করোনাকালীন নতুন ২ প্রণোদনা প্যাকেজের অনুমোদন

করোনা মহামারির প্রভাব মোকাবিলায় দেশের কুটির, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প খাতে গতি সঞ্চার, গ্রামীণ প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়ন এবং অতি দরিদ্র বয়স্ক ও বিধবাদের সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচি সম্প্রসারণের লক্ষ্যে নতুন দুটি প্রণোদনা প্যাকেজ অনুমোদন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

করোনা মহামারির প্রভাব মোকাবিলায় দেশের কুটির, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প খাতে গতি সঞ্চার, গ্রামীণ প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়ন এবং অতি দরিদ্র বয়স্ক ও বিধবাদের সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচি সম্প্রসারণের লক্ষ্যে নতুন দুটি প্রণোদনা প্যাকেজ অনুমোদন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আজ রোববার অর্থ মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এই কর্মসূচি দুটির জন্য মোট বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে দুই হাজার ৭০০ কোটি টাকা। অবিলম্বে কর্মসূচী দুটি শুরু হবে বলেও জানানো হয়।

করোনা মোকাবিলায় অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধার ও প্রণোদনা প্যাকেজের যাবতীয় দিক নিয়ে মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগ সম্প্রতি তিনটি মতবিনিময় সভার আয়োজন করে। এতে উপস্থিত ছিলেন ঊর্ধ্বতন সরকারি কর্মকর্তা, ব্যবসায়ী, ব্যাংক, উন্নয়ন সহযোগী দেশ ও সংস্থা, গবেষণা প্রতিষ্ঠান এবং প্রেস ও মিডিয়া প্রতিনিধি।

সভায় করোনা মোকাবিলায় গ্রামীণ অর্থনীতিকে বেগবান করতে ব্যাংক ব্যবস্থার পাশাপাশি কুটির, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প খাতের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সরকারি ও আধাসরকারি সংস্থা বা প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে ঋণ কার্যক্রমের পরিধি বাড়ানো, নারী উদ্যোক্তাদের উন্নয়নে আরও ব্যবস্থা নেওয়া এবং দারিদ্র্য হ্রাসের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন অব্যাহত রাখতে পল্লী এলাকার প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়ন এবং অতি দরিদ্র অসহায় পরিবারের সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচি বাড়ানোর সুপারিশ করা হয়।

নতুন অনুমোদিত প্রথম প্যাকেজটি এক হাজার ৫০০ কোটি টাকার। এর আওতায় ক্ষুদ্র, কুটির ও মাঝারি শিল্প খাত ও নারী উদ্যোক্তাদের জন্য ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প (এসএমই) ফাউন্ডেশনকে ৩০০ কোটি টাকা, বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প সংস্থাকে (বিসিক) ১০০ কোটি টাকা এবং জয়িতা ফাউন্ডেশনকে ৫০ কোটি টাকা দেওয়া হবে।

এছাড়াও প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে বিভিন্ন কার্যক্রমের জন্য এনজিও ফাউন্ডেশনকে ৫০ কোটি টাকা, সোশ্যাল ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশনকে ৩০০ কোটি টাকা, পল্লী দারিদ্র্য বিমোচন ফাউন্ডেশনকে ৩০০ কোটি টাকা, ক্ষুদ্র কৃষক উন্নয়ন ফাউন্ডেশনকে ১০০ কোটি টাকা এবং বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ডকে ৩০০ কোটি টাকা দেওয়া হবে।

দ্বিতীয় প্যাকেজের আওতায় এক হাজার ২০০ কোটি টাকা ব্যয়ে আগামী ২০২১-২২ অর্থবছরে দেশের ১৫০টি উপজেলায় সব দরিদ্র বয়স্কদের এবং বিধবা ও স্বামী পরিত্যক্তা নারীদের ভাতার আওতায় আনা হবে।

নতুন এই দুটিসহ করোনাকালে মোট ২৩টি প্রণোদনা প্যাকেজ অনুমোদিত হয়েছে। যার মোট আর্থিক পরিমাণ এক লাখ ২৪ হাজার ৫৩ কোটি টাকা।

Comments

The Daily Star  | English

Sajek accident: Death toll rises to 9

The death toll in the truck accident in Rangamati's Sajek increased to nine tonight

5h ago