শাল্লার ঘটনায় জড়িতদের গ্রেপ্তার দাবিতে ১০ নাগরিকের বিবৃতি

সুনামগঞ্জের শাল্লার নোয়াগাঁওয়ে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের বাড়িতে হেফাজতে ইসলাম সমর্থকদের হামলার ঘটনা উল্লেখ করে দেশ থেকে সাম্প্রদায়িক অপশক্তি প্রতিরোধের আহ্বান জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন দেশের ১০ নাগরিক।
সুনামগঞ্জের শাল্লার নোয়াগাঁওয়ে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের বাড়িতে হেফাজতে ইসলাম সমর্থকরা হামলা চালায়। ছবি: সংগৃহীত

সুনামগঞ্জের শাল্লার নোয়াগাঁওয়ে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের বাড়িতে হেফাজতে ইসলাম সমর্থকদের হামলার ঘটনা উল্লেখ করে দেশ থেকে সাম্প্রদায়িক অপশক্তি প্রতিরোধের আহ্বান জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন দেশের ১০ নাগরিক।

শিক্ষাবিদ, লেখক, নাট্যব্যক্তিত্বসহ ১০ নাগরিক গণমাধ্যমে পাঠানো বিবৃতিতে বলেন, বাংলাদেশের জনগণ যখন স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও মুজিব বর্ষ পালন করছে, তখন শাল্লায় যে অমানবিক সাম্প্রদায়িক ঘটনা ঘটেছে, তা আমাদের ক্ষুব্ধ করেছে। বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী থাকাকালীন এ ধরনের সাম্প্রদায়িক ঘটনা আমাদের বিস্মিত করেছে। বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম মারফত জানা গেছে, হেফাজতের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোমিনুল হকের উসকানিতে ও হেফাজতের অনুসারীরা সাধারণ মানুষকে বিভ্রান্ত করে এ বীভৎস সাম্প্রদায়িক ঘটনা ঘটায়। সংবাদপত্র অনুসারে, স্থানীয় প্রশাসন ও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী সম্ভাব্য হামলা সম্পর্কে জেনেও যথাযত ব্যবস্থা নেয়নি।

অবিলম্বে মোমিনুল হক ও শাল্লার নিরীহ মানুষের ওপর আক্রমণকারী, অগ্নিসংযোগকারী ও লুণ্ঠনকারীদের গ্রেপ্তারের দাবি জানান তারা।

বিবৃতিদাতারা হলেন— আবদুল গাফফার চৌধুরী, হাসান আজিজুল হক, শামসুজ্জামান খান, সারোয়ার আলী, মফিদুল হক, মামুনুর রশীদ, মুনতাসীর মামুন, শাহরিয়ার কবীর, আবদুস সেলিম ও নাসির উদ্দীন ইউসুফ।

তারা আরও বলেন, গত বেশ কয়েক বছর ধরে বিভিন্ন মহলের প্রশ্রয়ে সাম্প্রদায়িক হেফাজত-জামায়াতিরা দেশের বিভিন্নস্থানে এ ধরনের ঘটনা ঘটানোর সাহস পাচ্ছে। পাশাপাশি এই সাম্প্রদায়িক শক্তি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দেশের অনেক প্রগতিশীল ব্যক্তিদের নামে কুৎসা রটনা করছে। অথচ বিটিআরসি এই কুৎসা রটনাকারীদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। আমরা এই দণ্ডযোগ্য অপরাধ নিয়ন্ত্রণে বিটিআরসির যথাযত তৎপরতা প্রত্যাশা করি। আমাদের আশঙ্কা, শেখ হাসিনা দেশকে যে লক্ষ্যে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন এবং বিশ্বব্যপী বাংলাদেশের যে ভাবমূর্তি গড়ে তুলেছেন, শাল্লাজাতীয় সাম্প্রদায়িক ঘটনা সেই ভাবমূর্তিকে বিনষ্ট করবে এবং একটি নেতিবাচক দেশ হিসেবে বাংলাদেশ বিশ্বে প্রতীয়মান হবে।

বিবৃতিদাতারা বলেন, অতীতে আমরা দেখেছি যারা এ ধরনের ঘটনা ঘটিয়েছে, তাদের বিচারকার্য এখনো সন্পন্ন হয়নি। আমদের আশঙ্কা এ ধরনের সাম্প্রদায়িক ঘটনা অব্যাহত থাকলে বাংলাদেশ এগিয়ে যাবে না, পিছিয়ে যাবে এবং এতদিনের সব অর্জন ভুলুণ্ঠিত হবে। এই সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে সরকার যে ব্যবস্থাই নেন, তা সরকারের বিবেচনা।

সবশেষে দেশের সকল সুনাগরিকদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তারা বলেন, আসুন আমরা সম্মিলিতভাবে এই জঙ্গি সাম্প্রদায়িক অপশক্তিকে প্রতিরোধ করি।

আরও পড়ুন:

শাল্লায় হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের বাড়িতে হামলার প্রধান আসামি ইউপি সদস্য শহীদুল গ্রেপ্তার

শাল্লায় হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের বাড়িতে হামলা: গ্রেপ্তার ২২

হেফাজত নেতা মামুনুলকে গ্রেপ্তারের দাবি

সুনামগঞ্জে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের বাড়িতে হেফাজত সমর্থকদের হামলা

শাল্লায় হিন্দুদের বাড়িতে হামলার ঘটনায় মামলা

‘আওয়ামী লীগে কি সাম্প্রদায়িক লোকজন ঢুকে গেছে?’, প্রশ্ন ঢাবি ছাত্রলীগ সভাপতির

Comments

The Daily Star  | English
Bangladeshis consume 136 eggs a year, people in developed countries 400

Bangladeshis consume 136 eggs a year, people in developed countries 400

Experts say at a seminar on “Doctors' dialogue on right to protein”

1h ago