কার্বন শোষণ প্রযুক্তির জন্যে মাস্কের ১০০ মিলিয়ন ডলারের পুরস্কার

বিশ্বের শীর্ষ ধনীর তালিকায় নাম আসার এক সপ্তাহের মধ্যে সেরা কার্বন শোষণ প্রযুক্তির জন্যে ১০০ মিলিয়ন ডলার অনুদান দেওয়ার পরিকল্পনার কথা ঘোষণা করেছেন এলন মাস্ক।
Elon Musk
ছবি: সংগৃহীত

বিশ্বের শীর্ষ ধনীর তালিকায় নাম আসার এক সপ্তাহের মধ্যে সেরা কার্বন শোষণ প্রযুক্তির জন্যে ১০০ মিলিয়ন ডলার অনুদান দেওয়ার পরিকল্পনার কথা ঘোষণা করেছেন এলন মাস্ক।

গতকাল বৃহস্পতিবার সংবাদমাধ্যম ব্লুমবার্গ জানিয়েছে, গতকাল এক টুইটার বার্তায় মাস্ক এ ঘোষণা দিয়ে বলেছেন, বিস্তারিত পরে জানানো হবে।

ব্লুমবার্গ বিলিয়নারস সূচকে দক্ষিণ আফ্রিকায় জন্মগ্রহণকারী, স্পেসএক্সের প্রতিষ্ঠাতা ও টেসলা ইঙ্কের সহ-প্রতিষ্ঠাতা মাস্ক বর্তমানে ২০১ দশমিক ৪ বিলিয়ন ডলারের মালিক।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অন্যান্য ব্যবসার মতো মাস্ক কার্বন শোষণ প্রক্রিয়ার ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন। তিনি বিশেষ করে বৈশ্বিক পরিবেশগত সমস্যা প্রযুক্তির মাধ্যমে দ্রুত সমাধানের ওপর জোর দিচ্ছেন।

এতে আরও বলা হয়েছে, পৃথিবীকে ক্রমশ উষ্ণ করে দিচ্ছে গ্রিনহাউস গ্যাস কাবর্ন ডাইঅক্সাইড। কার্বন শোষণ ও তা সংরক্ষণ করে রাখা দুটি ভিন্ন বিষয়। তবে, এর উদ্দেশ্য এক।

বাতাস থেকে কার্বন শোষণ করতে বিশ্বের বিভিন্নস্থানে দুই ডজনের মতো বড় প্লান্ট বসানো হয়েছে। এগুলোর মাধ্যমে প্রতি বছর ৪০ মিলিয়ন মেট্রিক টন কাবর্ন ডাইঅক্সাইড শোষণ করা হয়ে থাকে। এটি বিশ্বের মোট উৎপাদিত কার্বনের প্রায় শূন্য দশমিক ১ শতাংশ।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, মাস্ক তার উপার্জিত সম্পদ তার মূল আগ্রহের প্রকল্পগুলোতে খরচ করতে চান। বিশেষ করে, মহাকাশ গবেষণায়।

সম্প্রতি, জার্মান ডিজিটাল সংবাদমাধ্যম অ্যাক্সেল স্পিংগার’কে মাস্ক বলেছেন, ‘মঙ্গল গ্রহে একটি শহর গড়ে তুলতে অনেক রিসোর্সের প্রয়োজন। আমার পক্ষে যতটুকু সম্ভব এ কাজে সহায়তা করব।’

সংবাদ প্রতিবেদন মতে, ৪৯ বছর বয়সী বিশ্বের এই শীর্ষ ধনী ব্যক্তি তার মাস্ক ফাউন্ডেশনে ২৫৭ মিলিয়ন ডলার দান করেছেন। এটি তার বর্তমান সম্পদের শূন্য দশমিক ১ শতাংশ।

Comments

The Daily Star  | English

Lifts at public hospitals: Where Horror Abounds

Shipon Mia (not his real name) fears for his life throughout the hours he works as a liftman at a building of Sir Salimullah Medical College, commonly known as Mitford hospital, in the capital.

8h ago