মেসিকে রিয়ালে স্বাগত জানাতে পারলে খুশি হবেন রামোস

বার্সেলোনার সঙ্গে লিওনেল মেসির বর্তমান চুক্তির মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী গ্রীষ্মে।
messi and ramos
ছবি: এএফপি

বার্সেলোনার সঙ্গে লিওনেল মেসির বর্তমান চুক্তির মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী গ্রীষ্মে। কয়েক মাস পরই বিনা ট্রান্সফার ফিতে তিনি পাড়ি জমাতে পারবেন নতুন কোনো ঠিকানায়। ইতোমধ্যে আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডের সঙ্গে জড়ানো হয়েছে ম্যানচেস্টার সিটি ও পিএসজির নাম। কিন্তু তার পরবর্তী ক্লাব যদি হয় রিয়াল মাদ্রিদ? তাহলে কেমন হবে?

বার্সেলোনা ও রিয়ালের মধ্যে সাপে-নেউলে সম্পর্ক। তারা স্পেনের সবচেয়ে সফল দুটি দল তো বটেই, চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীও। তাই বলে দুই ক্লাবেই খেলেছেন এমন ফুটবলারের সংখ্যাও নেহায়েত কম না। রিয়াল থেকে সোজা বার্সেলোনায় যোগ দেওয়ার উদাহরণ যেমন আছে, তেমনি আছে বার্সেলোনা থেকে সরাসরি রিয়ালে নাম লেখানোরও।

নতুন শতাব্দীর কথাই বিবেচনায় নেওয়া যাক। ২০০০ সালে লুইস ফিগো বার্সা ছেড়ে খুঁটি গাড়েন রিয়ালের তাঁবুতে। সেটা নিয়ে বিতর্ক পৌঁছেছিল চরমে। সেসময় ট্রান্সফার ফির বিশ্বরেকর্ড গড়ে পর্তুগিজ তারকা ফিগোকে কিনেছিল রিয়াল। সাত বছর পর হাভিয়ের স্যাভিওলা যখন সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে আশ্রয় নেন, তখন অবশ্য কাদা ছোড়াছুঁড়ি হয়নি। কারণ, ন্যু ক্যাম্পে আর্জেন্টাইন এই ফরোয়ার্ডের চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়ে গিয়েছিল।

মেসিও যদি তেমন কিছু করে বসেন? তাহলে ভীষণ আনন্দ লাগবে রিয়ালের অধিনায়ক সার্জিও রামোসের। এই অভিজ্ঞ ডিফেন্ডার লাইভ ভিডিও স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্ম টুইচে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে হাসতে হাসতে বলেছেন, ‘মেসিকে (রিয়াল মাদ্রিদে) স্বাগত জানাতে পারলে আমি খুশি হব। দরকার হলে প্রথম কয়েক সপ্তাহ আমি তাকে আমার বাড়িতেও থাকতে দিব।’

বার্সা-রিয়ালের মতো মেসি-রামোস একে অপরের ‘শত্রু’। খেলার মাঠে বহুবার দুজন দ্বন্দ্বে জড়িয়েছেন। মেসিকে ফাউল করে রামোসের লাল কার্ড হজমের ঘটনাও ঘটেছে একাধিকবার।

দ্বৈরথের প্রসঙ্গ টানার পাশাপাশি মেসি কীভাবে রিয়ালকে আরও সাফল্য এনে দিতে পারবেন তা-ও তুলে ধরেছেন তিনি, ‘তার সেরা বছরগুলোতে আমাদের অনেক যন্ত্রণা ভোগ করতে হয়েছে। তাই তার মুখোমুখি না হতে হলে বেশ হবে। সে আমাদের আরও অনেক ট্রফি জিততে এবং সাফল্য পেতে সাহায্য করবে। আমি যদি উল্টোটা বলি, তাহলে সেটা ভুল হবে।’

মেসির মতো রামোসের ভবিষ্যৎ নিয়েও চলছে জল্পনা-কল্পনা। তিনিও এখনও চুক্তি নবায়ন করেননি। সেক্ষেত্রে তাকে নিয়েও একইরকম কিছু ভাবা যেতে পারে? বার্সার জার্সি উঠতে পারে তার গায়ে? উত্তর হলো ‘না’।

৩৪ বছর বয়সী রামোসের জবাব, ‘এটা কোনোভাবেই সম্ভব নয়! হ্যাঁ, (বার্সার নতুন সভাপতি) হোয়ান লাপোর্তার প্রতি আমার ভালোলাগা আছে। কিন্তু জীবনে কিছু কিছু জিনিস থাকে যা টাকা দিয়ে কেনা যায় না। যেমন আপনি জাভি (হার্নান্দেজ) কিংবা (জেরার্দ) পিকেকে কখনো রিয়াল মাদ্রিদে দেখতে পাবেন না!’

অর্থাৎ রামোস বুঝিয়ে দিয়েছেন, মেসিকে রিয়ালের হয়ে খেলতে দেখার প্রত্যাশার কথাগুলো স্রেফ রসিকতা করেই বলা!

Comments

The Daily Star  | English

Iran's President Raisi, foreign minister killed in helicopter crash

President Raisi, the foreign minister and all the passengers in the helicopter were killed in the crash, senior Iranian official told Reuters

4h ago