বাংলাদেশে এ বছর ৫ শতাংশ প্রবৃদ্ধি হতে পারে: আইএমএফ

বিশ্বব্যাংকের পর আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ) বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি এই বছর বাড়তে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে।

বিশ্বব্যাংকের পর আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ) বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি এই বছর বাড়তে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে।

আজ মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটনে আইএমএফের সদর দপ্তর থেকে প্রকাশিত বৈশ্বিক অর্থনৈতিক পূর্বাভাস শীর্ষক রিপোর্টে জানিয়েছে বাংলাদেশে ২০২১ সালে জিডিপি প্রবৃদ্ধি হতে পারে পাঁচ শতাংশ।

এর আগে গত বছরের অক্টোবরের পূর্বাভাসে বলা হয়েছিল এই বছরে ৪ দশমিক ৪ শতাংশ প্রবৃদ্ধি হতে পারে। নতুন এই প্রতিবেদনে ২০২২ সালে বাংলাদেশের জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৭ দশমিক ৫ শতাংশ হতে পারে বলে জানানো হয়েছে।

রিপোর্টে বলা হয়েছে, বৈশ্বিক অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়াতে যাচ্ছে এর ফলে বিশ্বের গড় প্রবৃদ্ধি ৬ শতাংশ হবে যা আগের পূর্বাভাসের চেয়ে ০ দশমিক ৮ শতাংশ পয়েন্ট বেশি।

এই বছরে ভারতের প্রবৃদ্ধি ১২ দশমিক ৫ শতাংশ, মালদ্বীপের ১৮ দশমিক ৯ শতাংশ, শ্রীলংকার ৪ শতাংশ, নেপালের ২ দশমিক ৯ শতাংশ এবং পাকিস্তানের ১ দশমিক ৫ শতাংশ হতে পারে বলে আইএমএফ জানিয়েছে।

আইএমএফের এই পূর্বাভাস দেওয়া হয় বছরের ভিত্তিতে। এর আগে গত ৩১ মার্চ বিশ্বব্যাংকের এক রিপোর্টে ২০২০-২১ অর্থবছরে বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি ৩ দশমিক ৬ শতাংশ হতে পারে বলে প্রাক্কলন করা হয়।

যা তাদের গত অক্টোবরের প্রাক্কলনে ছিল ১ দশমিক ৭ শতাংশ আর জানুয়ারির প্রাক্কলনে ছিল ২ শতাংশ।

বিশ্বব্যাংক তার রিপোর্টে জানায় ভ্যাকসিন দেয়ার সাফল্য আর বিশ্ব অর্থনীতি কতটা ঘুরে দাঁড়াবে তার ওপর ভর করে এই অর্থবছরে বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি ২ দশমিক ৬ থেক ৫ দশমিক ৬ শতাংশ পর্যন্ত বাড়তে পারে।

আরও পড়ুন-

ভ্যাকসিনের ফলে অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়ানোর পূর্বাভাস

 

Comments

The Daily Star  | English

EC denies AL permission for December 10 rally

Decides to hold discussion at Dhaka district AL office

1h ago