‘আমি হলে আবেদনই করতাম না’, গুনাথিলেকার আউট নিয়ে স্যামি

মাঠের আম্পায়ার ‘সফট সিগন্যাল’ আউট দিয়ে ঘটনার চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের ভার দেন টিভি আম্পায়ারের উপর। টিভি আম্পায়ার আর বদলাননি মাঠের আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত। কিন্তু রিপ্লেতে দেখা গেছে

দানুশকা গুনাথিলেকা কি আউট ছিলেন? ওয়েস্ট ইন্ডিজ-শ্রীলঙ্কা ম্যাচের পর পর এই প্রশ্ন হয়েছে বড়। ওয়ানডেতে মাত্র ৮ম ব্যাটসম্যান ‘অবস্ট্রাক্টিং দা ফিল্ড’ আউটের শিকার হয়েছেন তিনি। কিন্তু তিনি ইচ্ছাকৃতভাবে ফিল্ডারকে বাঁধা দিয়েছেন বলে স্পষ্ট হয়নি, বিতর্কও সেখানে।

শ্রীলঙ্কার ইনিংসের ২২তম ওভারের ঘটনা। দারুণ খেলছিলেন ওপেনার গুনাথিলেকা। পেরিয়ে গিয়েছিলেন ফিফটি। উইন্ডিজ অধিনায়ক কাইরন পোলার্ডের অফ স্টাম্পের উপর থাকা বল ডিফেন্স করে নামিয়েই রানের জন্য উদ্যত হন। অপর প্রান্তের ব্যাটসম্যান তখন সে ঈশারায় সাড়া দিয়ে অনেকটাই ছুটে এসেছিলেন। পোলার্ড দৌঁড়ে গিয়ে উইকেটের উপর থাকা বলের নাগাল পাননি। পেছনে সরতে থাকা গুনাথিলেকার পায়ে লেগে বল কিছুটে দূরে সরে যায়। পোলার্ড আবেদন করেন ‘অবস্ট্রাক্টিং দা ফিল্ড’ আউটের।

মাঠের আম্পায়ার ‘সফট সিগন্যাল’ আউট দিয়ে ঘটনার চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের ভার দেন টিভি আম্পায়ারের উপর। টিভি আম্পায়ার আর বদলাননি মাঠের আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত। কিন্তু রিপ্লেতে দেখা গেছে বল ছিল গুনাথিলেকার পেছনে। তিনি বল খেয়ালই করেননি। পোলার্ড চাইলে অপর প্রান্তের ব্যাটসম্যানকে আউটের চেষ্টা করতে পারতেন।

এই আউটের পরই বদলে যায় লঙ্কানদের ইনিংসের চেহারা। ভাল অবস্থা থেকে তারা গুটিয়ে যায় মাঝারি পূঁজিতে। পরে শাই হোপের সেঞ্চুরিতে ম্যাচ হারে বড় ব্যবধানে।

ম্যাচের পর ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাবেক অধিনায়ক ড্যারেন স্যামি টুইট করে জানিয়েছেন এটা আউট ছিল না। এমনকি পোলার্ডের জায়গায় তিনি হলে আবেদনই করতেন না, ‘আমার মনে হয় না এটা আউট ছিল। আমি হলে এমন অবস্থায় আবেদন করতাম না।’

শ্রীলঙ্কার ক্রিকেট পরিচালক হিসেবে নিয়োগ পাওয়া টম মুডির মতে এটা চূড়ান্ত বাজে সিদ্ধান্ত, ‘চরম বাজে সিদ্ধান্ত, একদম ইচ্ছাকৃতভাবে ফিল্ডারকে বাধা দেওয়া হয়নি।’

আউটের সিদ্ধান্তে অসন্তুষ্ট লঙ্কান ম্যানেজমেন্টও। ম্যাচের মধ্যেই নিজেদের আপত্তি জানাতে ম্যাচ রেফারির সঙ্গে কথা বলেছেন তাদের কোচ মিকি আর্থার।

ক্রিকেটের আইনে আছে ফিল্ডারকে ইচ্ছাকৃতভাবে বাধা দিলে ব্যাটসম্যানকে ‘অবস্ট্রাক্টিং দা ফিল্ড’ আউট দিতে পারবেন আম্পায়ার। কিন্তু দুর্ঘটনাবশত হলে আউট হবেন না ব্যাটসম্যান।

ম্যাচের পর অবশ্য পোলার্ডকে দেখা গেছে গুনাথিলেকার সঙ্গে কথা বলতে। হয়ত এমন দুর্ভাগ্যের শিকার হওয়ায় দুঃখপ্রকাশই করেছেন তিনি। তবে স্পোর্টিং মানসিকতা দেখালে ম্যাচের মধ্যেই গুনাথিলেকাকে ক্রিজে রেখে দেওয়ার সুযোগ ছিল পোলার্ডের।

 

Comments

The Daily Star  | English

Hiring begins with bribery

UN independent experts say Bangladeshi workers pay up to 8 times for migration alone due to corruption of Malaysia ministries, Bangladesh mission and syndicates

40m ago