লিভারপুলের আধিপত্যে ফার্গুসনের প্রতিক্রিয়া, 'ভাগ্যিস আমি অবসর নিয়ে ফেলেছি'

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের পয়েন্ট টেবিলে বর্তমানে শীর্ষে অবস্থান করছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। স্যার অ্যালেক্স ফার্গুসন অবসরে যাওয়ার পর এবারই প্রথম। পেছনে ফেলেছে বর্তমান সময়ে রাজত্ব করা লিভারপুলকে। অথচ এ দলটিকে দেখে ভয় পাচ্ছেন খোদ ফার্গুসনই। এমনকি লিভারপুলের এ দলটির বিপক্ষে মোকাবেলা করার আগেই অবসর নিয়ে নেওয়ার শুকরিয়া আদায়ও করেছেন তিনি!
ছবি: সংগৃহীত

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের পয়েন্ট টেবিলে বর্তমানে শীর্ষে অবস্থান করছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। স্যার অ্যালেক্স ফার্গুসন অবসরে যাওয়ার পর এবারই প্রথম। পেছনে ফেলেছে বর্তমান সময়ে রাজত্ব করা লিভারপুলকে। অথচ এ দলটিকে দেখে ভয় পাচ্ছেন খোদ ফার্গুসনই। এমনকি লিভারপুলের এ দলটির বিপক্ষে মোকাবেলা করার আগেই অবসর নিয়ে নেওয়ার শুকরিয়া আদায়ও করেছেন তিনি!

২৭ বছর দায়িত্বে থাকার ২০১৩ সালে ইউনাইটেডের দায়িত্ব ছাড়েন ফার্গুসন। এ সময়ে এনে দিয়েছেন ১৩টি লিগ শিরোপা। তার হাত ধরেই সবশেষ ২০১২-১৩ মৌসুমে লিগ শিরোপা জিতেছিল দলটি। এরপর থেকে শিরোপা জয় তো দূরের কথা শীর্ষে এবারই প্রথমবারের মতো উঠল দলটি। আর এ সময়ে অনেক বদলে গেছে লিভারপুল। তিন দশকের আক্ষেপ মিটিয়ে জিতে নিয়েছে ইপিএলের শিরোপা। এর আগের মৌসুমে তো দলটি জিতেছিল চ্যাম্পিয়ন্স লিগও।

তাই স্বাভাবিকভাবেই বর্তমান লিভারপুল দলকে আলাদাভাবে সমীহ করছেন ফার্গুসন। কিছুটা মজা করেই এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, 'আমি অবসরে গিয়েছি। ভাগ্যিস আমি অবসর নিয়ে ফেলেছি। গত দুই মৌসুম ধরে এ দলটির লক্ষ্য করছি। লিভারপুল নিজেদের ছাড়িয়ে গেছে। তারা ফেনোমেনাল। আমার লিভারপুলের জন্য সবসময় শ্রদ্ধা রয়েছে। সবসময়ই ছিল।'

রোববার হাইভোল্টেজ ম্যাচে অ্যানফিল্ডে মুখোমুখি হচ্ছে লিভারপুল ও ইউনাইটেড। এ ম্যাচ নিয়ে চলছে নানা জল্পনা কল্পনা। মর্যাদার এ ম্যাচটি জিতলে লিভারপুলের সঙ্গে ব্যবধান বাড়াতে পারবে ম্যানইউ। তাতে শিরোপা লড়াইয়েও এগিয়ে যাবে দলটি। অন্যদিকে ফের শীর্ষে ওঠার মিশন বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের। হেরে গেলে ব্যবধান হবে দ্বিগুণ। যদিও মুখোমুখি লড়াইয়ে সবশেষ পাঁচ কোনো ম্যাচেই জিততে পারেনি ইউনাইটেড।

তাই ম্যানইউর জন্য কাজটা সহজ হবে না বলে মনে করেন ফার্গুসন, 'আমি সব সময় ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও লিভারপুলের ম্যাচটি ডার্বি হিসেবে গণ্য করি। কারণ তারা ব্রিটেনের সবচেয়ে সফল দুই ক্লাব। তাদের শিরোপার এক করলে অন্য কেউ সুযোগ পাবে না। লিভারপুলকে হারাতে সাধ্যের বাইরে গিয়ে খেলতে হবে। মাঠে খেলার পাশাপাশি আপনার মানসিক শক্তি আপনার কঠিন পরীক্ষা নেবে। শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত আপনাকে ম্যাচে থাকতে হবে।'

Comments

The Daily Star  | English

Schools, colleges to open June 26

The educational institutes will open on June 26 instead of July 2 to recover learning losses

1h ago