করোনা থেকে রক্ষা পেলেন না বাংলাদেশে না আসা হোপ

বাংলাদেশ সফরে না থাকায় ঘরোয়া ক্রিকেটে মনোযোগী ছিলেন হোপ। বার্বাডোজের হয়ে খেলতে গিয়েছিলেন লিস্ট-এ টুর্নামেন্ট সুপার-৫০ কাপ টুর্নামেন্টে।
Shai Hope
ফাইল ছবি: সংগ্রহ

করোনাভাইরাস ভীতিতে বাংলাদেশে আসেননি ওয়েস্ট ইন্ডিজের শীর্ষ ১০ ক্রিকেটার। তাদের মধ্যে অন্যতম ছিলেন টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান শেই হোপ। বাংলাদেশের বিপক্ষে বরাবরই সফল এই ডানহাতি যে করোনার কারণে সফর থেকে নাম সরিয়ে নিয়েছিলেন, সেই করোনাতেই আক্রান্ত হয়েছেন তিনি নিজভূম ক্যারিবিয়ান দ্বীপপুঞ্জে।

বাংলাদেশ সফরে না থাকায় ঘরোয়া ক্রিকেটে মনোযোগী ছিলেন হোপ। বার্বাডোজের হয়ে খেলতে গিয়েছিলেন লিস্ট-এ টুর্নামেন্ট সুপার-৫০ কাপ টুর্নামেন্টে। কিন্তু পিসিআর পরীক্ষায় করোনা পজিটিভ হওয়ায় শেই ও তার ভাই কাইল হোপ ছিটকে গেছেন এই টুর্নামেন্ট থেকে।

এই দুজন ছাড়াও ওই টুর্নামেন্ট খেলতে যাওয়া আরও এক ক্রিকেটারের করোনায় আক্রান্তের খবর মিলেছে।

অ্যান্টিগাতে আগামী ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হওয়ার কথা এই আসর। তার আগে জৈব সুরক্ষা বলয়ে ক্রিকেটারদের রাখতে রোববার করা হয় করোনা পরীক্ষা। যাতে হোপ ভাইদের করোনা আক্রান্তের তথ্য নিশ্চিত করে বিবৃতি দিয়েছে বার্বাডোজ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন। রিপোর্ট আসার পরই তাদের আইসোলেশনে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। স্কোয়াডের বাকিরাও আছেন পর্যবেক্ষণে।

এই দুজনের বদলে টেবিন ওয়ালকট ও জেকারি ম্যাককাসিকে দলে নিয়েছে বার্বাডোজ।

শীর্ষ ক্রিকেটারদের ছাড়া বাংলাদেশে খেলতে এসে ভীষণ বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়ে ক্যারিবিয়ানরা। আনকোরা ক্রিকেটারদের নিয়ে ওয়ানডে সিরিজে বাংলাদেশের কাছে ৩-০ ব্যবধানে হোয়াইটওয়াশড হয়েছে তারা। খেলার ফলের চেয়েও দৃষ্টিকটু ছিল তাদের অ্যাপ্রোচ আর স্কিলের প্রদর্শনী। তিনটি ম্যাচের কোনোটিতেই কোনো একটা মুহূর্তেও লড়াই জমাতে পারেনি তারা।

আগামী ৩ ফেব্রুয়ারি থেকে বাংলাদেশের বিপক্ষে দুই টেস্টের সিরিজ শুরু হবে উইন্ডিজের। তবে ওয়ানডে দলের মতো একেবারে আনকোরা নয় তাদের টেস্ট দল। সেখানে বোলিং আক্রমণে আছেন প্রথম সারির ক্রিকেটাররাই। ব্যাটিংয়ে সেরা কয়েকজন না থাকলেও ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট, জার্মেইন ব্ল্যাকউডরা আছেন।

Comments

The Daily Star  | English
biman flyers

Biman does a 180 to buy Airbus planes

In January this year, Biman found that it would be making massive losses if it bought two Airbus A350 planes.

9h ago