শীর্ষ খবর

প্রত্যাশা করছি দ্রুতই রায় কার্যকর হবে: দীপনের স্ত্রী

জাগৃতি প্রকাশনীর স্বত্বাধিকারী ফয়সল আরেফিন দীপন হত্যা মামলার আট আসামির সবাইকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এই রায় খুব দ্রুতই কার্যকর হবে বলে প্রত্যাশা করছেন দীপনের স্ত্রী চিকিৎসক রাজিয়া রহমান জলি।
গতকাল রায় ঘোষণার পর আদালত প্রাঙ্গণে কান্নায় ভেঙে পড়েন ফয়সল আরেফিন দীপনের স্ত্রী রাজিয়া রহমান। সে সময় পরিবারের এক সদস্য তাকে সান্ত্বনা দিচ্ছিলেন। ছবি: প্রবীর দাশ

জাগৃতি প্রকাশনীর স্বত্বাধিকারী ফয়সল আরেফিন দীপন হত্যা মামলার আট আসামির সবাইকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এই রায় খুব দ্রুতই কার্যকর হবে বলে প্রত্যাশা করছেন দীপনের স্ত্রী চিকিৎসক রাজিয়া রহমান জলি।

আজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রায়ের বিষয়ে জানতে চাইলে দ্য ডেইলি স্টারকে তিনি এই প্রত্যাশার কথা বলেন।

রাজিয়া রহমান বলেন, ‘আমাদের প্রত্যাশা ছিল আসামিদের মৃত্যুদণ্ড হবে। আমরা সেই প্রত্যাশা অনুযায়ী রায় পেয়েছি। যে আশঙ্কাটা ছিল যে, রায় ঘোষণা করতে আরও দেরি হবে। কিন্তু, অভিযোগপত্র দেওয়ার পর খুব দ্রুতই রায় ঘোষণা করা হয়েছে। এটা একটা স্বস্তির বিষয়।’

‘আসামিপক্ষের আইনজীবীদের যে মনোভাব গতকাল দেখেছি যে, তারা আপিল বিভাগে আবেদন করবেন, সুপ্রিম কোর্টে যাবেন। আমরা প্রত্যাশা করি এই রায়ের নড়চড় হবে না। আর গতকাল বিচারক যখন রায়টা ঘোষণা করছিলেন, তিনি খুব সুন্দর করে বোল্ডভাবে পড়ছিলেন। সেটা খুব ভালো লেগেছে। কিন্তু, গতকালের দিনটার মুখোমুখি হওয়াটাই খুব কঠিন ছিল। খুনিদের সামনে গিয়ে বসে থাকা চুপচাপ, আস্তে আস্তে ঘটনাগুলো শোনা বা পুরো রায়টা শোনা, সেসময় শরীর-মনে বেশ রি-অ্যাক্ট হয়’, বলেন তিনি।

রায় ঘোষণা হলেও এখনো পুরো প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়নি। সেক্ষেত্রে এখন আপনাদের প্রত্যাশা কী?, জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এখন প্রত্যাশা করছি খুব দ্রুতই রায় কার্যকর হবে। এই মামলাটিতে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী, প্রশাসনসহ সবার খুব আন্তরিকতা ছিল। এটা আমাদের সবার আবেগকে নাড়া দিয়েছিল। সবাই আমাদের পরিবারের প্রতি সহানুভূতিটা দেখিয়েছেন। যারাই আমরা বিবেকসম্পন্ন মানুষ, আমরা সবাই তো চাই যে খুনিদের বিচার হোক।’

উল্লেখ্য, রাজধানীর শাহবাগ এলাকায় ২০১৫ সালের ৩১ অক্টোবর ফয়সল আরেফিন দীপনকে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। ২ নভেম্বর তার স্ত্রী রাজিয়া রহমান বাদী হয়ে শাহবাগ থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছিলেন। গতকাল সেই মামলার রায়ে আট আসামিকে ফাঁসির আদেশ দেন আদালত।

আরও পড়ুন:

দীপন হত্যায় ৮ আসামির মৃত্যুদণ্ড

দীপন হত্যা মামলা: রায় ঘোষণার আগে ও পরে

এটা প্রত্যাশিত রায়: দীপনের বাবা

Comments