শীর্ষ খবর

সন্ত্রাসীদের কাছে তথ্য পাচারের অভিযোগে কুষ্টিয়ার সেই এসআই প্রত্যাহার

জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ নম্বরে ফোন করে পুলিশকে সন্ত্রাসীদের তথ্য দিয়ে সেই সন্ত্রাসীদের হামলায় গুরুতার আহত হওয়ার ঘটনায় সন্ত্রাসীদের কাছে তথ্য পাচারের অভিযোগে পুলিশ উপপরিদর্শক (এসআই) জাহাঙ্গীর হোসেনকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।
কুষ্টিয়া
স্টার অনলাইন গ্রাফিক্স

জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ নম্বরে ফোন করে পুলিশকে সন্ত্রাসীদের তথ্য দিয়ে সেই সন্ত্রাসীদের হামলায় গুরুতার আহত হওয়ার ঘটনায় সন্ত্রাসীদের কাছে তথ্য পাচারের অভিযোগে পুলিশ উপপরিদর্শক (এসআই) জাহাঙ্গীর হোসেনকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোস্তাফিজুর রহমান দ্য ডেইলি স্টারকে জানান, গতকাল রোববার রাতেই তাকে ভেড়ামারা উপজেলার কুচিয়ামোড়া পুলিশ ক্যাম্প থেকে প্রত্যাহার করে কুষ্টিয়া পুলিশ লাইনে নেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘অভিযোগের সত্যতা যাচাই-বাছাই চলছে। এখনও প্রমাণ পাওয়া না গেলেও অভিযোগ আসায় জেলা পুলিশ এই ব্যবস্থা নিয়েছে।’

কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপারের কাছে করা লিখিত অভিযোগ থেকে জানা গেছে, আসাদুল হক নামের এক যুবক গত শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে জুনিয়াদহ এলাকায় তার বাড়ির পাশে পদ্মা নদীতে তিনটি গুলির শব্দ পান। তিনি বিষয়টি জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ নম্বরে ফোন দিয়ে জানান। ওই সেবা থেকে তার সঙ্গে ভেড়ামারা থানার দায়িত্বরত কর্মকর্তার (ডিউটি অফিসার) সঙ্গে যোগাযোগ করিয়ে দেওয়া হয়। ঘটনাস্থলটি ছিল ভেড়ামারা থানার কুচিয়ামোড়া পুলিশ ক্যাম্পের আওতায়। তাই ভেড়ামারা থানার দায়িত্বরত কর্মকর্তা ভুক্তভোগী যুবকের নাম ও মুঠোফোন নম্বর কুচিয়ামোড়া পুলিশ ক্যাম্পের উপপরিদর্শক (এসআই) জাহাঙ্গীর হোসেনকে দেন।

এর ঘণ্টা তিনেক পর বেলা ১টার দিকে এসআই জাহাঙ্গীর হোসেন তাকে ফোন দেন এবং বলেন, ‘তুই ফাজলামি করিস, আমি খবর নিয়ে দেখেছি এলাকায় কোনো ঘটনা ঘটেনি।’

ওই ঘটনার ২০-২৫ মিনিটের মধ্যে আট জন যুবক তার বাসায় প্রবেশ করে তাকে গালাগালি করেন। এদের মধ্যে চার জন তার ওপর হামলা করেন। একজন রামদা দিয়ে তাকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে আহত করেন। সন্ত্রাসীরা তাকে বলে, ‘তোর এত বড় সাহস, তুই পুলিশে খবর দিস’।

পরে আসাদুলের চিৎকার শুনে পাশেই মাঠে কাজ করা কয়েকজন কৃষক ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন এবং তাকে উদ্ধার করেন। সন্ত্রাসীরা তাকে পিস্তল দিয়ে গুলির করার ভয় দেখিয়ে পালিয়ে যায়।

ঐ দিনই আহত আসাদুল কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হন। গত শনিবার তিনি ঘটনার বিবরণসহ আলমগীর, মামুন, মিলন, শাকিল, রুবেল, আসমান, রাকিব ও অজ্ঞাত একজনের নামে জেলা পুলিশ সুপারের কাছে লিখিত অভিযোগ দেন।

গতকাল সকালে ঐ অভিযোগটি ভেড়ামারা থানায় মামলা হিসেবে নথিভুক্ত হয়।

আরও পড়ুন: পুলিশকে সন্ত্রাসীদের তথ্য দিয়ে হামলার শিকার, ৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা

Comments

The Daily Star  | English

Extreme heat sears the nation

The scorching heat continues to disrupt lives across the country, forcing the authorities to close down all schools and colleges till April 27.

6h ago