বিধানসভা নির্বাচন

পশ্চিমবঙ্গে প্রথম দফায় ভোটগ্রহণ চলছে

ভারতের পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভা নির্বাচনে প্রথম দফায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। এ বছর করোনা মহামারির কারণে আট দফায় ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।
করোনা মহামারির মধ্যেই পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভা নির্বাচনে প্রথম দফায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। ছবি: সংগৃহীত

ভারতের পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভা নির্বাচনে প্রথম দফায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। এ বছর করোনা মহামারির কারণে আট দফায় ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস জানায়, আজ প্রথম দফায় পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, পুরুলিয়া ও বাঁকুড়ার ৩০টি আসনে ভোটগ্রহণ চলছে।

স্বাস্থ্যবিধি মেনে শনিবার সকাল ৭টা থেকে পাঁচ জেলায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়। প্রথম দফায় ভোটে ৬৫৯ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে।

পূর্ব মেদিনীপুরে সাত আসন, পশ্চিম মেদিনীপুরে ছয় আসন, ঝাড়গ্রাম চার আসন, পুরুলিয়ায় নয় আসন ও বাঁকুড়ায় চার আসনে মোট ১৯১ প্রার্থীর আজ ভাগ্যনির্ধারণ হবে।

প্রথম দফার ৩০টি আসনে মোট ভোটদাতার সংখ্যা ৭৩ লাখ ৮০ হাজার ৯৪২ জন।

হিন্দুস্তান টাইমস জানায়, করোনাভাইরাস থেকে সুরক্ষা পেতে প্রতিটি বুথে থার্মাল স্ক্রিনিংয়ের ব্যবস্থা করা হয়েছে। বুথে ঢোকার আগে ভোটারদের শরীরের তাপমাত্রা পরীক্ষা হচ্ছে। তাপমাত্রা বেশি থাকলে বুথে প্রবেশের অনুমতি মিলবে না। যাদের শরীরের তাপমাত্রা বেশি তারা অতিরিক্ত সতর্কতাসহ বিকেল সাড়ে ৫টা থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা পর্যন্ত ভোট দিতে পারবেন। প্রয়োজনে তাদেরকে পিপিই কিট পরতে হতে পারে।

বাংলাদেশে দুই দিনের সফরে থাকা ভারতের প্রধানমন্ত্রী বাংলায় পোস্ট করা এক টুইটে বলেন, ‘পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচনে আজ প্রথম পর্যায়ে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। যে বিধানসভার আসনগুলোতে ভোটগ্রহণ হচ্ছে, সেখানকার ভোটদাতাদের আমি রেকর্ড সংখ্যায় ভোটাধিকার প্রয়োগের অনুরোধ জানাই।’

ভোটের আগের রাতেই পূর্ব মেদিনীপুরের পটাশপুরের সাতশতমালে তৃণমূল কংগ্রেস ও বিজেপির মধ্যে বিক্ষোভ চলেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিক্ষোভের খবর পেয়ে রাত দেড়টা নাগাদ ঘটনাস্থলে পৌঁছায় পুলিশ। বিক্ষোভে বোমা বিস্ফোরণে পটাশপুর থানার ওসি দীপককুমার চক্রবর্তীসহ দুই জন আহত হয়েছেন।

সকাল ৯টা পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গের ৩০টি আসনের সাত দশমিক ৭২ শতাংশ ভোট পড়েছে। আসামে ভোট পড়েছে আট দশমিক ৮৪ শতাংশ।

আরও পড়ুন:

বিজেপির ‘হাইভোল্টেজ প্রচারণা’র পরেও জনমত জরিপে এগিয়ে তৃণমূল

Comments

The Daily Star  | English
The forgotten female footballers of Khulna

The forgotten female footballers of Khulna

Wearing shorts and playing football -- these reasons were enough for some locals to attack under-17 female footballers of Super Queen Football Academy at Tentultala village in Khulna in July last year.

17h ago