দোস্ত খুব ভয় লাগছে তোর টেনশনে: সেঞ্চুরির আগে মিরাজকে মোস্তাফিজ

বোলিংটাই মূল কাজ। নেহায়েত ঠেকায় না পড়লে ব্যাটিং নিয়ে ভাবেন না মোস্তাফিজুর রহমান। কিন্তু আজ বন্ধু মেহেদী হাসান মিরাজের জন্য পুরোদুস্তর ব্যাটসম্যান বনে যেতে হয়েছে তাকে। খেলতে হয়েছে মূল্যবান ১১টি বল। অন্যথায় হয়তো ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরিটি আজ পাওয়াই হতো না মিরাজের। নিজে আউট হয়ে গেলে বন্ধু সেঞ্চুরি হাতছাড়া করতে পারেন এমনটা ভেবে ভয় পেয়ে গিয়েছিলেন মোস্তাফিজ।
ছবি: বিসিবি

বোলিংটাই মূল কাজ। নেহায়েত ঠেকায় না পড়লে ব্যাটিং নিয়ে ভাবেন না মোস্তাফিজুর রহমান। কিন্তু আজ বন্ধু মেহেদী হাসান মিরাজের জন্য পুরোদুস্তর ব্যাটসম্যান বনে যেতে হয়েছে তাকে। খেলতে হয়েছে মূল্যবান ১১টি বল। অন্যথায় হয়তো ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরিটি আজ পাওয়াই হতো না মিরাজের। নিজে আউট হয়ে গেলে বন্ধু সেঞ্চুরি হাতছাড়া করতে পারেন এমনটা ভেবে ভয় পেয়ে গিয়েছিলেন মোস্তাফিজ।

ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে মোস্তাফিজের সঙ্গে নিজের কী কথা হয়েছে তা তুলে ধরে মিরাজ, 'মোস্তাফিজ আমাকে বলেছে যে, দোস্ত, আমার (মোস্তাফিজ) খুব ভয় লাগছে তোর (মিরাজ) টেনশনে যে তোর ৯০ হয়ে গেছে, ওখানে যদি আমি আউট হয়ে যাই!'

আরও পড়ুন- ছক্কার উদযাপন করে মিলল না এক রানও!

তবে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবার দিনটা ছিল মিরাজেরই। ব্যক্তিগত ২৪ রানে একবার আর ৮৫ রানে একবার জীবন পেয়েছিলেন। বাকি সময়ে খেলেছেন দারুণ। তুলে নিয়েছেন সব ধরণের ক্রিকেটেই ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি। তবে এ সেঞ্চুরি পাওয়া নিয়ে এক পর্যায়ে শঙ্কা ছিল। কারণ নবম ব্যাটসম্যান হিসেবে নাঈম হাসান যখন আউট হয়ে যান তখন ৯২ রানে দাঁড়িয়ে মিরাজ। শেষ ব্যাটসম্যান মোস্তাফিজ সঙ্গ না দিতে পারলে সেঞ্চুরির স্বপ্ন আরও বিলম্বিত হতো। তবে শেষ পর্যন্ত নিজের কাজটা ঠিকভাবেই করতে পেরেছেন মোস্তাফিজ।

মূলত সেঞ্চুরি নিয়ে ভাবেননি মিরাজ। পুরোটা ছেড়ে দিয়েছিলেন ভাগ্যর উপরে। তবে মোস্তাফিজকে সাহসটা ঠিকমতোই দিতে পেরেছিলেন এ অলরাউন্ডার, 'আমি ওরে (মোস্তাফিজ) একটা কথাই বলেছি, দোস্ত এটা তোর হাতেও না, আমার হাতেও না। তুই তোর স্বাভাবিক ক্রিকেট খেল। যদি আমার কপালে থাকে, আল্লাহ্‌ যদি আমার ওপর রহম করে তাহলে একশ হবে। এটা তো তোর হাতে নাই। তুই তোর মতো খেল। চেষ্টা কর ভালোমতো খেলার। আমি ওইভাবে মানসিকভাবে তৈরি হয়েছি। আমার (সেঞ্চুরি) করতে হবে এটা আমি কখনও চিন্তা করিনি। চিন্তা করেছি যে, আল্লাহ্‌ যদি আমার কপালে রাখে তাহলে সেঞ্চুরি হবেই। এটার ওপর অনেক বিশ্বাস করেছি।'

তবে শেষ পর্যন্ত নিজের প্রথম সেঞ্চুরি করতে পেরে দারুণ খুশি মিরাজ, 'আলহামদুলিল্লাহ্‌। আল্লাহ্‌র কাছে লাখ লাখ শুকরিয়া। খুব ভালো লাগছে যে, আসলে এরকম একটা সেঞ্চুরি... খুব ভালো লাগছে এবং আসলে বিশ্বাস হচ্ছে না। আমার নিজের কাছে অনেক ভালো লাগছে।'

'আমি যখন শুরু করেছি, তখন আমি হয়তো ভালো ব্যাটিং করতে পারছিলাম না। তবে আমি আস্তে আস্তে চেষ্টা করেছি নিজেকে যতটুকু সম্ভব উন্নতি করার জন্য। আমি মনে করি, গত কয়েকদিনে যা কাজ করেছি, তা অনেক ভালো হয়েছে। সেটার জন্য হয়তো আজকের ব্যাটিংটা ভালো হয়েছে, আল্লাহ্‌র রহমতে রান করতে পেরেছি।' -যোগ করেন মিরাজ।

Comments

The Daily Star  | English

Create right conditions for Rohingya repatriation: G7

Foreign ministers from the Group of Seven (G7) countries have stressed the need to create conditions for the voluntary, safe, dignified, and sustainable return of all Rohingya refugees and displaced persons to Myanmar

1h ago