মঈন আলীর সমালোচনা করে আর্চারের তোপের মুখে তসলিমা

জোফরা আর্চারের সঙ্গে কথার লড়াইয়ের পর মঈন আলী ও আইএসকে জড়িয়ে করা টুইট মুছে ফেলেছেন তসলিমা।
taslima_nasrin

‘মঈন আলী ক্রিকেটের সঙ্গে যুক্ত না হলে সিরিয়াতে গিয়ে আইএসে যোগ দিত।’

গতকাল সোমবার টুইটারে এমনটা লিখেছিলেন তসলিমা নাসরিন। তাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ওঠে সমালোচনার ঝড়। তার মন্তব্যকে ভালোভাবে নেয়নি ইংল্যান্ডের ক্রিকেটাররাও। আজ মঙ্গলবার সতীর্থের পাশে দাঁড়িয়ে সরব ভূমিকায় অবতীর্ণ হন পেসার জোফরা আর্চার। স্যাম বিলিংস, বেন ডাকেটরাও দেন তসলিমার কথার জবাব। শেষ পর্যন্ত টুইটটি মুছে দিয়েছেন ১৯৯৪ সাল থেকে নির্বাসিত এই লেখিকা।

taslima

সম্প্রতি ভারতীয় গণমাধ্যম জানায়, চেন্নাই সুপার কিংসের জার্সি পরতে চাননি মঈন। কারণ, আইপিএলের দলটির জার্সিতে মদ প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠানের লোগো রয়েছে। এই ইংলিশ অলরাউন্ডার তাই নিজের জার্সি থেকে লোগো তুলে নেওয়ার অনুরোধ করেন। আর তা মেনে নেওয়া হয়েছে। পরবর্তীতে অবশ্য চেন্নাই কর্তৃপক্ষ দাবি করেছে, খবরটি ভুয়া।

এসবের মাঝেই মঈন ও জঙ্গি সংগঠন আইএসকে জড়িয়ে টুইট করেন তসলিমা। পরে আর্চার রি-টুইট করে লিখেন, ‘আপনি কি সুস্থ? আমার মনে হয় না।’

এতে বিতর্কের ঢেউ ওঠায় আত্মপক্ষ সমর্থন করে তসলিমা আবার টুইট করেন, ‘নিন্দুকরা ভালো করেই জানে যে, মঈন আলীকে নিয়ে আমার করা টুইটটি ব্যঙ্গাত্মক ছিল। কিন্তু তারা এটাকে ইস্যু বানিয়ে আমাকে অপমান করছে। কারণ, আমি মুসলিম সমাজকে ধর্মনিরপেক্ষ করার চেষ্টা করি এবং ইসলামী ধর্মান্ধতার বিরোধিতা করি। মানবজাতির অন্যতম দুঃখজনক বিষয় হলো, নারীবাদের পক্ষ নেওয়া বামপন্থীরা নারীবাদের বিপক্ষে অবস্থান নেওয়া ইসলামপন্থীদের সমর্থন করে।’

তবে তসলিমার ব্যাখ্যা আর্চারের কাছে যুক্তিযুক্ত মনে হয়নি। তিনি ফের রি-টুইট করে লিখেন, ‘ব্যঙ্গাত্মক? কিন্তু কেউ তো হাসছে না, এমনকি আপনিও না, এখন অন্তত যে কাজটা আপনি করতে পারেন, তা হলো, টুইটটি ডিলিট করে ফেলা।’

আর্চারের এই রি-টুইটের পর মঈন ও আইএসকে জড়িয়ে করা টুইট মুছে ফেলেছেন তসলিমা।

Comments

The Daily Star  | English

Cyclone Remal makes landfall

The eye of the cyclonic storm is scheduled to cross Bangladesh between 12:00-1:00am after which the cyclone is expected to weaken

13m ago