩০৬ ও ট্রাম্প পেয়েছেন ২৩২ ইলেকটোরাল কলেজ ভোট পেয়েছেন বলে ঘোষণা করা হয়েছে। ট্রাম্প নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ তুলে এখনও বাইডেনের বিজয় স্বীকার করেননি। আইনি লড়াইয়ে চূড়ান্ত ব্যর্থতা সত্ত্বেও ট্রাম্প ও তার কয়েকজন সমর্থক এখনও নির্বাচনের ফল বাতিলের চেষ্টা করছেন।

জর্জিয়ায় সমাবেশের বেশিরভাগ সময়ই তিনি জর্জিয়ার রিপাবলিকান সমর্থকপুষ্ঠ ডাল্টন এলাকায় ছিলেন। এ থেকে তিনি ক্ষমতায় থাকার লড়াই চালিয়ে যাবেন বলে আভাস পাওয়া যাচ্ছে বলে সংবাদ প্রতিবেদনে মন্তব্য করা হয়েছে।

সমাবেশে ট্রাম্প বলেছেন, ‘তারা হোয়াইট হাউস নিয়ে নিচ্ছে না। আমরা সর্বোচ্চ দিয়ে লড়াই করতে যাচ্ছি।’

সমর্থকরা সে সময় ‘ট্রাম্পের পক্ষে লড়াই করুন’ স্লোগান দেন।

সমাবেশে মহামারি পরিচালনার জন্য বিদায়ী প্রশাসনের সমালোচনা করেছেন বাইডেন। পাশাপাশি ডেমোক্রেটিক দলের মাধ্যমে দেশটিকে নতুনভাবে পরিচালনার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি।

যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় সাড়ে ৩ লাখের বেশি মানুষ মারা গেছেন। বেশিরভাগ রাজ্যেই ভাইরাসটি দ্রুত ছড়িয়ে পড়েছে। এমন পরিস্থিতিতে বাইডেন বলেছেন, ‘নতুন বছর এসেছে। আগামীকাল আটলান্টা, জর্জিয়া ও আমেরিকার জন্য একটি নতুন দিন হতে পারে।’

তিনি করোনা ভ্যাকসিনের ধীর সরবরাহ নিয়ে ট্রাম্প প্রশাসনের সমালোচনা করে বলেছেন, ‘প্রেসিডেন্ট কোনো সমস্যা সমাধান করার চেয়ে চেঁচামেচি ও অভিযোগ করেই বেশি সময় নষ্ট করেন।’

ডেমোক্রেটিক প্রার্থীরা নির্বাচিত হলে করোনা মহামারি চলাকালে প্রত্যেক আমেরিকানকে প্রণোদনা প্যাকেজ হিসেবে ২ হাজার ডলার দেওয়ার কথা জানিয়েছেন বাইডেন।

আগামীকাল বুধবার কংগ্রেসে আনুষ্ঠানিকভাবে ইলেকটোরাল কলেজের ভোট গণনার জন্য আহ্বান জানানো হবে। কংগ্রেসে ইলেকটোরাল কলেজ ভোট নিয়ে অভিযোগ উপস্থাপনের জন্য ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সের ওপরও ট্রাম্প চাপ বাড়িয়েছেন বলে সংবাদ প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

সমাবেশে ভাইস প্রেসিডেন্টকে ‘দুর্দান্ত মানুষ’ হিসেবে উল্লেখ করে ট্রাম্প বলেছেন, ‘আমি আশা করি মাইক পেন্স আমাদের সঙ্গে আছেন। যদি তিনি এ বিষয়ে এগিয়ে না আসেন তবে আমি তাকে ততটা পছন্দ করব না।’

দীর্ঘদিন ধরেই রিপাবলিকান ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত জর্জিয়ায় নভেম্বরের নির্বাচনে বাইডেন জয়ী হওয়ায় সবাই বেশ অবাক হয়েছিলেন। গত বছর প্রায় তিন দশকের মধ্যে প্রথমবারের মতো রাজ্যটিতে কোনো ডেমোক্র্যাটিক প্রেসিডেন্ট প্রার্থী জিতেছেন।

এটি ডেমোক্রেট ওয়ার্নক ও অসফের জন্য আশা জাগিয়ে উল্লেখ করে প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, যদিও তারা এখনও রিপাবলিকানদের সঙ্গে কঠিন লড়াইয়ের মুখোমুখি রয়েছেন।

Comments

The Daily Star  | English
biman flyers

Biman does a 180 to buy Airbus planes

In January this year, Biman found that it would be making massive losses if it bought two Airbus A350 planes.

7h ago