টটেনহ্যামকে উড়িয়ে দেওয়ার পর ক্লপ বললেন, ‘এটাই আমরা’

দুর্দশা কাটিয়ে অবশেষে জয়ে ফিরেছে অলরেডসরা। হাইভোল্টেজ লড়াইয়ে তারা উড়িয়ে দিয়েছে টটেনহ্যাম হটস্পারকে।
klopp
ছবি: টুইটার

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের আগের পাঁচ ম্যাচে নেই কোনো জয়। তিনটি ড্রয়ের পাশে হার দুটি। শেষ চার ম্যাচে নেই কোনো গোলও। কী বাজে সময়টাই না কাটছিল লিভারপুলের! সেই দুর্দশা কাটিয়ে অবশেষে জয়ে ফিরেছে অলরেডসরা। হাইভোল্টেজ লড়াইয়ে তারা উড়িয়ে দিয়েছে টটেনহ্যাম হটস্পারকে। এতে স্বভাবতই স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছেন দলটির কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপ। ম্যাচশেষে এই জার্মান বলেছেন, লিভারপুলের মতো দলের যেভাবে খেলা উচিত, মাঠে সেভাবেই খেলেছে তার শিষ্যরা।

বৃহস্পতিবার রাতে জোসে মরিনহোর টটেনহ্যামের মাঠে ৩-১ গোলে জিতেছে লিগের শিরোপাধারীরা। প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে রবার্তো ফিরমিনোর গোলে এগিয়ে যায় সফরকারীরা। দ্বিতীয়ার্ধের একদম শুরুতে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ট্রেন্ট আলেকজান্ডার-আর্নল্ড। ম্যাচের ৪৯তম মিনিটে পিয়েরে-এমিল হয়বিয়ার্গের লক্ষ্যভেদে ব্যবধান কমায় স্বাগতিকরা। কিন্তু স্পার্সের ফেরার আশা নস্যাৎ করে ৬৫তম মিনিটে লিভারপুলের জয় নিশ্চিত করে সাদিও মানে। তার আগে মোহামেদ সালাহও একবার জালে বল পাঠান। কিন্তু আক্রমণকালে ফিরমিনোর হাতে বল লাগায় ভিএআরের সাহায্য নিয়ে গোলটি বাতিল করেন রেফারি।

স্বরূপে ফেরার আভাস দিয়ে পূর্ণ পয়েন্ট পাওয়ার পর ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিটি স্পোর্টসের কাছে ক্লপ জানিয়েছেন দলের পারফরম্যান্স নিয়ে সন্তুষ্টির কথা, ‘আমি আজ (বৃহস্পতিবার) যা দেখলাম, এর সঙ্গে ফর্মের কোনো সংযোগ নেই। বরং আমরা কী তা-ই দেখিয়েছি। এটাই আমরা। বিশেষ করে, দ্বিতীয়ার্ধের পুরোটা জুড়ে কেবল আমরাই ছিলাম। দুর্দান্ত একটি লড়াই হয়েছে, যেখানে সবকিছুর ঊর্ধ্বে ছিল ফুটবল।’

liverpool fc
ছবি: টুইটার

তবে চোটে জর্জরিত লিভারপুল পরিপূর্ণ প্রশান্তি নিয়ে খেলা শেষ করতে পারেনি। প্রথমার্ধের শেষদিকে মাঠ ছাড়তে হয় জোয়েল মাতিপকে। পরবর্তীতে এই ডিফেন্ডারের গোড়ালির লিগামেন্টে চোটের বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছে। এ প্রসঙ্গে ক্লপ বলেছেন, ‘আমরা সঠিক সময়ে গোল করেছি। অসাধারণ সব গোল। সঠিক খেলোয়াড়রাই গোল করেছে। কেবল মাতিপের মাঠ ছেড়ে যাওয়া ছাড়া অবশ্যই সবকিছু ভালো ছিল।’

ভার্জিল ভ্যান ডাইকসহ লিভারপুলের অধিকাংশ ডিফেন্ডার রয়েছেন চোট থেকে সেরে ওঠার লড়াইয়ে। মাতিপের চোট তাই দলটির জন্য মরার উপর খাঁড়ার ঘায়ের মতো। সংকট থেকে উত্তরণে নতুন খেলোয়াড় কেনা হবে কিনা জানতে চাওয়া হলে ক্লপ জবাব দিয়েছেন, ‘আমরা সঠিক কাজটা করার চেষ্টা করি এবং আমাদের সঠিক কাজটাই করতে হবে। আমি মাত্রাতিরিক্ত সতর্ক হতে চাই না। কিন্তু আমাদের সঠিক খেলোয়াড়কে খুঁজে বের করতে হবে। আমাদের স্কোয়াডে খেলোয়াড় রয়েছে। তবে রক্ষণভাগে যা ঘটছে, তা রীতিমতো অবিশ্বাস্য।’

Comments

The Daily Star  | English
Bangladeshis consume 136 eggs a year, people in developed countries 400

Bangladeshis consume 136 eggs a year, people in developed countries 400

Experts say at a seminar on “Doctors' dialogue on right to protein”

29m ago